রাখীর হাত

অজান্তে কাশবন, হিজল আর পাণ্ডুলিপি
করস্পর্শ বেমানান, তবু রাখীর হাত।
নিস্পাপ নিষ্কলুষ প্রতিযোগী সুইটিরা তাঁকে
ভালবাসা বলে, ড্যাফোডিল ফুল হতে বলেছিল
একবার ডাইরির পৃষ্ঠা জুড়ে।

ব্যাকরন অকারন প্রয়োজন সিন্ধুর মুক্তো
যুক্ত হয়েছিল একবার প্রেম নেবে বলে।
চুপি চুপি একবার কেঁপেছিল তবু রাখীর হাত।
কাকে যেন বলেছিল,”তুমি বেছে আছ?”
প্রতিক্ষিত পথ আরও দূর, দূর আকাশ,
বাতাসের বুকে চিহ্ন রেখে প্রেম,
বিরহের মত ঝড় উঠেছিল একবার।
কাপেনি, কাপেনি তবু রাখীর হাত।

অভিযোগ, অভিমানি প্রিয়ার চোখ
কালো, মিশকালো আকাসে দ্বাদশীর চাঁদ।
ছিটে-ফুটা মেঘ, সাগর আর সমুদ্রকে
যেভাবে উপহাস করে খিলখিলা কিশোরী।
তারমত রঙ মেখে জীবন নদীকে প্রেম সপেছিল,
তারমত হারায় সব, সবকিছু,।
হারায়না শুধু রাখীর হাত।

— পৃথু স্যন্যাল

২ thoughts on “রাখীর হাত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *