সাম্প্রদায়িকতার বীজ ও চারাগাছ

শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৪ সালে ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্রের নেতা হয়েও ও আই সি সম্মেলনের নেতা হিসেবে যোগদান করে এসে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বানায়, অন্যান্য ধর্মের ব্যাপারে তার এ ধরনের উদ্যোগ লক্ষিত হয়নি।আসলে শেখ মুজিব ৪৭ এর প্রবঞ্চনাকারি দ্বিজাতি তত্ত্বেরই ধ্বজাধারী। জিয়া সংবিধানে বিসমিল্লাহ বসায় পঞ্চম সংশোধনীতে। এরশাদ ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম বানায়। খালেদা জিয়া জামায়াতকে নিয়া জোট বানায়। হাসিনা জামায়াতের সাথে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আন্দোলন করে, ইসলামি শাসনতন্ত্র আন্দোলনের সাথে ব্লাসফেমি আইনের চুক্তি করে।

শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৪ সালে ধর্ম নিরপেক্ষ রাষ্ট্রের নেতা হয়েও ও আই সি সম্মেলনের নেতা হিসেবে যোগদান করে এসে ইসলামিক ফাউন্ডেশন বানায়, অন্যান্য ধর্মের ব্যাপারে তার এ ধরনের উদ্যোগ লক্ষিত হয়নি।আসলে শেখ মুজিব ৪৭ এর প্রবঞ্চনাকারি দ্বিজাতি তত্ত্বেরই ধ্বজাধারী। জিয়া সংবিধানে বিসমিল্লাহ বসায় পঞ্চম সংশোধনীতে। এরশাদ ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম বানায়। খালেদা জিয়া জামায়াতকে নিয়া জোট বানায়। হাসিনা জামায়াতের সাথে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আন্দোলন করে, ইসলামি শাসনতন্ত্র আন্দোলনের সাথে ব্লাসফেমি আইনের চুক্তি করে।
এই ৪২ বছরে যে সাম্প্রদায়িকতার বীজ বপন করে চারা বানিয়েছে এই শাসকশ্রেণী, তাতে করে এদের শিকড় উপড়ে ফেলা ছাড়া দ্বিতীয় কোন রাস্তা নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *