নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • শহরের পথচারী
  • দীব্বেন্দু দীপ
  • অলীক আনন্দ
  • মিশু মিলন

নতুন যাত্রী

  • তা ন ভী র .
  • কেএম শাওন
  • নুসরাত প্রিয়া
  • তথাগত
  • জুনায়েদ সিদ্দিক...
  • হান্টার দীপ
  • সাধু বাবা
  • বেকার_মানুষ
  • স্নেহেশ চক্রবর্তী
  • মহাবিশ্বের বাসিন্দা

আপনি এখানে

সহযোগিতার নতুন দিগন্ত উন্মোচিত


বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভারত সফরে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে সহযোগিতার নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হয়েছে। ২২টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। বহুল আলোচিত প্রতিরক্ষা সহযোগিতাবিষয়ক তিনটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে। এছাড়া প্রতিরক্ষা ঋণ সহায়তাবিষয়ক একটি সমঝোতা স্মারকও স্বাক্ষরিত হয়েছে। এ নিয়ে প্রতিরক্ষাবিষয়ক সমঝোতা স্মারকের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে চারটি। এছাড়া আর যেসব চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়েছে তার মধ্যে মহাকাশের শান্তিপূর্ণ ব্যবহার, আণবিক শক্তির শান্তিপূর্ণ ব্যবহার, পরমাণু নিরাপত্তা, পরমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্র, তথ্যপ্রযুক্তি, যোগাযোগ প্রযুক্তি, বিচারিত ক্ষেত্রে সহযোগিতা ও বিচার বিভাগের কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ, নৃ-বিদ্যা ও ভূবিদ্যা বিষয়ে সহযোগিতা, গণমাধ্যম ক্ষেত্রে সহযোগিতা, বর্ডার হাট, ট্রেন ও মোটরযান চলাচল ইত্যাদি বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। প্রধানমন্ত্রীর এবারের ভারত সফর নিঃসন্দেহে তাৎপর্যপূর্ণ। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে এবার রাষ্ট্রপতি ভবনে আতিথেয়তা দেয়া হয়েছে, যা নজিরবিহীন। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে প্রটোকল ভেঙ্গে বরণ করে নিতে বিমানবন্দরে উপস্থিত হন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এর আগে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের প্রেসিডেন্টের ভারত সফরের সময় এই সম্মান পান। এবার বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও পেলেন সেই বিরল সম্মান। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তিস্তা চুক্তির পথে এগিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। ২৫ মার্চ গণহত্যা দিবসের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতিতে সমর্থন দিয়েছে ভারত। দুই দেশের শীর্ষ নেতৃত্বের বৈঠকের পর চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক অনুযায়ী তৃতীয় লাইন অব ক্রেডিটের আওতায় বাংলাদেশকে সাড়ে ৪০০ কোটি মার্কিন ডলার ঋণ দিবে ভারত। সামরিক কেনাকাটায় দিবে আরও ৫০০ মিলিয়ন ডলার ঋণ। চুক্তি হয়েছে ৩৬টি কমিউনিটি ক্লিনিক স্থাপনে। আরও কিছু সীমান্ত হাট চালু করতে সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে। কলকাতা-খুলনা-ঢাকা বাস চলাচল, খুলনা-কলকাতা ট্রেন চলাচল ও রাধিকাপুর-বিরল রেললাইন উদ্বোধন হয়েছে। এ ছাড়া আরও বিদ্যুৎ বাংলাদেশকে দেবে ভারত। নিকট প্রতিবেশী ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক আগের যেকোন সময়ের তুলনায় ভাল। বাংলাদেশের স্বাধীনতাযুদ্ধে ভারত সহায়তা করেছে। এ দেশের মানুষকে আশ্রয় দিয়েছে। ভারতের সেনাবাহিনীর সদস্যরা যুদ্ধে প্রাণ দিয়েছেন। কাজেই এ সম্পর্ক আগামী দিনে নিঃসন্দেহে আরও উচ্চমাত্রায় পৌঁছবে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর এবারের সফরে ভারত-বাংলাদেশের সম্পর্কে যে উষ্ণতা প্রকাশ পেয়েছে, তার ভিত্তিতে তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তিও দ্রুত হয়ে যাবে বলে আমাদের বিশ্বাস। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দূরদর্শী পরিকল্পনা গ্রহণ ও তার সুষ্ঠু বাস্তবায়নের মধ্য দিয়েই দেশ এগিয়ে চলছে।

বিভাগ: 

Comments

Md Mazharul Islam এর ছবি
 

প্রধানমন্ত্রী ভারত সফরের মধ্যদিয়ে বাংলাদেশের অনেক উন্নয়ন চুক্তি হয়েছে।

 

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

মলি
মলি এর ছবি
Offline
Last seen: 18 ঘন্টা 34 min ago
Joined: সোমবার, অক্টোবর 17, 2016 - 4:53অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর