প্রসংগ শাহবাগ (৩)- রসায়ন পরীক্ষা..নকল..অতঃপর পরীক্ষায় অকৃতকার্য্য

যাইহোক না কেন, এরপরও শাহবাগ আন্দোলনের সাথে সাধারন মানুষের সম্পৃক্ততা আমাকে আশাহত করেনি। বরং অন্ধকারের মধ্যে ডুবে থেকে দূরের আলোর বাতিটাকে অনেক উজ্জ্বল মনে হচ্ছিল। মনে হচ্ছিল এই বার বুঝি আমরা কিছু পরিবর্তন দেখতে পাব। আসলে স্বৈরাচারী এরশাদ সরকারের পতনের পর সাধারন মানুষ কিন্তু কখনো রাজপথে আসেনি। আমরা সবাই অপেক্ষা করেছি ৫টি বছর। আমাদের হাতে যে ক্ষমতা টি ছিল তা কিন্তু আমরা ঠিকই ৫ বছর পর পর প্রয়োগ করেছি। আর এজন্যই কোন সরকারই পর পর দুই টার্ম ক্ষমতায় আসতে পারেনি। শুধু তাই না, চরম ভাবে কমে এসেছে পূর্ববর্তী সরকার এবং তৎকালীন বিরোধী দলের মহান সংসদে আসন সংক্ষ্যা।

যাইহোক না কেন, এরপরও শাহবাগ আন্দোলনের সাথে সাধারন মানুষের সম্পৃক্ততা আমাকে আশাহত করেনি। বরং অন্ধকারের মধ্যে ডুবে থেকে দূরের আলোর বাতিটাকে অনেক উজ্জ্বল মনে হচ্ছিল। মনে হচ্ছিল এই বার বুঝি আমরা কিছু পরিবর্তন দেখতে পাব। আসলে স্বৈরাচারী এরশাদ সরকারের পতনের পর সাধারন মানুষ কিন্তু কখনো রাজপথে আসেনি। আমরা সবাই অপেক্ষা করেছি ৫টি বছর। আমাদের হাতে যে ক্ষমতা টি ছিল তা কিন্তু আমরা ঠিকই ৫ বছর পর পর প্রয়োগ করেছি। আর এজন্যই কোন সরকারই পর পর দুই টার্ম ক্ষমতায় আসতে পারেনি। শুধু তাই না, চরম ভাবে কমে এসেছে পূর্ববর্তী সরকার এবং তৎকালীন বিরোধী দলের মহান সংসদে আসন সংক্ষ্যা।
যাইহোক, শাহবাগ নিয়ে কথা বলছিলাম। এই জাগরন থেকে আমার প্রত্যাশা ছিল আমাদের রাজনীতি তে আমূল পরিবর্তন হবে। কারন ১৯৯১ সালের পর থেকে কোন সরকারই প্রকৃতপক্ষে গনজাগরন দেখেনি। প্রতিটি রাজনৈতিক দল কর্মী নির্ভর হয়ে গেছে। জনগন নির্ভর নয়।
কিন্তু এতো বড় একটি আন্দোলনের মঞ্চে যখন ছাত্রলীগ সামনে চলে আসল, তখন থেকেই কিন্তু আমার সন্দেহ হচ্ছিল এটার সাফল্য নিয়ে। তারপর হঠাত এলো সেই মহেন্দ্র ক্ষন। ফেসবুকে দেখি শাহবাগ ক্ষ্যাত অগ্নিকন্যা আহত, হাসপাতালে ভর্তি। নিউজটি হয়ত মিস হয়ে গেছে এই ভেবে ফেসবুকের ভিডিও টি দেখলাম। ভিডিওটিতে লাকীর বন্ধুরা সরাসরি ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক এর দিকে আঙ্গুল তুলছে।

আমি মনে মনে ভাবি, হায়রে আন্দোলন। কিন্তু একটা ব্যাপার লক্ষ্য করলাম, একমাত্র একুশে টিভি ব্যতিত অন্য কোন নিউজ চ্যানেলে খবর টি আসেনি। ব্যাপারটা কি? খবরটি এরকম ভাবে ব্ল্যাক আউট করা হোল কেন? পরে জানতে পারলাম সরাসরি প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশে ব্যাপারটি যেন প্রকাশ না পায়, সেই ব্যাবস্থা করা হয়েছে।
তখনি বুঝতে পারলাম, রসায়ন পরীক্ষায় যে প্রশ্ন এসেছিল, ছাত্রলীগ নকল সাপ্লাইয়ারের ভূমিকায় অবতীর্ণ হলেও ঐ সব প্রশ্নের সঠিক উত্তর তাদের কাছে ছিল না। যার ফলে তারা প্রশ্ন না বুঝেই ভুল ভাল উত্তর সরবরাহ করেছে। ফলশ্রুতিতে, রসায়ন পরীক্ষায় ডাব্বা

২ thoughts on “প্রসংগ শাহবাগ (৩)- রসায়ন পরীক্ষা..নকল..অতঃপর পরীক্ষায় অকৃতকার্য্য

  1. আজ থেকে প্রায় ২৫ দিন আগে আমার
    আজ থেকে প্রায় ২৫ দিন আগে আমার এক ব্লগে লিখেছিলাম যদি কোনভাবে এই আন্দোলনকে নাস্তিক বিরোধী কিংবা ধর্মীয় দিকে ডাইভার্ট করানো যায় তবে সেই আন্দোলন আমাদের সরকারের কিংবা বিরোধী দলের কিংবা এই দুই দল একত্রিত হয়েও সামাল দেবার ক্ষমতা রাখেনা। এও বলেছিলাম ক্ষমতা পিপাসুদের সাথে আতাত করে কোন আন্দোলন সফল করা যাবেনা। হোক সে সরকারী দল কিংবা বিরোধী দল। যতক্ষন পর্যন্ত শাহবাগ সরকার দলীয়দের ডিমান্ড ফুলফিল করে গেছে ততদিন শাহবাগ ছিল জাতীয় চেতনা! আর এখন এই জাতীয় চেতনার পূর্ণজন্ম দেবায় যারা ভূমিকা পালন করেছে তাদেরকে একে একে অনিশ্চয়তার দিকে ঠেলে দিচ্ছি। এজন্যই বলেছিলাম নেতৃত্ব খুব জরুরী ভাই। বাস্তবতা বুঝে কর্মসূচী দেয়া খুব জরুরী বন্ধু।! বাংলা ইংরেজী সিলেবাস মেনে পরীক্ষা দেবার সময় এটা নয় এটা ছিল জাতীয় ক্রাইসিস ভাই! ভাই গালি শুনেছি, অনেক উপাধী পেয়েছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *