তাহলে ২০১৬ সাল পর্যন্ত হচ্ছে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা

মেডিকেলের ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে এ পর্যন্ত কম জল ঘোলা হয়নি।কেউ বলেছে হবে কেউ বলেছে হবে না।

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা না হলে বেশিরভাগ ছাত্র-ছাত্রীদের উপকার থেকে অপকারটাই বেশি হত।
অনেক ছাত্র-ছাত্রী শুধুমাত্র মেডিকেলে পড়ার আশায় একবছর গ্যাপ দিয়েছে।যদি ভর্তি পরীক্ষা না হত তাহলে এদের ভবিষ্যত্‍ হয়ে যেত অন্ধকার।অনেক ছাত্র-ছাত্রীর মেডিকেল পড়ার হৃদয়ে লালিত স্বপ্ন হয়ে যেত বিলীন।

আবার ভর্তি পরীক্ষা হওয়া মানে আবার জমে ওঠা কোচিং এর রমরমা ব্যাবসা।হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রীদের পরিবারের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয়া হবে লক্ষ লক্ষ টাকা।কোচিংয়ের নামে শুরু হবে জামাত শিবিরের কর্মী সংগ্রহের কাজ।


মেডিকেলের ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে এ পর্যন্ত কম জল ঘোলা হয়নি।কেউ বলেছে হবে কেউ বলেছে হবে না।

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা না হলে বেশিরভাগ ছাত্র-ছাত্রীদের উপকার থেকে অপকারটাই বেশি হত।
অনেক ছাত্র-ছাত্রী শুধুমাত্র মেডিকেলে পড়ার আশায় একবছর গ্যাপ দিয়েছে।যদি ভর্তি পরীক্ষা না হত তাহলে এদের ভবিষ্যত্‍ হয়ে যেত অন্ধকার।অনেক ছাত্র-ছাত্রীর মেডিকেল পড়ার হৃদয়ে লালিত স্বপ্ন হয়ে যেত বিলীন।

আবার ভর্তি পরীক্ষা হওয়া মানে আবার জমে ওঠা কোচিং এর রমরমা ব্যাবসা।হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রীদের পরিবারের কাছ থেকে হাতিয়ে নেয়া হবে লক্ষ লক্ষ টাকা।কোচিংয়ের নামে শুরু হবে জামাত শিবিরের কর্মী সংগ্রহের কাজ।

মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার পক্ষে আন্দলোনরত কিছু ছাত্র-ছাত্রীদের একটি পেজ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে ২০১৬ সাল পর্যন্ত মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা হওয়ার একটি সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে স্বাস্থ্যমন্ত্রনালয়ের বৈঠকে।
ঔ পেজের পোষ্টটা ছিল এরকমঃ

আজকে মেডিকেল
ভর্তি পরীক্ষা নিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ে বৈঠক
অনুষ্ঠিত হয়েছিল । সে বৈঠকে সব
মেডিকেল কলেজের প্রিন্সিপালরাও
উপস্থিত ছিলেন । আর সবচেয়ে আনন্দের
ব্যাপার হলো , ঐ বৈঠকে এবছরতো বটেই ,
আগামী ২০১৬ সাল পর্যন্ত
ভর্তি পরীক্ষার আগের নিয়ম বহাল রাখার
সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে । আগামী ২০১৬
সালের পর আবার
মিটিং ডেকে ভর্তি পরীক্ষার
পদ্ধতি কি হবে সেটা নির্ধারণ
করা হবে ।
আমাদের এতদিনের হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম ,
অসহায় অপেক্ষা এবং উত্কণ্ঠার আজ
থেকে অবশান হলো । এটাই ফাইনাল নিউজ ।
যারা সর্বদা আমাদের সাথে ছিলেন
তাদেরকে ধন্যবাদ ।
আর এই খবরের উত্স হচ্ছে রাজশাহী ,
খুলনা , পাবনা , চট্টগ্রাম মেডিকেলের
অধ্যক্ষরা । তাদের দ্বারাই
এটা জানা গেছে । অতিদ্রুত এই
ব্যাপারে পেপারে নিউজ আসবে ।

৭ thoughts on “তাহলে ২০১৬ সাল পর্যন্ত হচ্ছে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা

  1. অনেক খুশি হলাম। আমি নিজেও গত
    অনেক খুশি হলাম। আমি নিজেও গত বছর মেডিকেলের জন্য প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। চান্স না পাওয়ায় এক বছর গ্যাপ দিলাম। যাক বাচা গেল।

    1. ভাল মানে কি?আচ্ছা আতিক ভাই
      ভাল মানে কি?আচ্ছা আতিক ভাই মেডিকেলের প্রচলিত পরীক্ষা পদ্ধতি নিয়ে আপনার মতামতটা বলেন তো।দেখি আমার সাথে মিলে কি না?

  2. বর্তমানে মেডিকেল শিক্ষা
    বর্তমানে মেডিকেল শিক্ষা ব্যবস্থায় যে নিয়ম অনুসরণ করে ভর্তি হয় সেটা কি আদৌ ন্যয় সঙ্গত? এই পদ্ধতিটি কি আধুনিক? বিশ্বমানের?

    সবাই যেভাবে উল্লাস প্রকাশ করছে, তাতে মনে হচ্ছে যেমনে-সেমনে ভর্তি হয়ে ডাক্তার হতে পারলেই হল। আজব আমাদের ভাবনা। সর্বোচ্চ দুই বছর সময় দিয়ে সরকার ঘোষিত পুর্বের পদ্ধতিতে মেডিকেলে ভর্তি পদ্ধতি নির্ধারণ করা উচিত ছিল। মান্ধাতার আমলের শিক্ষা পদ্ধতি থেকে আমরা বের হয়ে আসতে না পারলে যুগের সাথে তাল মিলাতে ব্যর্থ হব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *