নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 3 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • কিন্তু
  • নুর নবী দুলাল
  • মিশু মিলন

নতুন যাত্রী

  • ফারজানা কাজী
  • আমি ফ্রিল্যান্স...
  • সোহেল বাপ্পি
  • হাসিন মাহতাব
  • কৃষ্ণ মহাম্মদ
  • মু.আরিফুল ইসলাম
  • রাজাবাবু
  • রক্স রাব্বি
  • আলমগীর আলম
  • সৌহার্দ্য দেওয়ান

আপনি এখানে

ধর্ম-অধর্ম

পশ্চিম দিকে পা দিয়ে ঘুমানো বা বসা জায়েজ/ইসলাম সম্মত কিনা..?


পশ্চিম দিকে পা দিয়ে ঘুমানো বা বসা জায়েজ কিনা-এ নিয়ে আমাদের সমাজে মধ্যে বিতর্ক রয়েছে। আসলে কোরআন, হাদিস ও সালফে-সালিহীনের বক্তব্যে এ বিষয়ে কোনো বিতর্ক পাওয়া যায় না। তবে বর্তমান বিশ্বে এ নিয়ে কিছুটা বিতর্কের সৃষ্টি হয়েছে।

সেদিন মানুষের জন্য আমাদের প্রাণ কাঁদেনি, কেঁদেছিলো ধর্মের জন্য।


মিয়ানমারে উগ্র বার্মিবাদীদের হাতে যখন রাখাইনরা নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়েছিলো, তখন আমাদের দেশের মানুষের মানবতা অন্তত প্রথম বারের জন্য হলেও উঁকি দিয়েছিলো। আমরা যারা মানুষের জন্য মানুষের মন সিক্ত হওয়ার মতো জগৎশ্রেষ্ঠ সুন্দর দৃশ্যটি দেখার অপেক্ষায় ছিলাম, তারা খুশি হলাম এই ভেবে যে, যাক আমরা শেষ পর্যন্ত মানুষ হতে পারলাম! মানুষের জন্য কাঁদার মানসিকতার মতো মনোহরবৃত্তি জগতে আর কিছু নেই। আমরা সেটা রপ্ত করে ফেলেছি!

ইসলামের বিধান : লুইচ্চাকে লুইচ্চা না বলে সর্বশ্রেষ্ঠ মহাপুরুষ বলতে হবে, না বললেই কল্লা কাটা যাবে


প্রথমেই জানা দরকার , সমাজে লুইচ্চা কাকে বলে ? ঘরে বউ রেখে , যদি কোন পুরুষ মানুষ অন্য লোকের স্ত্রীর সাথে ফষ্টি নষ্টি করে , তারপর নানা কায়দা করে তাকে বিয়ে করে ঘরে তোলে , তাহলে এই ধরনের পুরুষকে লুইচ্চা বলে। লুইচ্চা টাইপের পুরুষকে কেউ সম্মান করে না , সমালোচনা করে , তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করে। বাংলাদেশের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট এরশাদ এ ধরনেরই একজন লুইচ্চা । ঘরে বউ রেখে , সে অন্যের স্ত্রীর সাথে প্রেমলীলা করে তাকে নিয়ে ফুর্তি করত। তার কারনে কিছু নারীদের সংসার ভেঙ্গে গেছে। তাকে নিয়ে এক সময় দেশের মানুষ রঙ্গ তামাসা করত , সমালোচনা করত।

নাস্তিক না আস্তিক?


সত্য বলো খোকা তুমি আস্তিক না নাস্তিক,
সত্য হল আমি অজ্ঞেয়বাদী।

আস্তিকদের সম্পর্কে আমার কখনো তেমন উচু ধারনা ছিল না, এবং গত ৫ বছর নাস্তিক, ও আজ্ঞেয়বাদীর পরিচয় ব্যাবহার করে বাংলা ভাষা ব্যবহার করা নাস্তিকদের সাথে কথা বলবার সুযোগ হবার পরে তাদের নিয়েওে কোন উচু ধারনা নেই। গত ৫ বছরে অনেক মূর্খে ও পিশাচ টাইপ নাস্তিকের সাথে পরিচয় হবার সুযোগ হয়েছে।

মুমিনরা চেষ্টা করেও আর তাদের আসল চেহারা লুকাতে পারছে না


অবশেষে জানা গেছে , কথিত টিটু রায় ইসলামের অবমাননা করে নাই , করেছে খুলনা থেকে মাওলানা হামিদি নামের এক মুমিন। মাওলানা মানে সে ইসলামে পন্ডিত ও মাদ্রাসার ডিগ্রীধারী। কিন্তু মুমিনরা কি এখন এই হামিদির বিরুদ্ধে আল্লাহু আকবর বলে ধ্বনি দিয়ে তার বাড়ী ঘর পোড়াতে গেছে? কোন প্রতিবাদ করেছে ? বিচার চেয়েছে ? যেমনটা তারা করেছিল টিটু রায়ের ক্ষেত্রে ? করে নি। কারন কি ? কারন ইহাই মুমিনের আসল চেহারা , ইহাই ইসলামের আসল শিক্ষা।

প্রাগৈতিহাসিক সাম্প্রদায়িক মনোভাব, ধর্মঘেষা শিক্ষাব্যবস্থা এবং মধ্যপন্থি মেজরিটি সংখ্যালঘু নির্যাতনের প্রধান কারণ।


যে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় সাম্প্রদায়িক উস্কানিমুলক প্রশ্ন করা হয়, সেই দেশে একটা হিন্দুপল্লিতে মুসলমান কর্তৃক আগুন দেয়াকে বড় কোন অঘটন হিসেবে না ভাবলেও চলবে! অন্তত আমি ভাবি না। রংপুরের সংখ্যালঘু নির্যাতনের মানসিকতা এ দেশের মুসলমানদর মধ্যে একদিনে তৈরী হয়নি। বহুকাল আগেই এই ধর্মীয় সন্ত্রাসের বীজ রোপিত হয়েছিলো এ দেশে।

কেন শরিয়া বা ইসলামী আইন সমস্ত সমাজের জন্য খারাপ?


বাংলাদেশর সাধারণ মুসলিমরা কেন ইসলামিক আইনকে প্রত্যাখ্যান করে।যেখানে বাংলাদেশ ৯৫% মুসলিম ধর্মাবলীদের দেশ।তার পরেও কেন শরিয়া আইন অকার্যকর?এইটা কি ইসলাম ধর্মের দূর্বলতাকে প্রমান করে না?

মাদার অব হিউম্যানিটির দেশে ধুকছে মানবতা


শুরু করছি রবি ঠাকুরের একটি কবিতায়----

"ক্লান্তি আমার ক্ষমা করো প্রভু,
পথে যদি পিছিয়ে পড়ি কভু।।
এই-যে হিয়া থরোথরো কাঁপে আজি এমনতরো
এই বেদনা ক্ষমা করো, ক্ষমা করো, ক্ষমা করো প্রভু।।

পৃষ্ঠাসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর