ধর্মান্ধতার কাছে বাংলাদেশের হার

ইংল্যান্ডকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করল বাংলাদেশ ক্রিকেট টীম। দুর্দান্ত খেলেছে ওরা। জয়ের আনন্দে পুরোদেশ কাঁপছে। কিন্তু বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রটি যে অনেক আগেই ধর্মান্ধতার কাছে বিশাল ব্যাবধানে হেরে গেছে সে খবর কেউ রাখেনি।


ইংল্যান্ডকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করল বাংলাদেশ ক্রিকেট টীম। দুর্দান্ত খেলেছে ওরা। জয়ের আনন্দে পুরোদেশ কাঁপছে। কিন্তু বাংলাদেশ নামক রাষ্ট্রটি যে অনেক আগেই ধর্মান্ধতার কাছে বিশাল ব্যাবধানে হেরে গেছে সে খবর কেউ রাখেনি।

ধর্মান্ধতার কাছে হেরে যাওয়ার ফল আমরা ভোগ করতে শুরু করেছি। হুমায়ুন আজাদ, রাজীব হায়দার, অভিজিৎ রায়কে হারিয়েছি। আমি বিচার চাইনি। কারণ, ধর্মান্ধতার কাছে পরাজিত রাষ্ট্রের কাছে বিচার চাওয়ার চেয়ে আরও কয়েকজনকে হুমকী দেয়া অনেক সহজ। অভিজিৎ এর মৃত্যুর পর আমরা বলেছিলাম আরও লক্ষ লক্ষ অভিজিৎ এর জন্ম হবে। ধর্মান্ধতার কাছে পরাজিত রাষ্ট্র সেই সব অভিজিৎদের থামাতে ৫০০ ধর্মান্ধতার ফ্যাক্টরী নির্মানের ঘোষণা দিয়েছ। যেখান থেকে জন্ম নিবে অভিজিৎ এর নতুন নতুন হত্যাকারী।

এই রাষ্ট্র পরিচালিত হচ্ছে ধর্মান্ধদের কথায়। এখানে ধর্মান্ধ শিরোমণিকে পুরস্কার হিসেবে জমি দেয়া হয়। এই রাষ্ট্র বিজ্ঞান চর্চার পরিবর্তে ধর্মান্ধতার চর্চায় পৃষ্ঠপোষকতা করে। এই রাষ্ট্রে কোন নতুন লাইব্রেরী হয় না। যদি কখনো হয় তবে সেই লাইব্রেরীতে স্থান পাবে ধর্মান্ধ হিসেবে গড়ে উঠার প্রয়োজনীয় বই, অপবিজ্ঞানের বই, কুসংস্কারের বই। যেন এই রাষ্ট্র ধর্মান্ধতায় আরও ডুবে যেতে পারে।

ধর্মান্ধতার কাছে পরাজিত এই রাষ্ট্রে বিজ্ঞানের কোন বই প্রকাশিত হতে পারবে না, প্রকাশিত হতে পারবে না ধর্ম নিয়ে লিখা কোন সত্যনিষ্ঠ বই। ধর্মান্ধরা একইসাথে তাদের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ পাঠ করবে এবং রসময় গুপ্তের চটি পড়বে। বিকৃত যৌনতার চর্চার জন্য সাহায্য করবে এই রাষ্ট্র। রসময় গুপ্তের চটি পড়ে আর সারারাত সানি লিউন দেখে এরা উপাসনালয়ে যাবে। উপাসনালয় থেকে বের হয় কোন মেয়ের বুকে ওড়না নেই, কোন মেয়ে টাইলস পড়েছে সেটা খুঁজে বেড়াবে।

এই রাষ্ট্রের নারীরা বিশ্বাস করে পুরুষদের ভোগের জন্যই তারা। রেপ কিংবা ইভটিজিং এর কারণ হিসেবে নিজেদের পোশাককেই দায়ী করতে শিখাচ্ছে এই রাষ্ট্র। এই রাষ্ট্র পুরুষদের শিখাচ্ছে নারী মাত্রই ইভটিজিং কিংবা রেপ করতে হবে। পুরুষরা একইসাথে নারীদের বস্তায় আবৃত এবং নগ্ন অবস্থায় দেখার চেষ্টা করে যাচ্ছে।

ধর্মান্ধতার কাছে পরাজিত এই রাষ্ট্রে আপনাকে বলতে হবে, পৃথিবী সমতল, স্থির, সৌরজগতের কেন্দ্র এবং সুর্য সহ সব গ্রহ পৃথিবীকে কেন্দ্র করে ঘুরছে।

২ thoughts on “ধর্মান্ধতার কাছে বাংলাদেশের হার

Leave a Reply to ইকারাস Cancel reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *