নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 11 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • মূর্খ চাষা
  • নরসুন্দর মানুষ
  • রাজিব আহমেদ
  • কাঠমোল্লা
  • পৃথু স্যন্যাল
  • আল আমিন হোসেন মৃধা
  • নিরব
  • সাগর স্পর্শ
  • দ্বিতীয়নাম
  • নুর নবী দুলাল

নতুন যাত্রী

  • মাসুদ রুমেল
  • জুবায়ের-আল-মাহমুদ
  • আনফরম লরেন্স
  • একটা মানুষ
  • সবুজ শেখ
  • রাজদীপ চক্রবর্তী
  • নাজমুল-শ্রাবণ
  • চিন্ময় ভট্টাচার্য
  • নেইমানুষ
  • পরাজিত শুভ

আপনি এখানে

ইতিহাস

সাম্প্রদায়িকপশুদের ভয়ংকর থাবা!


খোঁজ নিয়ে দেখেছি, আজকাল অনেক ছেলে-মেয়েই এধরনের ভুলশিক্ষার শিকার হচ্ছে। আর তাদের পিতামাতা জেনেশুনে তাদের বিষপান করাচ্ছে। ফুলের মতো শিশুদের মানুষের মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দেওয়া হচ্ছে। এজন্য বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের পাশাপাশি শিশুর পিতামাতা সর্বাগ্রে দায়ী। শিশুদের কাছে এখন মনুষ্যত্বের চেয়ে ধর্মকে বড় করে দেখানো হচ্ছে। আর এদের নিয়মিত শেখানো হচ্ছে—শুধু একটা আরবি-নাম রেখে নিজেদের মুসলমান-দাবি করলেই সবকিছু হয়ে গেল! এই দেশে তোমরাই হলে সেরা! আর অন্য ধর্মের লোকদের ধর্ম ও চরিত্র কোনোটাই ভালো নয়! আজ এই হলো এই দেশের একশ্রেণীর মুসলমানের শিক্ষা।

নার্গিস ও কাজী নজরুল ইসলামের প্রেম-বিচ্ছেদ


কাজী নজরুল ইসলামের প্রথম প্রেম ও প্রথম স্ত্রী সৈয়দা খানম ।নজরুল নার্গিস বলে ডাকতো।নার্গিস কুমিল্লার মুরাদনগর দৌলতপুর গ্রামের মেয়ে। মামা আলী আকবর খানের সাথে নজরুলের খুব ঘনিষ্টতা ছিলো।সম্রাট বাবরের জীবনী নিয়ে আলী আকবর খান একটা নাটক লিখেছিলো।ছোট ছোট বই লিখে নিজেই ফেরি করে বিক্রি করতেন। সেই সব বইতে আলী আকবর খান রচিত কিছু কবিতা থাকতো। সেসব হাস্যরস্য কবিতা দেখে নজরুল নিজে “লিচু চোর” কবিতাটি আলী আকবর খানকে লিখে দিলেন। খুশি হয়ে নজরুলকে গ্রামের বাড়ি কুমিল্লাতে দাওয়াত দেন। আলী আকবর থেকে সর্বদাই নজরুলকে বন্ধুরা দূরে থাকার পরামর্শ দিতেন। কিন্তু নজরুল কখনি বন্ধুদের উপদেশ শোনেন নি।

বিদ্রোহী রণক্লান্তের জন্মদিনে বিনম্র শ্রদ্ধা!


বিদ্রোহের কবি সাম্যের কবি কাজী নজরুল ইসলাম তুলে ধরেছিলেন শ্রমজীবী মানুষের দুঃখ দূর্দশার কথা তিনি লিখেছিলেন, 'দেখিনু সেদিন রেলে, কুলি ব’লে এক বাবু সা’ব তারে ঠেলে দিলে নীচে ফেলে! / চোখ ফেটে এল জল, এমনি ক’রে কি জগৎ জুড়িয়া মার খাবে দুর্বল?

মহান মুক্তিযুদ্ধের উপর লেখা বইয়ের সংগ্রহশালা


ডাউনলোড লিংক

শ্যামল ছায়া - হুমায়ুন আহমেদ

জোছনা ও জননীর গল্প - হুমায়ুন আহমেদ

আগুনের পরশমনি - হুমায়ুন আহমেদ

১৯৭১ - হুমায়ুন আহমেদ

মুক্তিযুদ্ধের পূর্বাপর কথোপকথন - এ কে খন্দকার / মঈদুল হাসান / এস আর মীর্জা

রাইফেল, রোটি, আওরাত - শহীদ আনোয়ার পাশা

দালাল আইনে সাজা প্রাপ্ত যুদ্ধাপরাধী - এ এস এম সামছুল আরেফীন

দুই মুক্তিযোদ্ধা - ইমদাদুল হক মিলন

অপারেশন জ্যাকপট - সেজান মাহমুদ

একাত্তরের ঘাতক ও দালালরা কে কোথায়

ম্যানচেস্টার-হামলায় আবার পরাজিত হলো ধর্ম


ধর্মের শত্রু কখনও নাস্তিক নয়। আর নাস্তিকরা ধর্মের কোনো ক্ষতি করতে পারে না। ধর্মের একমাত্র আদি-আসল শত্রু হলো—এই লোকদেখানো ধার্মিকসম্প্রদায় তথা আস্তিক-ব্যবসায়ীগণ। এরাই পৃথিবীতে ধর্মের সবচেয়ে বড় শত্রু। আজকাল দেশে-দেশে তথা বিশ্বে ইসলামের নামে আত্মস্বীকৃত ধর্মবিরোধী-মানবতাবিরোধী জঙ্গিগোষ্ঠী গড়ে উঠেছে—এর মূলে ভণ্ডামি। এরা আত্মস্বীকৃত জঙ্গি ও মুসলমান। এরা পৃথিবীতে আজ শুধু একাই বসবাস করতে চায়। আর অন্য ধর্মের সকল মানুষকে হত্যা করতে চায়। এর নাম অধর্ম ও পশুত্ব। আর এরই নাম পাপ ও শয়তানী।

ইসরায়েল-প্যালেস্টাইন সংঘাত(পর্ব-২): প্যালেস্টাইনের স্বাধীনতার পথে প্রতিবন্ধকতাসমূহ


প্যালেস্টাইন নামে কোন স্বাধীন রাষ্ট্র আগেও ছিল না, এখনও নেই। ইসরায়েলের জন্মের অনেক পরে প্যালেস্টেনীয় জনগণের মাঝে স্বাধীনতার প্রয়োজন অনুভূত হয়। বেশ কয়েকটি যুদ্ধে আরব বিশ্ব পরাজিত হবার পরে যখন অবস্থা বেগতিক হয় তখন প্যালেস্টেনীয় জনগণ বুঝতে পারে যে এভাবে যুদ্ধের মাধ্যমে ইসরায়েলকে উৎখাত করা সম্ভব নয়। এরপরই তারা তাদের আলাদা রাষ্ট্রের জন্য সংগ্রাম শুরু করে। সেই সংগ্রামের ইতিহাস অত্যন্ত সহিংস, রক্তাক্ত এবং হৃদয়বিদারক। এতটা দুর্গম পথ পাড়ি দেওয়ার পরেও কেন আজ পর্যন্ত প্যালেস্টাইন তার স্বাধীনতা অর্জনে ব্যর্থ হল- সেই কারণই আমরা এই পর্বে অনুসন্ধান করবো।

ইউরোপের রাজনৈতিক শিক্ষা এবং আমাদের শিক্ষাহীনতা


ইউরোপ আজকে যে পলিটিক্যাল সিস্টেমে উন্নীত হয়েছে সেটার কয়েক শতাব্দীপ্রাচীন লিগ্যাসি আছে। অনেকগুলো ঐতিহাসিক পর্ব পার করে পরিবর্তন, সংযোজন, বিয়োজন আর নিরীক্ষার মধ্য দিয়ে তারা বর্তমান অবস্থায় পৌঁছেছে । সেই ঐতিহাসিক পর্বগুলো ইউরোপের শ্রেষ্ঠ দার্শনিক, চিন্তকদের লেখা দ্বারা উৎসাহিত । ইউরোপে রেনেসাঁ এসেছে, এজ অফ সায়েন্স,রিজন বা এনলাইটেনমেন্ট এসেছে। ইংল্যান্ড ও ফ্রান্সে ঘটেছে দু ধরনের বুর্জোয়া বিপ্লব, রাশিয়াতে সাম্যবাদী বিপ্লব। বিজ্ঞানের অগ্রগতি সম্ভব করেছে শিল্প বিপ্লবকে।

২০ মে চা শ্রমিক দিবস : ৯৬ বছরেও রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি পায়নি চা শ্রমিকরা


আজ ২০ মে ১৯২১ সালের চা শ্রমিকদের রক্তঝড়া সেই চা শ্রমিক দিবস।১৯২১ সালের এই দিনে ব্রিটিশদের অত্যাচার থেকে মুক্ত হতে সিলেট অঞ্চলের প্রায় ৩০ হাজার চা-শ্রমিক নিজেদের জন্মস্থানে ফিরে যাওয়ার চেষ্টা চালালে চাঁদপুরের মেঘনা ঘাটে গুলি চালিয়ে নির্বিচারে হত্যা করা হয় শত শত চা শ্রমিকদের এবং মেঘনা নদীতে ভাসিয়ে দেওয়া হয় শ্রমিকদের মৃতদেহকে।

পৃষ্ঠাসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর