নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 10 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • আমি অথবা অন্য কেউ
  • নুর নবী দুলাল
  • ইকারাস
  • দুরের পাখি
  • দীপঙ্কর বেরা
  • সাইয়িদ রফিকুল হক
  • ফারুক
  • রাফিন জয়
  • রাহাত মুস্তাফিজ
  • পৃথু স্যন্যাল

নতুন যাত্রী

  • রবিঊল
  • কৌতুহলি
  • সামীর এস
  • আতিক ইভ
  • সোহাগ
  • রাতুল শাহ
  • অর্ধ
  • বেলায়েত হোসাইন
  • অজন্তা দেব রায়
  • তানভীর রহমান

আপনি এখানে

ধর্ম-অধর্ম

ওয়াজমাহফিলের নামে সাধারণ ধর্মপ্রাণ মানুষকে ধর্মান্ধ, গোঁড়া ও জঙ্গি বানানো হচ্ছে


এখন শীতকাল। আবহাওয়া শুষ্ক আর বৃষ্টিহীন। তাই, যেকোনোস্থানে একটা তাঁবু বা প্যান্ডেল টানিয়ে ইচ্ছেমতো ইসলামধর্মের নাম-ভাঙ্গিয়ে নিজেদের স্বার্থহাসিলের ব্যবসা করা যায়। আর স্বাধীন-বাংলাদেশে ওয়াজের ব্যবসা সবসময়ই জমজমাট। বাংলাদেশে শীতকাল হলো ওয়াজের ভরা মৌসুম। এইসময় ওয়াজকারীদের (ওয়াজীনদের) খাতিরযত্ন আর তোয়াজটা একটু বেড়ে যায়। আর তাতেই এরা খুব জোশে ওয়াজের নামে আবোলতাবোল-কথাবার্তা শুরু করে দেয়। আর টাকার গরমে এদের মাথা ঠিক থাকে না।

যে বন্দিনী নারী ধর্ষন করবে না , সে সহিহ মুমিন না


অনেক মুমিন বলে - ঠিক মতো রোজা নামাজ করলে , সে সহিহ মুমিন। আবার অনেকেই আছে যারা তাবলিগ জামাত করে , আর ভাবে ইসলামের দাওয়াত পৌছে দিলেই খাটি মুমিন হওয়া গেল। বস্তুত: এরা কেউই কোরান হাদিস ভাল মত পড়ে ইসলাম পালন করে না , সবাই আসলে শুনে মুসলমান আর নিজেদের মনমত ইসলামের একটা বিশ্বাস ও বিধান তারা মনে মনে রচনা করেছে আর ভাবে সেটাই খাটি সহিহ ইসলাম। কিন্তু কোরন- হাদিস বলছে ভিন্ন কথা।

সর্বশেষ নবী সর্বশ্রেষ্ঠ না (পর্ব ০১)


শিরোনামের বক্তব্য তীর্যক ও সরাসরি। লেখার শেষ-সিদ্ধান্তও তাই। অত্যন্ত নিরাবেগ এবং নির্মোহ দৃষ্টিভঙ্গী নিয়েই লেখাটি পড়ার আবেদন থাকবে। যুক্তি উপস্থাপনায় যুগ-যুগ ব্যাপী লালিত আবেগের উপর কুরআনের দিক-নির্দেশনাকেই সর্বাধিক গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। যে বিষয়টি অনেকের জন্য আপাত-আহত হবার কারণ হবে তা আমার জন্যও কোন সময় যে ছিল না তা নয়। তবে সত্য সবসময়ই সুন্দর, শক্তিশালী এবং শেষবিচারে তা সবার জন্য সর্বাধিক কল্যাণকর।

তাবলীগজামাত বাংলাদেশের যুবসমাজকে ধর্মান্ধ ও বিকলাঙ্গ বানাচ্ছে


বাংলাদেশের একশ্রেণীর সস্তা-মুসলমান তথা নামধারীমুসলমান এখনও ইসলাম বলতে বোঝে শুধু দাঁড়ি—টুপি আর পায়জামা-পাঞ্জাবি—কিংবা আলখাল্লা-জোব্বা। আর এরা মনে করে থাকে এগুলো জীবনে ব্যবহার করতে পারলেই সে একচান্সে মুসলমান। এই নামধারীমুসলমানের মধ্যে সবসময় এই চেতনাই কাজ করছে। আর তাই, এরা শুধু আজকের দিনে বাংলাদেশসহ ভারতীয় উপমহাদেশে দাঁড়ি-টুপি আর পায়জামা-পাঞ্জাবির জোরে মুসলমান হতে চাইছে।

বদর-যুদ্ধ কি যুদ্ধ ছিল, নাকি ডাকাতি


বদর যুদ্ধের কথা শোনে নি , এমন কোন মুসলমান নেই। বলা বাহুল্য, সবাই জানে মক্কাবাসীরা মুহাম্মদ ও ইসলামকে ধ্বংস করার জন্যে ১৩০০ জনের এক বাহিনী নিয়ে মদিনা আক্রমন করতে যাচ্ছিল, বদর প্রান্তরে মুহাম্মদ মাত্র ৩১৩ জন সৈন্য নিয়ে মক্কাবাসীদেরকে মুকাবিলা করে তাদেরকে পরাস্ত করে , আর তার ফলেই ইসলাম ও মুহাম্মদ দুইটাই রক্ষা পায়। কিন্তু প্রকৃত ঘটনাটা কি ?

হিন্দু ধর্মের ইতি বৃত্ত, পর্ব ০৩


আমরা আরো কিছুক্ষণ হিন্দু ধর্মের আরো কিছু দেব-দেবীদের জন্মবৃত্তান্ত ও তাদের পরিচয় সংক্ষিপ্তভাবে জেনে নিয়ে এই ধর্মের নিয়ম কানুন, বিধি বিধান, রীতিনীতি নিয়ে আলোচনায় মনোনিবেশ করবো।

"আল্লামা শফির নেত্রকোনা সফর"


তেঁতুল তত্ত্বের জনক আল্লামা চু** পো শফির আগমনে জনমনে ইত্ত আগ্রহ দেখে পুলকিত হয়েছি...যেই লোক বলে "মেয়েরা হলো তেঁতুল,,তাদের দেখলে জিবে জ্বল আসে তার,,তাই তাদের ক্লাস ফোর পর্যন্ত পড়ানো উচিত"..তিনি একসময় শেখ হাসিনা বিরোধী ছিলেন তারপর মাইরের কারনেই হোক আর রেলওয়ের বত্রিশ কোটির জমির জন্যই হোক তিনি ঠান্ডা হয়ে গেলেন ..তাকে নিয়ে এত অর্ভথনা জানানোর কোন যুক্তি দেখি না..কয়েকজন উল্লসিত জনতা আমাকে জানালো "আল্লামা চু** শফি'র হাতের স্পর্শ পেলেও নাকি সওয়াব,,তার কাছে থাকলেও সওয়াব,,আমরা দু'শ মোটরসাইকেল নিয়ে আসছি এটাও সওয়াব" ..অতিরিক্ত লালাযুক্ত এই ব্যক্তিকে অর্ভথনা জানানোর জন্য তাই একদলা থুথু নিক্ষেপ করলাম(বিশ্

কারবালার যুদ্ধ কি সত্যিই হয়েছিল?


হিজরী তৃতীয়ের শেষ দিকে ও চতুর্থ শতক শুরুর দিকে মুসলিম ইতিহাস প্রথম ইমাম তাবারীর (৮৩৯-৯২৩ খ্রীঃ) দ্বারা লিখিত হয়| ভিন্ন ব্যক্তির শোনা কথার উপর ভিত্তি করে এই লেখা| কেউ কোন ঘটনার সাক্ষী ছিল না। তাবারী তার বইয়ের শুরুতে বলেছেন যে, যে সব অসংগত ঘটনা তিনি বর্ণনা করেছেন তার জন্য তিনি দায়ী নন বরং যারা তাকে বলেছেন তারাই দায়ী| পারসিক পুরোহিতমন্ডলীগণ (Magian) তাকে যে ভাবে উপদেশ দিতেন এবং তার রাজকীয় নিয়োগ-কর্তাদের আদেশ অনুযায়ী তিনি তার বই লিখেছেন।

ধর্ম,দর্শন ও বিজ্ঞান-৮ঃ আস্তিকতা-নাস্তিকতা এবং নৈতিকতা ও বিবর্তনবাদ


মানুষের অনু-পরমানু এবং ঐ নিম্ন শ্রেনীর প্রানীটির অনু-পরমানু একই সেলে, একই বিন্দুতে কেন্দ্রিভূত[ বিগ ব্যাং কালীন] ছিল_এখনও মহাবিশ্বের সকল অনু-পরমানুর মধ্যে একই ওয়েভ ফাংশন ক্রিয়াশীল_যে কোন বিন্দুর স্পন্দনে অন্য বিন্দু গুলোও স্পন্দিত হয়।

বাঙালি নাকি মুসলমান?


বাঙালি নাকি মুসলমান? জাতির জনক কে, ইব্রাহীম নাকি শেখ মুজিব? এ প্রশ্ন দু'টো বাংলাদেশে বেশ প্রচলিত। উত্তরটাও মোটে অপ্রচলিত নয়। এদেশের আমার মনে হয় নব্বই ভাগ মানুষই নিজেকে বাঙালি হিসেবে কল্পনা করতে লজ্জাবোধ করলেও তিনি যে মুসলমান সেটা অকুণ্ঠ স্বীকার করেন। আর শেখ মুজিব যে জাতির জনক নন বরং ইব্রাহীম সে ব্যাপারেও এই নব্বই জন বেশ অটল। মজার বিষয় হচ্ছে ইনাদের জিয়াকে অথবা জিন্নাহকে জাতির পিতা মানতে কখনোই কোন সমস্যা হয়নি। অবশ্য পালিত প্রাণী কখনোই তার পালকের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেনা।

পৃষ্ঠাসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর