বিউটিফুল বান্দরবন

যে বান্দরবন দেখে নি, সে বাংলাদেশটাই দেখে নি।

যতবার বান্দরবন যাই, ততবার কথাটা হৃদয় দিয়ে উপলব্ধি করি। দেশের বাইরে যাওয়ার সুযোগ পাই না। তারেক অণু ভাইয়ের মত পরিব্রাজক হওয়ার ইচ্ছে থাকলেও সুযোগ তো আর নেই। অতএব বান্দরবন দেখেই সাধ মেটাই। আমি বিদেশ হয়ত ঘুরতে পারি নি। আফসোস নেই, আমি বান্দরবনে ঘুরেছি। সমুদ্র থেকেও পাহাড় আমাকে বেশি টানে। তাই পাহাড়ের কিছু সৌন্দর্য না হয় আপনাদের সাথে শেয়ার করি।


যে বান্দরবন দেখে নি, সে বাংলাদেশটাই দেখে নি।

যতবার বান্দরবন যাই, ততবার কথাটা হৃদয় দিয়ে উপলব্ধি করি। দেশের বাইরে যাওয়ার সুযোগ পাই না। তারেক অণু ভাইয়ের মত পরিব্রাজক হওয়ার ইচ্ছে থাকলেও সুযোগ তো আর নেই। অতএব বান্দরবন দেখেই সাধ মেটাই। আমি বিদেশ হয়ত ঘুরতে পারি নি। আফসোস নেই, আমি বান্দরবনে ঘুরেছি। সমুদ্র থেকেও পাহাড় আমাকে বেশি টানে। তাই পাহাড়ের কিছু সৌন্দর্য না হয় আপনাদের সাথে শেয়ার করি।


চকরিয়া থানা থেকে লামা এবং আলীকদম থানায় যাওয়ার রাস্তা।


মেঘের আড়ালে আলিকদম শহর।


পাহাড়গুলোর ঘুম ভাঙবে কখন?


আলীকদমের টিপরা বসতি। এইরকম একটা বাড়ির মালিক হতে পারলে মন্দ হত না।


থানচিতে অবস্থিত ২৫০০ ফুট উঁচু রহস্যময় ডিম পাহাড়।


রাস্তাটা মনে হচ্ছে যেন পাহাড়ের ভিতর ঢুঁকে গেছে।


মিরিঞ্জা পর্যটন কমপ্লেক্স, লামা।


এই মেঘ, রৌদ্রছায়া।


বাচ্চারা সবসময়ই সুন্দর।


পাহাড়ের উপর থেকে দেখা থানচি শহর।


টিপরা পল্লী।


বাংলাদেশের উচ্চতম রাস্তা (২৫০০ ফুট), থানচি-আলীকদম আঞ্চলিক সড়ক।


মিরিঞ্জা পর্যটন কমপ্লেক্স, লামা।


মেঘের আড়ালে তাজিনডং।

আজ এই পর্যন্তই। পরবর্তীতে আরও ছবি শেয়ার করবার ইচ্ছে রাখছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *