মুক্তমনা হত্যা ও তার ফলাফল

মুক্তমনাদের ১০০% ই শিক্ষিত এবং জ্ঞান বিজ্ঞান চর্চা করেই তারা মুক্তমনা হয়েছে। একজন মুক্তমনা হওয়া খুব সহজ না। প্রচুর বই পড়ে, জ্ঞানের পিছনে ছুটে সত্যটাকে যারা খুঁজে বের করতে পারে তারাই মুক্তমনা হতে পেরেছে, এ জন্য দরকার অনেক বছরের সাধনা। কাউকে যেমন হঠাৎ করেই মুক্তমনা বানানো যায় না তেমনি কোনো মুক্তমনাকে কখনই কুসংস্কার, মিথ্যা দ্বারা প্রভাবিত করা যায় না। একেকজন মুক্তমনা দেশের একেকটা রত্ন, সম্পদ। এদেরকে রক্ষা করা, নিরাপত্তা দেয়া সরকারের ই দায়িত্ব।


মুক্তমনাদের ১০০% ই শিক্ষিত এবং জ্ঞান বিজ্ঞান চর্চা করেই তারা মুক্তমনা হয়েছে। একজন মুক্তমনা হওয়া খুব সহজ না। প্রচুর বই পড়ে, জ্ঞানের পিছনে ছুটে সত্যটাকে যারা খুঁজে বের করতে পারে তারাই মুক্তমনা হতে পেরেছে, এ জন্য দরকার অনেক বছরের সাধনা। কাউকে যেমন হঠাৎ করেই মুক্তমনা বানানো যায় না তেমনি কোনো মুক্তমনাকে কখনই কুসংস্কার, মিথ্যা দ্বারা প্রভাবিত করা যায় না। একেকজন মুক্তমনা দেশের একেকটা রত্ন, সম্পদ। এদেরকে রক্ষা করা, নিরাপত্তা দেয়া সরকারের ই দায়িত্ব।

অন্য দিকে ধর্মান্ধরা কুপের মধ্যে জন্মে কুপেই মারা যায়। তাদেরকে জ্ঞান অর্জন করতে হয় না, তারা আলোর পথে হাটতে চায় না, কুপের অন্ধকারকেই তারা শ্রেয় মনে করে। কেউ তাদেরকে আলোর পথ দেখালেও তারা ক্ষিপ্ত হয়, রক্তপাতের মাধ্যমে অন্ধকারকে আরো গভীর করে। আলো হাতে যখন একেকজন মুক্তমনা দেশের মানুষকে এই অন্ধকার থেকে বের করতে এগিয়ে আসে, জ্ঞান চর্চাক্ষেত্রে পরিনত করতে চায় সমগ্র দেশকে তখন এসব আধারের প্রানীরা তাঁদের রক্তের জন্য পাগল হয়ে যায়। জিহাদের নামে মুক্তবুদ্ধিকে তারা ধূলিসাৎ করতে চায়।

কিন্তু তারা যেটা জানে না সেটা হলো তলোয়ারের শক্তি কখনই কলমের চেয়ে বেশি ছিলো না। ইতিহাস থেকে বুঝা যায় এসব ধর্মান্ধদের বারবার দুর্গন্ধময় ডাস্টবিনে ছুরে ফেলা হয়েছে। এখন হয়ত তারা সাময়িক ভাবে কিছু মুক্তমনা হত্যা করে আনন্দিত হচ্ছে কিন্তু এটাই তাদের ধ্বংস ডেকে আনছে তা তারা বুঝতেও পারছে না। পাকিস্তানেও এরকম একজন দুজন মুক্তমনা, নাস্তিক, মানবাধিকার কর্মী হত্যা থেকে শুরু হয়েছিলো। আজকে সেই পাকিস্তানে হাজার হাজার মানুষ মারা হচ্ছে ধর্মের নামে।

পাকিস্তানে যেসব অন্ধরা মুক্তমনা, নাস্তিক কিংবা বিজ্ঞানলেখকদের হত্যা দেখে প্রতিবাদ করে নি, উল্টো মনে মনে খুশি হয়েছিলো তারাই আজকে পাখির মত মরছে। বাঙলাদেশে আজকে একজন দুজন করে মুক্তমনা হত্যা হচ্ছে অথচ কেউ প্রতিবাদ করছে না, সরকার চুপ করে বসে আছে, সবাই যেনো মুক্তমনা হত্যায় সমর্থন দিচ্ছে ; এই তারাই এক সময় রাস্তায় পরে মরে থাকবে।

মুক্তমনাদের হত্যা করে জাতিকে জ্ঞানশূন্য করা হচ্ছে। আর জ্ঞানশূন্য জাতি কখনই ভালো থাকতে পারে না। এর প্রমান পাকিস্তান, আফগানিস্তান, ইরাক, মিশর, লিবিয়া, মরোক্কো, ইয়েমেন, সুদানের মত দেশের দিকে তাকালে বুঝা যায়। ধর্মান্ধতা, মৌলবাদ তাদেরকে কোথায় নিয়ে গেছে সেটা আজ ও বাঙালি উপলব্ধি করতে পারছে না। অন্যদিকে মুক্তচিন্তার চর্চা করে পৃথিবীর উন্নত দেশগুলো আজ পৃথিবী শাসন করছে। আমরা কি দেখেও বুঝি না কোনটা খারাপ আর কোনটা ভালো?

১ thought on “মুক্তমনা হত্যা ও তার ফলাফল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *