নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 9 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • বিজ্ঞানী ইস্বাদ
  • আমি অথবা অন্য কেউ
  • বিজয়
  • সৈয়দ মাহী আহমদ
  • রাজিব আহমেদ
  • কিন্তু
  • নাগিব মাহফুজ খান
  • পৃথু স্যন্যাল
  • ফারজানা সুমনা

নতুন যাত্রী

  • শেষ যাত্রী
  • নীলা দাস
  • উর্বির পৃথিবী
  • গোলাম মাহিন দীপ
  • দ্য কানাবাবু
  • মাসুদ রুমেল
  • জুবায়ের-আল-মাহমুদ
  • আনফরম লরেন্স
  • একটা মানুষ
  • সবুজ শেখ

আপনি এখানে

সমালোচনা

ধর্ষণের উপর মূর্তি চেপেছে


আমরা বাঙালীরা একটু আবেগ প্রবন বেশিই।যখন কোন ইস্যু পাই সবাই তার পিছনে ছুটি।এমন ভাবে ছুটি যাতে ওই ইস্যুর একটা হেস্ত নাস্ত না করে ছাড়বেই না।কিছু দিন পর হারিয়ে যায় ইস্যু।ঘুণে ধরে আমাদের মতিষ্ক।ভুলে যাই সবকিছু।আবার নতুন ইস্যুতে মজে থাকি।ফেলানী, তনু,রাজন সবাইকে আমরা ভুলে গেছি।ভুলাটা স্বাভাবিক। ভুলে যাচ্ছি আপন জুয়েলারস।ভুলে যাচ্ছি সাফাত-নাইমদের।

বাংলাদেশ একতরফা পানি প্রত্যাহার করে নিচ্ছে-দাবী মমতার!


ভারত সরকার কর্তৃক একতরফা পানি প্রত্যাহার করে নেওয়া ও তিস্তা সহ ভারতের সাথে অভিন্ন ৫১ নদীর পানির ন্যায্য হিস্যার দাবিতে বাংলাদেশের মানুষ যখন সোচ্চার, তখন ভারত সরকার পানি তো দিলই না বরং উল্টো অভিযোগ করে বসল ভারতের পশ্চিম বঙ্গের সিএম মমতা ব্যানার্জি বাংলাদেশ নাকি ভারতকে পানি থেকে বঞ্চিত করছে। তিনি বাংলাদেশ থেকে ভারতে প্রবেশ করা অভিন্ন তিন নদীর পানির হিস্যা দাবি করেছে। আমরা ভারতের সাথে অভিন্ন ৫১ নদীর পানির ন্যায্য হিস্যা নিশ্চিত করতে না পারলেও ভারত বাংলাদেশের সাথে অভিন্ন ৩ নদীর পানির হিসাব নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে।

শ্যামলকান্তির বিরুদ্ধে করা ঘুষের মামলা মিথ্যে, বানোয়াট ও ষড়যন্ত্রমূলক



ঘটনা ও বিশ্লেষণ থেকে স্পষ্ট বুঝা যায় শ্যামলকান্তির বিরুদ্ধে আনীত ঘুষ গ্রহণের অভিযোগ মিথ্যে, বানোয়াট, হয়রানীমূলক ও ষড়যন্ত্রের অংশ। প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার হীন উদ্দেশ্যে তাঁকে মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। শ্যামলকান্তির অবিলম্বে জামিন দাবী করছি এবং ঘুষ গ্রহণের মিথ্যে অভিযোগটি ডিসচার্জড করে তাঁকে অভিযোগের দায় থেকে অব্যাহতি দেওয়া হোক। সেই সাথে ঘুষ দিতে চাওয়া ও মিথ্যে মামলা করার জন্য অভিযোগকারীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হোক।

আমরা কি সঠিকভাবে মূল্যায়িত হচ্ছি?


কিছু খবর শুনে নিজেই ভেতরে ভেতরে দুর্বল হয়ে যাই। হতাশ হই ভবিষ্যৎকে নিয়ে। আশঙ্কায় থাকি অবমূল্যায়নের। সম্প্রতি প্রাপ্ত সংবাদে প্রচারিত বিষয় হচ্ছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মন্নুজান হল থেকে উদ্ধারকৃত ইসলামের ইতিহাসের একশটি উত্তরপত্র। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার সে একশজন পরীক্ষার্থীর কি ভাগ্য খারাপ ছিলো?

বাঙালি জাতীয়তাবাদ


স্বাধীনতাকে আমরা আরো গভীরতর অন্তর্দৃষ্টি দিয়ে বুঝতে শুরু করলাম ভাষা আন্দোলনের সময় থেকে। ওই পর্যায়ে আমাদের জাতিচেতনা দ্বিজাতিত্ত্বের ধর্মকেন্দ্রিক সংকীর্ণ সংজ্ঞা থেকে মুক্তি পেয়ে উন্নীত হয় বাংলা ভাষা, বাঙালি সংস্কৃতি, এবং নৃতাত্ত্বিক পরিচয়ের ভিন্ন একটি জাতীয়তাবোধে। জাতীয়তাবোধের রাজনৈতিক রূপায়নই জাতীয়তাবাদ। সেই জাতীয়তাবোধ এবং জাতীয়তাবাদের আমরা নাম দিয়েছি "বাঙালি জাতীয়তাবাদ"।

শিশুরা কি শ্রমিক?


এ বিশ্বকে এ-শিশুর বাসযোগ্য ক'রে যাব আমি-
নবজাতকের কাছে এ আমার দৃঢ় অঙ্গীকার।
অকাল প্রায়াত কবি সুকান্ত বেঁচে থাকলে হয়ত এই লাইন কয়েটা ব্যান্ড করে দিত।পাথর চাপা কষ্ট নিয়ে বলতো, এ পৃথিবীকে আমি একদিন শূন্য স্থান দেখব। ভাগ্যিস সুকান্তের অকাল পক্কে লাই দুটো বেঁচে গেছে।

এই রাষ্ট ও সমাজের যৌনাক্রম, ধর্ষন, যৌনাধিকার আর যৌন-অশিক্ষার..... সমাচার


এদেশের রাষ্ট্র-সমাজ ও পরিবার যৌনশিক্ষাটাকে এতো এতো ট্যাবু করে রেখেছে যে, এই শিক্ষা শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে যোজন যোজন দুরে রাখা হয়। এই যেন নিষিদ্ধ কোনো শিক্ষা। এই যেন ঔষদের মতো ভয় দেখিয়ে বলার মতো, -শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন! যৌনশিক্ষা কেন ট্যাবু হবে? এই শিক্ষা কেন ছোটকাল থেকে শিশুকে দেয়া হয় না? সঙ্গম, সেক্স, মিলন, সহবাস, মৈথুন..... এই শব্দগুলো মানুষের জীবনের সাথে ওতপ্রোত ভাবে জড়িত। এটা কেন আমাদের ছোটকাল থেকে বলা হয় না? এটা কি নিষিদ্ধ কোনো গন্ধম? এটা মানব জীবনের বাইরের কোনো অংশ?

সমপ্রেমী পুরুষ ও পুরুষের অথবা নারী ও নারীতে ভালোবাসাতে দন্দ কোথায়?


সমকামী বা সমপ্রেমী, পুরুষ ও পুরুষের অথবা নারী ও নারীতে ভালোবাসাতে দন্দ কোথায়? মানুষকে যদি ভালোবাসা ও অধিকার দিতেই হয় তবে তা মানুষের সর্ব রূপেই দেয়া তা উচিৎ।

পৃষ্ঠাসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর