শাবাস বাংলাদেশ

জনগণের দাবী এখন দেরীতে হলেও সরকারের কানে পৌছেছে।ভাবতে ভালো লাগছে শহীদ রুমি স্কোয়াডের সদস্যদের আন্দোলন আংশিক হলেও সফল।এখন শুধু অপেক্ষার।

সরকার যদি জামায়াত নিষিদ্ধ শেষ পর্যন্ত না করে তবে মন্ত্রিত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী ও মুক্তিযুদ্ধের উপ প্রধান সেনাপতি একে খন্দকার।
সোমবার রাত ৯টার দিকে জামায়াত-শিবির নিষিদ্ধ ঘোষণার দাবিতে শাহবাগে শহীদ রুমী স্কোয়াডের চলা অনশনে দেওয়া বক্তৃতায় তিনি এ ঘোষণা দেন।


জনগণের দাবী এখন দেরীতে হলেও সরকারের কানে পৌছেছে।ভাবতে ভালো লাগছে শহীদ রুমি স্কোয়াডের সদস্যদের আন্দোলন আংশিক হলেও সফল।এখন শুধু অপেক্ষার।

সরকার যদি জামায়াত নিষিদ্ধ শেষ পর্যন্ত না করে তবে মন্ত্রিত্ব ছাড়ার ঘোষণা দিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী ও মুক্তিযুদ্ধের উপ প্রধান সেনাপতি একে খন্দকার।
সোমবার রাত ৯টার দিকে জামায়াত-শিবির নিষিদ্ধ ঘোষণার দাবিতে শাহবাগে শহীদ রুমী স্কোয়াডের চলা অনশনে দেওয়া বক্তৃতায় তিনি এ ঘোষণা দেন।

তিনি বলেন, জামায়াত শিবির নিষিদ্ধে আমরা আন্দোলন করেছি। সে আন্দোলন করতে গিয়ে আমাদের অনেক নির্যাতনের শিকার হতে হয়েছে।সামনে আরও কঠিন দিন আসছে। তোমাদের শারীরিক সামথ্য্য নিয়ে আমাদের সন্দেহ নেই। তোমাদের মানসিক দৃঢতা এবং শক্তিকে আমরা শ্রদ্ধা জানাই। তোমাদের আরও তীব্র আন্দোলনের জন্য প্রস্তুত হতে হবে।

অনশনকারীরা জামায়াত নিষিদ্ধে সরকারের অবস্থান জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি এখানে সরকারের মন্ত্রী হিসেবে আসিনি। বর্তমান সরকার জামায়াত নিষিদ্ধে আইনি প্রক্রিয়ায় চেষ্টা চালাচ্ছে। আমি তোমাদের কথা দিচ্ছি, যদি জামায়াত নিষিদ্ধ না হয় তবে মন্ত্রিত্ব ছেড়ে তোমাদের সাথে যোগ দেবো।

এসময় রুমী স্কোয়াডের আহবায়ক সাদত হাসান নিলয় অনশন ৪ এপ্রিল পর্যন্ত স্থগিতে ঘোষণা দিলেও অন্যরা তা না মেনে অনশন চলবে বলে ঘোষণা দেয়।তাদের বক্তব্য মন্ত্রীর ঘোষণায় জামায়াত নিষিদ্ধে স্পষ্ট কিছু নেই।

সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে তিনি রুমী স্কোয়াডে আসেন এবং অনশনকারীদের সঙ্গে কথা বলেন।

এর আগে অনশনস্থলে কথা বক্তব্য রাখেন ঘাতক দালাল নির্মুল কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শাহরিয়ার কবীর।

প্রিয় সহযোদ্ধারা,

৮৪ জনের তালিকা আমাদের দমিয়ে রাখতে পারবে নাহ।৮৪ জন থেকে আমরা ৮৪ লাখে পৌছাবো।আমাদের দাবায়ে রাখতে পারবে নাহ। আমরা জেলে গেলেও আমরা রাজ বন্দী।আমাদের দাবীতে আমরা খাতা কলম কিংবা দৈনিক গুলো জেলে বসে পাবো।সুতরাং,আমাদের আন্দোলন ও স্তিমিত হবে নাহ।যাই হোক সেটা হবে পরের প্ল্যান।আমাদের প্রশাসন ও তাদের বিপক্ষে যাচ্ছে।যার প্রমান পুলিশ ভাইয়েরা।এখন শুধু আমাদের মাঠে থেকে নিয়ে আসতে হবে বিজয়।এই লড়াই আমাদের নিজেদের।অধিকার আদায় ও আমাদের সবার।একসাথে নরকের দুয়ারে দেখা হবে।

জয় বাংলা…………

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *