নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • শহরের পথচারী
  • দীব্বেন্দু দীপ
  • অলীক আনন্দ
  • মিশু মিলন

নতুন যাত্রী

  • তা ন ভী র .
  • কেএম শাওন
  • নুসরাত প্রিয়া
  • তথাগত
  • জুনায়েদ সিদ্দিক...
  • হান্টার দীপ
  • সাধু বাবা
  • বেকার_মানুষ
  • স্নেহেশ চক্রবর্তী
  • মহাবিশ্বের বাসিন্দা

আপনি এখানে

এক ধর্মীয় গুরুর সাথে ধর্ম নিয়ে আমার তর্ক-বিতর্ক


সম্ভবত ২০০৯সালের কথা। রাত ১০টার দিকে আমি, দাদাবাবু, (ভগ্নিপতি) আর দাদাবাবুর এক বন্ধু সীতাকুন্ড মেলায় (শিবরাত্রি) গেছিলাম। সারারাত মেলায় ঘুরতে ঘুরতে, চা সিগারেট-টাইগার পান করতে করতে, অস্থির সময় কাটাতে কাটাতে এক সময় ভোর হল। আমরা গেলাম শংকর মঠ আশ্রমে। সেখানে গিয়ে দেখি সজলান্দ ভক্তদের সাথে কথা বলছেন। আর আগত ভক্তরা তার পায়ে টুক টুক করে প্রণাম করছেন। ভক্তরা তার সামনে প্রভু ভক্তের মতো বসে আছে।

দাদাবাবু আর তার বন্ধুও সজলান্দের পায়ের নিচে মাথা ঠেকিয়ে প্রণাম করছেন। আমি করিনি। আমি ঠাই একপাশে দাঁড়িয়ে আছি। উনি আমাকে দেখে দাদাবাবুকে বললেন, -এই ছেলেটা কে?
দাদাবাবু বলল, -আমার শালা। সেই ঈশ্বরে বিশ্বাস করে না। তাই আপনাকে প্রণাম....
সজলান্দ বলল, -থাক আমি বুঝেছি বলে উনি আমাকে ডাকলেন। আচ্ছা তুমি কেন ঈশ্বরকে বিশ্বাস করো না?
আমি,-কেন আমি ঈশ্বরকে বিশ্বাস করবো? ঈশ্বরের অস্তিত্ব কোথায়? তাকে আমি কখনো দেখিনি, তাকে আমি অনুভবও করিনি। কিভাবে আমি দাবী করবো ঈশ্বর আছে?
-সুন্দর প্রশ্ন। আচ্ছা তুমি কখনো বাতাশকে দেখেছো?
-না। কিন্তু বাতাসের অস্তিত্ব অনুভব করা যায়।
-কিভাবে?
-একটা হাওয়া গায়ে এসে লাগলে বাতাসের অস্তিত্ব তো ঠের পাওয়া যায়।
-হুম! তো ঈশ্বর যদি নাই থাকে তুমি কোথথেকে এসছো?
-কেন আমার বাবা-মার কাছ থেকে।
-কিভাবে?
-একটা মানব ছাড়া একটা মানবী কখনো গর্বধারিনী হয়না।
-আচ্ছা তোমার বাবা-মা কোথথেকে এসেছে?
-তারপর জানতে চাইবেন আমার ঠাকুরদা-ঠাকুমা কোথথেকে এসেছে, এই তো?
-হাঁ।
-ডারঊইনের বির্বতনবাদ তথ্য থেকে জানা যায় আমাদের পূর্ব পুরুষ ছিল বানর। বির্বতন হতে হতে আমরা এক সময় মানুষে রুপান্তরিত হলাম। আর পৃথিবী তো বির্বতনশীল তা তো দেখতে পাচ্ছি, তাই আপাতত ডারঊনের বির্বতনবাদ মেনে নিলাম।
-ঠিক আছে মানলাম। আচ্ছা তোমাদের পূর্ব পুরুষ বানরকে কে সৃষ্টি করলো।
-আমি যতটুকু জানি পৃথিবীতে প্রথম এককোষী এ্যামিবা প্রাণীর জম্ম হয়।
-ঐ এ্যামিবাকে কে বানালো?
-জানিনা।
-তাহলে তোমার মানতে হবে ঐ এমিবাকে ঈশ্বর সৃষ্টি করেছে।
-না আমি তা মানতে পারছিনা।
-কেন?
-কারন ঈশ্বরকে সৃষ্টি করেছে মানুষরাই।
-কিভাবে?
-আমরা জানি যে কৃষ্ণ আসার পর হিন্দুদের গীতা আসে। গৌতম বৌদ্ধ আসার পর বৌদ্ধধর্ম প্রচার পায়। যিশু আসার পর খ্রিস্টান ধর্ম প্রচার পায়। এর অনেককাল পরে মহম্মদ আসার পর মুসল্মানদের আল্লা ইসলাম ধর্ম ও কোরাণ আসে। তো এটাই তো স্বাভাবিক, আল্লা ঈশ্বর গডকে মানুষই সৃষ্টি করেছে। আর রাম, কৃষ্ণ, বৌদ্ধ, যিশু, মহম্মদ, এরা আসার আগেও তো পৃথিবীতে মানুষ ছিল, তখন আল্লা ঈশ্বর গড ভগবান এরা কই ছিল?
-অপ্রিয়, তখনো ঈশ্বর ছিল, কিন্তু মানুষ তা জানতো না।
-আপনি কিভাবে জোর দিয়ে বলছেন যে তখন ঈশ্বর ছিল?

সেখানকার এক ভক্ত খুব রাগ করে আমাকে বলল- ভাই আপনি এখান থেকে বেরিয়ে যান, আমরা বাবাজীর আর্শীবাদ নেব। আমাদের সময় নেই এখানে বসে থাকার!
তার কথা শুনে আরো কয়েক জন ভক্ত সমস্বরে তাকে বলে উঠল, -ভাই আপনার সময় না থাকলে আপনি চলে যান। উনার কথা শুনতে আমাদের ভালো লাগছে।

আমি বললাম, -দেখুন এই যে ভক্তরা মন্দির মসজিদ মাজার গির্জায় যায় আল্লা ভগবান গড ঈশ্বরের প্রার্থনা করতে, এই মন্দির-মসজিদগুলো কিন্তু কোনো আল্লা ঈশ্বরই গড়ে দেননি, এগুলো মানুষই তৈরি করেছে।
তিনি চুপ।
আমি আবার বললাম- এই যে ২০০১-০৩ সালে আমেরিকা, ইরাক আফগানের মুসলিমের উপর অমানবিক হত্যাকান্ড চালাল, তখন তাদের আল্লা তাদের বাঁচাতে আসেনি কেন? আপনি তো এখানে বসে বসে ভক্তদের খুব করে ধর্মজ্ঞাণ দিচ্চেন, পৃথিবীতে প্রতিদিন কতো মানুষ-শিশু না খেয়ে অনাহারে মারা যাচ্ছে, কতো নারী পেটের দায়ে রাতভর বেশ্যাবৃত্তি করছে, কতো টুকাই ছেলে মেয়ে খাবার না পেয়ে ডাস্টবিনের উচ্ছিষ্ট খাবার কুঁড়িয়ে খাচ্ছে, কতো যুদ্ধ বিধস্ত দেশে অভুক্ত মানুষগুলো থালা নিয়ে খাবারের প্রতীক্ষা করছে, তখন আপনার ঈশ্বর কই থাকে? শুধু মাত্র ধর্মকে লক্ষ্য করে হিন্দু-মুসলিম সাম্প্রদায়িক দাঙা হয়, এতে অনেক মানুষ মারা যায়, আহত হয়, তখন আপনার ঈশ্বর কই থাকে......
কথাগুলো বলতে বলতে আমি অনেটা উত্তেজিত হয়ে পড়েছিলাম। তিনি আর না শুনে হুট করে বাইরে চলে গেলেন। কিছু কিছু ভক্ত আমার দিকে অবাক দৃষ্টিতে চেয়ে আছে!

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

অপ্রিয় কথা
অপ্রিয় কথা এর ছবি
Offline
Last seen: 23 ঘন্টা 21 min ago
Joined: শনিবার, ডিসেম্বর 24, 2016 - 2:15পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর