নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 9 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • পৃথ্বীরাজ চৌহান
  • দ্বিতীয়নাম
  • নীল কষ্ট
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • কুমার শাহিন মন্ডল
  • সাইয়িদ রফিকুল হক
  • অনন্ত দেব দত্ত
  • কফিল উদ্দিন মোহাম্মদ
  • বিডিবি

নতুন যাত্রী

  • মাষ্টার মশাই
  • লিটন
  • অনন্ত দেব দত্ত
  • ইকরামুল হক
  • আবিদা সুলতানা
  • ইবনে মুর্তাজা
  • কুমার শাহিন মন্ডল
  • ঝিলাম নদী
  • কিশোর ফয়সাল
  • উসাইন অং

আপনি এখানে

অধিকার

তাদের কেউ নেই, কেউ না...


পানিতে চারদিক থৈ থৈ করছে। ৫ নং গয়াবাড়ী ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের একমাত্র প্রাইমারি স্কুলটিতেও পানি ঢুকে গেছে। স্কুল তাই আপাতত বন্ধ।

সৌরভ ক্লাস ফাইভে পড়ে। স্কুল বন্ধ থাকায় এখন বাবার সাথে ক্ষেতে নৌকায় মাছ ধরে! টানা সাতদিন বর্ষনে রসুলপুর গ্রামের প্রতিটা ক্ষেত এখন নদীতে পরিণত হয়েছে। ক্ষেতে নৌকা চালিয়ে যা মাছ পায়, সেগুলোতেই দু'বেলা অন্ন জোটে তাদের। এখানকার কৃষকদের বছরে অন্তত একবার জেলের ভূমিকায় কাজ করতে হয়...

পার্বত্য চট্টগ্রামে যাদের সেটেলার বলা হয়


''বরিশাল থেকে আমাদের চট্টগ্রামে আনা হয়েছে লঞ্চ দিয়ে। চট্টগ্রাম থেকে আমাদের নিয়ে গিয়েছিল ট্রাকে করে কাপ্তাই পর্যন্ত। ট্রাকে করে যাওয়ার সময় আমাদের সামনে পেছনে দুইটা আর্মির জীপ ছিল। কাপ্তাই থেকে আমাদের সোজা নিয়ে যাওয়া হয়েছিল লংগদু আর্মি ক্যাম্পে। সেখানে আমরা কয়েক সপ্তাহ আর্মিদের দেয়া চিড়া-গুড় খেয়ে থেকেছিলাম। তারপর আমাদের জন্য জায়গা ঠিক করে দেয়া হয়।"

সমকাম ও আমূল নারীবাদ



সমাজ এমন একটি পদ্ধতি তৈরি করে দিয়েছে যেখানে একটি মানুষ সকল সময় তার বিপরীত লিঙ্গের সাথে জোড় বেঁধে বাস করবে যতোদিন মন চায়। সমলিঙ্গ হলেই নিন্দা। সমলিঙ্গ সাথী হবার সুবিধেটা বেশী, একজন আরেকজনকে বুঝতে পারে সহজেই।

হাওর অঞ্চলে ত্রাণ সামগ্রীর নামে তামাশা নয় পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ চাই।



প্রধানমন্ত্রী বরাবর খোলা চিঠি
শুধু মানুষের নয়, সকল প্রাণীর জন্যই খাদ্য অপরিহার্য । তারপরই বাসস্থান, বস্ত্র, চিকিৎসা, নিরাপত্তা, শিক্ষাসহ অন্যান্য উপাদান। এই খাদ্যের প্রায় পুরোটাই যোগান দেয় আমাদের কৃষি। কৃষির জন্যে দেশ আজ খাদ্যে প্রায় স্বয়ংসম্পূর্ণ এমনকি এই কৃষির জন্যই জাতি আজ অর্থনীতিতে এগিয়ে। এদেশের সিংহভাগ মানুষ ও পরিবার এই কৃষির উপর নির্ভর করেই বেঁচে আছে।

কেমন আছে তোমার আমার বাংলাদেশ?


প্রচণ্ড ক্ষোভে ভেতরে ভেতরে ফুঁসতে থাকে নিরুপায় জনগণ। ইচ্ছে হয়, ’পিলার ধরে নাড়াচাড়া করে’ সব অনিয়গুলি ধ্বসিয়ে দিই!

ওরা তো লিভ-ইন করে!


ওরা তো লিভ-ইন করে!
কি! একথা শুনেই ঠোট টিপে হাসি আর চোখ ঘুরিয়ে ফিসফিস করে কটূ কথা বলা হয়ে গেল তো?
ভাই, থামেন। বিয়ে করে বউয়ের সাথে পঞ্চাশ বছর সংসার করার থেকে বিয়ে না করে কোন স্বাথর্ সিদ্ধির চিন্তা ছাড়া একবছর একই ছাদের তলে কারো সাথে বসবাস করা হাজার গুণ কঠিন কাজ।
বিয়ে করা মানেই হাজার লোককে ডেকে, কব্জি ডুবিয়ে খাইয়ে, রেশমী কাপড়ে আর অলংকারে মুড়ে জুবুথুবু বউকে নিজের সম্পত্তি বানিয়ে ফেলা।

ছিঃ তোরা সাপ খাস, তোরা ব্যাঙ খাস!


খড়ের ছাউনিটা একদম নড়বড়ে হয়ে গেছে। হালকা বৃষ্টিতেই ফুটো দিয়ে জল পড়ে। খিংমে মারমার বয়স ষাট পেরুতে চলল। সম্বল বলতে এই ছোট ঘরটাই আছে এখন। জুমক্ষেতগুলো অনেক আগেই জ্বালিয়ে দিয়েছে তারা, একমাত্র মেয়েকে বিশবছর আগে মেরে ফেলেছে তারা...

স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীই যেখানে ক্ষতিগ্রস্থ হাওর বাসীর ক্ষতির হিসাব নিয়ে ক্ষুব্ধ


আকস্মিক অতি বৃষ্টি, পাহাড়ী ঢল আর নদীর পানির অস্বাভাবিক বৃদ্ধির কারণে এবং পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) এর সীমাহীন দুর্নীতির ফলে নির্মিত বাঁধ ভেঙ্গে যাবার ফলে বাংলাদেশের বৃহৎ হাওর অঞ্চল সুনামগঞ্জের মেহনতি কৃষকের একমাত্র ফসল বোরো ধান ঘরে তোলার আগেই তলিয়ে যায়।

গত রবিবার সচিবালয়ে এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা শেষে মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব মাকসুদুল হাসান খান বলেন, ‘হাওরে বন্যায় মোট এক হাজার ২৭৬ মেট্রিক টন মাছ নষ্ট হয়েছে এবং তিন হাজার ৮৪৪টি হাঁস মারা গেছে।

একই সংবাদ সম্মেলনে কৃষি সচিব মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ্ বলেন, ‘বন্যায় দুই লাখ হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়েছে।’

পাহাড় নিয়ে মিথ্যাচার ও এর বিশ্লেষণঃ কল্পনা চাকমা, পাহাড়ের গণহত্যা ও সর্বশেষ রমেল চাকমা



রমেল চাকমার হত্যার ঘটনায় সেনাবাহিনীর নাম রক্ষার জন্য একশ্রেণীর মানুষ বিভিন্ন মিথ্যাচারে লিপ্ত হয়েছে। বিভিন্ন ছবি প্রকাশ করে তারা বুঝাতে চাইছেন রমেল একজন অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী। ট্রাক পোড়ানো মামলায় তার নাম আছে। এছাড়া কোন কোন পত্রিকায় (কালের কণ্ঠ) বলা হয়েছে সিএনজি অটোরিকশার ধাক্কায় রমেল আহত হয়ে মারা গেছে। এই ধরণের মিথ্যাচার নতুন নয়। কল্পনা চাকমার অপহরণের ঘটনাকে ধামাচাপা দেয়ার জন্যও অনেক মিথ্যাচার করা হয়েছে। গণহত্যাগুলোর বিবরণকে পাল্টে দেয়ার প্রচেষ্টা চলেছে। তবে সেসব সফল হয়নি। যদিও মিথ্যাচার এখনো চলছে।

মাই লাইফ, মাই চয়েজ !


দীপিকা পাডুকোন এর মাই চয়েস ভিডিওটি নিয়ে বলার আসলে খুব বেশি কিছু নেই। ইতোমধ্যেই সবাই কয়েকবার করে দেখে ফেলেছে ভিডিওটি। এই ভিডিওটির উদ্যোক্তা ভোওগ ইন্ডিয়া নামের একটি ফাশন ও লাইফ স্টাইল ম্যাগাজিন।
মূল কথায় আসি। মাই চয়েস ভিডিওটির প্রতিপাদ্য হলঃ আমার শরীর, আমার মন, আমার ইচ্ছা। অথর্াৎ আমার জীবনের সিদ্ধান্ত শুধুই আমার।

পৃষ্ঠাসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর