নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 6 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নিহত নক্ষত্র
  • সৈয়দ মাহী আহমদ
  • সাইয়িদ রফিকুল হক
  • কাঙালী ফকির চাষী
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • দ্বিতীয়নাম

নতুন যাত্রী

  • ফারজানা কাজী
  • আমি ফ্রিল্যান্স...
  • সোহেল বাপ্পি
  • হাসিন মাহতাব
  • কৃষ্ণ মহাম্মদ
  • মু.আরিফুল ইসলাম
  • রাজাবাবু
  • রক্স রাব্বি
  • আলমগীর আলম
  • সৌহার্দ্য দেওয়ান

আপনি এখানে

ব্লগসমূহ

ব্যক্তির জ্ঞান চর্চা ও ভয়ের সংস্কৃতি


জ্ঞানচর্চার স্পৃহা কখনও কখনও ‘অপরাধ’ হয়ে ওঠে। প্রচল রাষ্ট্র ও সমাজের কাছে ওই ব্যক্তি শত্রু হয়ে ওঠে, যে কিনা কেবলই প্রশ্নের উত্তর হাতড়ে বেড়ায়, কেবলই যুক্তি দিয়ে বুঝতে চায় সব কিছুকে। অথচ ব্যক্তির সেই স্পৃহা হয়ত জেগে ওঠে অন্তর্গত নিষ্পাপ বিহ্বলতা থেকে। জাগতে পারে অসহায় বিস্ময় ও ক্রন্দন থেকে। যেমন জেগেছিল আরজ আলী মাতুব্বরের ভেতর। সে ঘটনা সকলেরই জানা। ‘মাকে আমি আর কোনওদিনই দেখতে পাব না!

মালাউন খেঁদা:


১৯৭১ সালে স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশের পর ১৯৭২ সালে যে সংবিধান হয়েছিল সেখানে চারটি মূল স্তম্ভ-ধর্মনিরপেক্ষতা ,গনতন্ত্র, সমাজতন্ত্র ও জাতিয়তাবাদ ।বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়ে সেই সংবিধানের মৃত্যু হয়েছিল । তারপর সামরিক ক্ষমতার অপব্যবহার করে জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় এসে গড়ে তোলে বিএনপি(Bangladesh National Party—BNP) ।

অশ্লীল সাহিত্য নীলছবি এবং পর্নোগ্রাফির বিবর্তন - (পর্ব ১)


স্কুল লাইফে দেখতাম নায়ক নায়িকাদের ছবি যেটাকে আমরা ভিউ কার্ড বলতাম তার প্রচলন ছিল খুবই। তবে নীল ছবি পর্নোগ্রাফি বা অশ্লীল সাহিত্য কোনটাই আধুনিক সভ্যতার আবিষ্কার নয়। বহু আগে থেকেই এদের অস্তিত্ব আছে। প্রস্তর যুগে বহু গুহাচিত্র বা ভাষ্কর্যে নগ্নতার ছাপ আছে । ভারতের বিভিন্ন মন্দিরে নগ্ন মুর্তির চিত্রগুলো কিন্তু বর্তমান সময়ে তৈরি না। গ্রীক এবং রোমান সভ্যতায়ও অশ্লীলতা চর্চা ছিল। মুসলিম সম্রাজ্য গুলোতে অনেক রাজা বাদশাহর হারেমে যৌনতার ব্যাপক চর্চা সবারই কম বেশি জানা। বর্তমানে ইন্টারনেটের কারনে পর্ন এত সহজলভ্য এবং সস্তা যে পর্নের নিষিদ্ধ

প্রশ্নের কাঠগড়ায়


মুক্তচিন্তা খুব জুরুরী।অহরহ চিন্তার কত আঙ্গিক চারিদিক।সেখানে একটিকে অবলম্বন করে চলতে গেলে বেধে যেতে হবে। যেমনঃ কেউ মার্ক্সবাদী, কেউ গান্ধীবাদী,কেউ আম্বেদকরবাদী,কেউ বুদ্ধের অনুসারী, কেউবা আবার গোড়া ধার্মিক।এবং এটা সত্য যে, প্রত্যেকেই নিজেদের ওয়েটাকে সঠিক বলে ভাবতে অভ্যস্ত।কিন্তু প্রশ্ন হলো কোনটা ঠিক??
হ্যা,এই ক্ষেত্রে মনকে খোলা না রাখলে বিচার করা সম্ভব নয়। কিন্তু কিভাবে মনকে খোলা বা যে কোন পূর্বধারণা (assumption) থেকে মুক্ত রাখা যায়?

আর এক্ষেত্রে আমাদের স্কুল কলেজের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের ভূমিকা কতটুকু?

কুরআন অনলি রেফারেন্স: (১৫) মুমিনদের অবিশ্বাস ও নবীর হুশিয়ারি!


ইসলামের ইতিহাসের তৃতীয় খুলাফায়ে রাশেদীন হযরত উসমান ইবনে আফফান (রাঃ) এর শাসনামলে (৬৪৪-৬৫৬ খ্রিস্টাব্দ) সংকলিত বর্তমান কুরআনের প্রথম চ্যাপ্টার-টি হল ‘সুরা ফাতিহা’, যা মূলত: একটি প্রার্থনা বা দোয়া। বিছমিল্লাহ হির-রাহমা-নের-রাহিম ও সুরা ফাতেহা কুরআনেরই অংশ কি না, এ ব্যাপারে সাহাবীরাও একমত ছিলেন না। বিশিষ্ট সাহাবী আবদুল্লাহ ইবনে মাসুদ সুরা ফাতিহাকে কোরানের সুরা হিসেবে কোনোদিনই স্বীকার করেননি। আর প্রবক্তা মুহাম্মদ (আল্লাহ) এটিকে বর্ণনা করেছেন “সাতটি বার বার পঠিতব্য আয়াত” হিসাবে (কুরআন: ১৫:৮৭)। [1] সংকলিত কুরআনের এই প্রার্থনাটির পর সর্বপ্রথম যে বাণী তা হলো হিং-টিং-ছট জাতীয় শব্দ, "আলিফ-লাম-মীম (

***ভাল থেকো***


কাউকে বলো না প্লিজ
একদিন
ক্ষয়ে যাওয়া জীবনটা টানতে টানতে
আমি সফল হবো ঠিক ঠিক
তার আগ পর্যন্ত ভাল থেকো।
গতকাল ও আমি অনেক হতাশ ছিলাম
ভেবেছি পরীক্ষার
বেড়াজালে একটা জীবন
আটকা পড়ে আছে যেন কয়েক জন্ম
ধরে
তাইতো মরফিনে ডুবে কতিপয় সুখ
একটু
ভালোবাসা খুঁজে বেড়িয়েছি এতকাল।
সবাই মনে মনে বলেছে আর কত
বাপের খাবিরে ব্যাটা
খোটায় খোটায় অতিষ্ঠ
একদিন আমিও ভালো ছাত্র ছিলাম ।
ক্যানাবিসের ধোয়াটে নেশায়
টলতে টলতে হুটহাট
ক্লাসের সবচে আলাদা সেই
তোমাকে
দেখতাম কাধে ব্যাগ নিয়ে এক

ফকির বচন....


১৷ যে একজনের পকেট মারে সে পকেটমার
যে দশ জনের কাটে সে হয় অফিসার৷

২৷ যে মসজিদে জুতা চুরি করে সে চোর,
আর যে দশজনের চামড়া চুরি করে জুতা পায়ে দেয় সে সাহেব৷

৩৷ যে রাতে ঘর ডাকাতি করে, ধরতে পারলে লাশ
যারা দিনরাত করে, তাদের মাথার উপরে বসবাস৷

৪৷ যে ফসল ফলায় তার ভাগ্যে শ্রমের মূল্য নাই,
যারা ফসল হাত বদল করে তারা কৃষক ভোক্তা মেরে খায়৷

৫৷ চোর, ডাকাত, পকেটমার যত উপরের তত শ্বাস
একই কর্মে যত যে নিচে ততই লাশ৷

দয়া করে লেজকাটা নারীবাদী হবেন না বরং ধুমপানকে না বলুন



দুর্ভাগ্যবসত গত কয়েকদিন ধরে আমার ফেইসবুকের নিউজ ফিডে প্রচুর ধুমপায়ী নারীর ছবি দেখেছি, যার প্রায় সবগুলোই নারীদের ধুমপানের বিষয় নিয়ে করা একটি ভিডিও এর প্রতিবাদ করে পোষ্ট দেয়া হয়েছে

ভিডিওটি আমি দেখিনি, এবং দেখবার ইচ্ছে বা রুচি আমার নেই। ধূমপায়ী ব্যক্তির লিঙ্গ যাচাই করার দায়িত্ব নেয়ার যৌক্তিকতা বুঝি না। একজন ধুমপায়ী ব্যক্তি ধুমপায়ী তা সে নারী বা পুরুষ।

শিটহোল কান্ট্রিজ, পাশ্চাত্য সভ্যতার উৎকর্ষ ও আধুনিক ক্রীতদাস



আরেকটা গল্প বলি। একটা কোর্সে সবসময় গ্যাঞ্জাম লেগে থাকা আফ্রিকান কোনো দেশের এক অফিসারের সাথে পরিচয় ছিল। দেদারছে টাকা উড়াতো। মদ, নারী এসব ছিল নেশার মত, কিছু কেয়ারও করত না। আমি জিজ্ঞেস করি, তোমাদের দেশের অবস্থা তো আমাদের থেকে ভাল না। সরকার তোমাদের এত টাকা দেয়? গল্পে গল্পে জানতে পারি, ওর বাবা এক গোত্রপ্রধান। কিছু না করেই তাদের টাকা দেয় বা বিশাল অংকের ভাতা দেয় বিদেশী শক্তি। কোন ধরনের মানবিক ও শিক্ষাগত যোগ্যতা না থাকবার পরেও যে সে একটা পদ দখল করে আছে, তা তাদের টাকা দিয়ে কিনে রাখা প্রভূদের আশির্বাদে। তাদের মধ্যে থেকে অমানুষ, অযোগ্যদের বেছে নিয়ে অনুগত করে রাখে ভোগ বিলাসের ব্যবস্থা করে। আর গোত্রপতিদের দেবতা মনে করা বাদবাকি মানুষেরা থাকে জোম্বির মত, এরা আধুনিক ক্রীতদাস।

পৃষ্ঠাসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর