হায় কি সময় !

কেমন যেন অস্থির একটা সময় পার হচ্ছে । চারপাশে মানুষের চামড়ায় সব পশুরা ঘুরে বেড়াচ্ছে । আপনি পশু , আমি পশু …সবাইই পশু ।

কেউ যেন কাউকে সহ্য করতি পারছি না । একটুও সহ্য হয় না কাউকে । সবাই চাইছি প্রত্যেকেই আমার মত চিন্তা করুক । এমন তো সম্ভব নয় । সব মানুষ স্বকিয় । কেউ কারো মত নয় । প্রত্যেকের আলাদা ভাবনা , দর্শন , প্রকাশভঙ্গি আছে । সেটাই স্বাভাবিক । কিন্তু কেন যেন আমরা সেটা মানতে পারি না । এটাও খুব অস্বাভাবিক না । অস্বাভাবিক এবং ভয়ের বযপার হল অপরপক্ষকে আমরা একটুও ছাড় দিতে রাজি নই , বরং তাকে দমন , হত্যা করায় আমাদের মানসিক চিন্তায় এসে গেছে । বিশেষ করে আমাদের ক্ষমতা যেখানে বিদ্যমান ।


কেমন যেন অস্থির একটা সময় পার হচ্ছে । চারপাশে মানুষের চামড়ায় সব পশুরা ঘুরে বেড়াচ্ছে । আপনি পশু , আমি পশু …সবাইই পশু ।

কেউ যেন কাউকে সহ্য করতি পারছি না । একটুও সহ্য হয় না কাউকে । সবাই চাইছি প্রত্যেকেই আমার মত চিন্তা করুক । এমন তো সম্ভব নয় । সব মানুষ স্বকিয় । কেউ কারো মত নয় । প্রত্যেকের আলাদা ভাবনা , দর্শন , প্রকাশভঙ্গি আছে । সেটাই স্বাভাবিক । কিন্তু কেন যেন আমরা সেটা মানতে পারি না । এটাও খুব অস্বাভাবিক না । অস্বাভাবিক এবং ভয়ের বযপার হল অপরপক্ষকে আমরা একটুও ছাড় দিতে রাজি নই , বরং তাকে দমন , হত্যা করায় আমাদের মানসিক চিন্তায় এসে গেছে । বিশেষ করে আমাদের ক্ষমতা যেখানে বিদ্যমান ।

আমাদের দেশের দিকে তাকান । মুসলিমরা আমরা হিন্দুদের মারছি । ঘর ছাড়া করছি । নিজেদের অসাম্প্রদায়িক দাবি করছি কিন্তু এর বিরুদ্ধে ঠিক সময়ে আমরা কিছুই করতে পারি নি ।হামলা শেষে মায়া কান্না দেখাতে সেই এলাকাগুলোতে পিকনিক করে এসেছি । আর রুপন করে এসেছি অবিশ্বাসের বীজ ।

কিছু মানুষ , খুব অল্পসংখ্যক যারা ধর্মে বিশ্বাস করে না বা পালন করে না তাদেরও আমরা সহ্য করতে পারছি না । তারা কিছু লিখছেন তাও আমাদের বন্ধ করতে হবে । তাদের ফাঁসি দেয়া চাইআমাদের । বড় বড় খুনি অপরাধী আড়াল পরে যাক ।

অন্য দেশের দিকে তাকান , সেখানেও একই অবস্থা । যারা সংখ্যায় বেশী , ক্ষমতাবান তারাই দুর্বলের উপর চড়াও হচ্ছেন , সামান্য শ্রদ্ধাবোধ যেন কারো প্রতি কেউ দেখাতে রাজি নয় । আমরা দিনে দিনে কেন গোড়া হয়ে যাচ্ছি ? কেন এত অসহিষ্ণু ? এত সহিংস ? পৃথিবীর ধ্বংস কি খুব নিকটে ?

কোথায় যেন ভুল হয়ে গেছে । বিশাল ভুল । কেউ কাউকে বিশ্বাস করে না । ধবংস , বিরাট ক্ষয়ক্ষতি যেন অনিবার্য । সবাই যেন নিজের মতকে শ্রেষ্ঠত্ব দিতে ব্যস্ত , জোর করে হলেও ।
ধর্মিয় অনুভূতি ব্যপারটা দিনে দিনে হাস্যকর প্রলাপে পরিণত হচ্ছে । আবার বেশীরভাগ মানুষকে এটা দিয়েই ভুল পথে চালিত করা হচ্ছে ।অন্ধ মানুষ যেন কিছুই দেখে না , বুঝে না । অথবা বুঝেও চুপ থাকে কেননা অন্যরাও চুপ । নিজথেকে এগিয়ে আসার কেউ যেন নেই । কেউ এগিয়ে এলেই তাকে টেনে হেঁচে নিচে নামিয়ে আনার প্রচেষ্টা সর্বত্র । সচেতনরা অসংগঠিত , পরষ্পর বিচ্ছিন্ন – বিভক্ত । ঘোর অমানিশা যেন ঘিরে ধরেছে মানবজাতিকে । এই অন্ধকার যেন দূর হবার নয় । একটু আলো হয়তো আছে । কিন্তু কেউছুঁতে চাইছে না । ভয়ে । যদি দপ করে তাও নিঁভে যায় ! 🙁

২ thoughts on “হায় কি সময় !

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *