এই পৃথিবীতে বাচবোঁ বলে যুদ্ধ করি রোজ, একটুখানি বাচাঁর জন্য হাজার আপোষ।

এই পৃথিবীতে বাচবোঁ বলে যুদ্ধ করি রোজ
একটুখানি বাচাঁর জন্য হাজার আপোষ।

এই পৃথিবীতে বাচবোঁ বলে যুদ্ধ করি রোজ
একটুখানি বাচাঁর জন্য হাজার আপোষ।
আপনাদের দুজনের জন্য কোন সম্বোধন খুজে পাচ্ছি না, আপনারা দুই জনই অসুস্থ, অতিসত্বর আপনাদের চিকিৎসা লাগবে। প্রতিটি পেশায় নির্দিষ্ট সময়ে অবসর গ্রহণ করা উচিত। না হলে পাগলামি তে পেয়ে বসে। কেউ কেউ বদ্ধ উন্মাদও হয়ে যায়। আপনারা দুইজন ও আপনাদের আশেপাশে থাকা মানুষ গুলিসহ উন্মাদ হয়ে গেছেন। উন্মাদের কোন বোধ থাকে না, আপনাদেরও নাই। দয়া করে প্রধানমন্ত্রীর পোস্ট থেকে অবসর গ্রহণ করুন, আরেক জন পাটির শীর্ষপদ ছাড়ুন। আপনাদের এখন আল্লাহর নাম নেয়া ও রবীন্দ্র সঙ্গীত শোনার বয়স, দেশ চালান মোটেও না। আপনারা উন্মাদ আর লোভী বলেই মহা দেখছেন মানুষ পুড়ছে, একটা মানুষের সাথে পুড়ে শেষ হচ্ছে এক একটা পরিবার। আপনাদের মত উন্মাদরা যতদিন ধরে ক্ষমতায় থাকবে ততদিন এই দেশে শান্তি আসবে না। আমরা প্রতিনিয়ত আপোষ করে চলেছি আপনাদের সীমাহীন লোভের কাছে। প্রতিদিন ভাবি কাল নিশ্চয় বোধোদয় হবে, কাল নিশ্চয় তাদের লোভের ঘড়া পূর্ণ হবে, আর আমরা পাবো হানাহানি হীন, পোড়া হীন, খুনোখুনি হীন ব্র্যান্ড নিউ দিন। আর কত আপনাদের লোভের বলি হব আমরা। সেলুয়েডে কত দেখব জন দরদী মিথ্যার ফুলঝুরি? ভোটের সময় আমজনতার হাত পা ধরে অশ্রু বিসর্জন? আমরা সব কিছু মেনে নিয়ে আপোষ করি একটু ভালো থাকার আশায়, আর সেই আশা কে নিয়ে টেবিল টেনিস খেলেন। খেলেন ফুটবল। আচ্ছা কাছের কাউ কে পুড়ে মরে যেতে দেখেছেন? নাকে সন্তানের শরীরের পোড়া গন্ধ কেমন লাগে শুকে দেখেছেন? স্বামীর পুড়ে কয়লা হতে থাকা শরীর স্থির হয়ে যাবার আগ পর্যন্ত যন্তনায় কিভাবে ছটফট করে? আত্ন চীৎকার শুনেছেন কি? না দেখে বা না শুনে থাকলে দয়া করে একটু হাতের কড়ে আঙ্গুলে এক সেকেন্ড আগুনে ছুয়ে দেখেন, তাহলে যদি একটু ফিল করতে পারেন, দীর্ঘ সময় ধরে পুড়ে যেতে কেমন লাগে? কি বলেন তো এবার আপনাদেরকে রাক্ষস বলা যায় নাকি ক্যানিবাল? নিজেরাই পছন্দ করুন মানানসই নাম। একজন মানুষ খুন করে চলেছেন অন্যজন দূরে বসে মজা লুটছেন। আর পারছি না আপোষ করতে। কারন আজ আমাদের হাতে আমাদেরই পুড়ে অঙ্গার হয়ে যাওয়া বাবা, মা, ভান বোন, সন্তানের লাশ।

২ thoughts on “এই পৃথিবীতে বাচবোঁ বলে যুদ্ধ করি রোজ, একটুখানি বাচাঁর জন্য হাজার আপোষ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *