আইএসের নারী উইংয়ের টার্গেটে ভারতীয় মুসলিম যুবকরা!

আইসিস জঙ্গী গোষ্ঠী কীভাবে ভারতীয় মুসলিমকে প্রলোভিত করেছে দলে যোগ দেওয়ার জন্য, তা নিজের মুখে স্বীকার করলেন আইসিস নিয়োগকারী আফশা জাবিন ওরফে নিকি জোসেফ।

টাইমস অফ ইন্ডিয়ার রিপোর্টে প্রকাশ, ভারতীয় মুসলিমদের আইসিসে যোগ দেওয়ার জন্য সোশ্যাল মিডিয়াকে ফাঁদ হিসাবে ব্যবহার করে তারা। মঙ্গলবার সাইবারাবাদ পুলিস গ্রেফতার করে জাবিনকে। আফশা জাবিন জানিয়েছেন, তিনি ব্রিটিশ নাগরিকত্বের পরিচয় দিয়ে ভারতীয় মুসলিম যুবকদের আইসিস-এ নিয়োগ করতেন।


আইসিস জঙ্গী গোষ্ঠী কীভাবে ভারতীয় মুসলিমকে প্রলোভিত করেছে দলে যোগ দেওয়ার জন্য, তা নিজের মুখে স্বীকার করলেন আইসিস নিয়োগকারী আফশা জাবিন ওরফে নিকি জোসেফ।

টাইমস অফ ইন্ডিয়ার রিপোর্টে প্রকাশ, ভারতীয় মুসলিমদের আইসিসে যোগ দেওয়ার জন্য সোশ্যাল মিডিয়াকে ফাঁদ হিসাবে ব্যবহার করে তারা। মঙ্গলবার সাইবারাবাদ পুলিস গ্রেফতার করে জাবিনকে। আফশা জাবিন জানিয়েছেন, তিনি ব্রিটিশ নাগরিকত্বের পরিচয় দিয়ে ভারতীয় মুসলিম যুবকদের আইসিস-এ নিয়োগ করতেন।

তিনি স্বীকার করেন একাধিক ফেসবুক অ্যাকাউন্ট খুলে প্রচার করা হত আইসিস-এর ভাবনা। জাবিনকে সহযোগিতা করত হায়দ্রাবাদের মুসলিম যুবক সলমন মহিউদ্দিন। চলতি বছরে গত জানুয়ারিতে দুবাই বিমানবন্দর থেকে সলমনকে গ্রেফতার করা হয়।

সলমন পুলিসের কাছে স্বীকার করেছিল, আফশা জাবিন তাকে প্রভাবিত করে আইসিস-এ যোগ দেওয়ার জন্য। সিরিয়ায় পাঠানোর জন্য তাকে দুবাইয়েতে ডাকেন জাবিন, জানান সমলন।

এদিকে জাবিনও পুলিসের কাছে স্বীকার করেছে, তারা “Islam Vs Christianity Friendly Discussion” নামে একটি ফেসবুক গ্রুপ তৈরি করে। অল্পদিনেই ৫০ হাজার অনুগামী যোগ দান করেছিল এই গ্রুপে।

বিস্তারিত জানতে দেখুন নীচের ভিডিওটি-

৫ thoughts on “আইএসের নারী উইংয়ের টার্গেটে ভারতীয় মুসলিম যুবকরা!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *