দেলু চোরার চন্দ্রবিলাস

হিমু অবলম্বনে
হুমায়ূন আহমেদ হিমু ও হিমুভক্তদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি।

শেষ পর্যন্ত ধরা খেয়ে গেলাম। দাড়িতে লাল রঙ মাখিয়ে জজ সাহেবকে বিভ্রান্ত করা গেল না। আমার ফাঁসির হুকুম হয়ে গেল। কাচারিঘরের সমবেত জনতা আমার দিকে প্রবল ঘৃণা নিয়ে তাকিয়ে আছে। আমি পাত্তা দিলাম না। মহাপুরুষদের এইসব পাত্তা দিলে চলেনা। আমি শীষ দিয়ে একটা গানের সুর তোলার চেষ্টা করলাম, “ও হাসিনা দিছস কিনা ঝুলায় আমারে……”

পাকা খবর আছে আমাকে হুট করে একদিন ঝুলিয়ে দেওয়া হবে।
আমার প্রবল ইনটিউশন বলছে তার আগেই আমার শিষ্যরা একটা হুলুস্থুল বাধিয়ে দেবে। মানুষ টানুষ মেরে একেবারে ছ্যাড়াব্যাড়া করে ফেলবে। আমি আমার মাতুল বংশ থেকে তেইশটা ভয়াবহ ক্রোমোজোম নিয়ে এসেছি বলে খুন ধর্ষন এসব আমার কাছে কোন বিষয় না। মহাপুরুষদের এইসব জাগতিক ব্যাপারে মাথা ঘামানো নিষিদ্ধ। আমি উদাস মুখে আমার লাল দাড়িতে হাত বুলাতে লাগলাম।

জেলখানায় তেমন করার কিছু নেই। এখন আমার দিন কাটছে মেশিন পরিচর্যা করে। ফাঁসি কার্যকর হওয়ার আগ পর্যন্ত আমাকে টেলিফোনের সুবিধা দেওয়া হয়েছে। আমি খালেদার নাম্বার ডায়াল করলাম। ফোন ধরলেন ফালু সাহেব।

ফোন ধরেই ফালু সাহেব হম্বিতম্বি শুরু করলেন, কঠিন গলায় বললেন, “কাকে চাই?”
আমি সিরিয়াস ভঙ্গিতে বললাম, “ এটা কি লইট্টা ফিশের আড়ত?”
ফালু সাহেব জড়ানো গলায় গালিগালাজ শুরু করলেন। এই জাতীয় গালি আমার কাছে নতুন কিছু না। আমি মাঝে মাঝেই খালেদার বাসায় ফোন করে লৈট্টা ফিশ বিক্রির চেষ্টা চালাতাম এবং ফলাফল স্বরূপ গালি খেতাম। প্রথম দিকে গালি দিতেন জিয়া সাহেব। উনি কামেল আদমি। তাছাড়া আর্মির মুখে গালি শোনাও বিরাট ভাগ্যের ব্যাপার। সেই তুলনায় ফালু সাহেব চুনোপুঁটি শ্রেণীর।

ফালু সাহেবের গালিগালাজে উর্দু শব্দের প্রাধান্য আছে। আমি আগ্রহ নিয়ে শুনছি। মনে হয় আজ তার মদ্যপান দিবস। তরল অবস্থায় তিনি উর্দুভাষায় গালিগালাজ করেন। এমনিতে তার লিমিট হচ্ছে পাঁচ। আজ মনে হয় লিমিট অতিক্রম করে ফেলেছেন।

আমার বাবা তার বিখ্যাত উপদেশমালায় বলেছেন, “ উর্দু এবং উর্দুই হবে পাকিস্তানের একমাত্র রাষ্ট্রভাষা”
ভাষাগত কারণে আমি ফালু সাহেবের প্রতি গভীর সংহতি বোধ করলাম এবং নিজের অজান্তেই গলা ফাটিয়ে ম্যাৎকার দিলাম, “পাকিস্তান জিন্দাবাদ”

ম্যাৎকারে ফালু সাহেবের কোন ভাবান্তর হলনা। তিনি মহা উৎসাহে গালিগালাজ করে যাচ্ছেন, “শুয়ার কি আওলাদ! উল্লু কা পাঁঠা, লইট্যা ফিশের আড়ত তোর গুহ্যদ্বার দিয়ে ঢুকিয়ে দেব হারামজাদা”

বেশিক্ষন গালি শুনতে হল না, খালেদা এসে ফোন নিয়ে নিল।
– কে? দেলু?
আমি মধুর গলায় বললাম, “কেমন আছ রূপা”
– রূপাটা কে? তোমার নতুন কলিজু?
আমি হাসলাম। আমার সেই বিখ্যাত বিভ্রান্তিকর হাসি। যার মানে হ্যা বা না দুইই হতে পারে।
হাসি দিয়ে খালেদাকে বিভ্রান্ত করা গেলনা। এই হাসি দিয়ে ছাগুদের বিভ্রান্ত করা যায়। সুন্দরীদের যায় না।

খালেদা বিরক্ত গলায় বলল, “শোন দেলু, একসময় তোমার সাড়ে সাত বাই দেড় ব্যাপারটা ভালো লাগত, এখন আর লাগে না। তার পরও তোমাকে দেখার জন্য কেন যে সিঙ্গাপুর থেকে চলে এলাম জানিনা”

আমি আনন্দে খাবি খাচ্ছি এমন একটা ভাব করে বললাম, “মেনি থ্যাংকস রূপা”

খালেদা যন্ত্রের মত বলল, “ সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে তোমাকে বাঁচানোর চেষ্টা করেছি। তবে তাতে কাজ হবে কিনা কে জানে”
রূপার সাথে কথা বলতে বলতে আমি মেশিন চালাচ্ছিলাম।
ক্লান্ত গলায় বললাম, “ রূপা তুমি কি তোমার গোলাপী শাড়ীটা পরে একটু বারান্দায় আসবে”
খালেদা ধরা গলায় বলল, “কেন”
আমি উদাস গলায় বললাম, “আজ চাঁদের মধ্যে আমাকে দেখা যাচ্ছে। তুমি আমাকে দেখার জন্য সিঙ্গাপুর থেকে এসেছ। প্রকৃতি তোমার ইচ্ছা পূরণের ব্যবস্থা করেছে”

খালেদা খটাস করে ফোন রেখে দিল।

পরিশিষ্টঃ আমাকে আসলেই সেদিন চাঁদের মধ্যে দেখা যাচ্ছিল। বারান্দায় এলেই রূপার সাথে আমার দেখা হতো। অর্ধচন্দ্রের অপার্থিব আলোয় আমরা দৃষ্টি বিনিময় করতাম। প্রকৃতি মানুষের কোন ইচ্ছাই অপূর্ণ রাখেনা। আমি আর রূপা কেউই মানুষের পর্যায়ে পড়িনা। আমাদের ইচ্ছা অপুর্নই থাকার কথা। অমানুষদের ইচ্ছা প্রকৃতি কখনও পুর্ন করে না।

৭ thoughts on “দেলু চোরার চন্দ্রবিলাস

    1. ফোন্দাও মিয়া তোমারে গরু খোজা
      ফোন্দাও মিয়া তোমারে গরু খোজা খুঁজতেছি। বেশিদিন ধরে এই খোঁজাখুঁজি চললে তোমাকে গরু ভাবা শুরু করতে পারি। :ক্ষেপছি: :ক্ষেপছি: :ক্ষেপছি: :ক্ষেপছি: :ক্ষেপছি: :ক্ষেপছি:

  1. সরাসরি নাম ব্যবহার না করে
    সরাসরি নাম ব্যবহার না করে অন্যভাবে সম্মোধন করলেই বোধ হয় ভাল হয়……… তাহলে সাপও মরে লাঠিও ভাঙ্গে না…..

  2. খুব ভালো হয়েছে।
    সরাসরিই বলার

    :তালিয়া: :তালিয়া: :তালিয়া:
    খুব ভালো হয়েছে।
    সরাসরিই বলার প্রেকটিস অব্যাহত রাখেন।
    তাহলে নিজের শক্তিমত্তাটাও টের পাওয়া যায়।
    :তালিয়া: :তালিয়া: :তালিয়া:

  3. (No subject)
    :মাথানষ্ট: :মাথানষ্ট: :মাথানষ্ট: :মাথানষ্ট: :মাথানষ্ট: :টাইমশ্যাষ: :টাইমশ্যাষ: :টাইমশ্যাষ: :bow: :bow: :bow: :bow: :bow: :bow: :bow: :bow: :নৃত্য: :নৃত্য: :নৃত্য:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *