নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

শিডিউল

ওয়েটিং রুম

There is currently 1 user online.

  • মিঠুন বিশ্বাস

নতুন যাত্রী

  • ফজলে রাব্বী খান
  • হূমায়ুন কবির
  • রকিব খান
  • সজল আল সানভী
  • শহীদ আহমেদ
  • মো ইকরামুজ্জামান
  • মিজান
  • সঞ্জয় চক্রবর্তী
  • ডাঃ নেইল আকাশ
  • শহিদুল নাঈম

আপনি এখানে

ধর্ম-অধর্ম

কুরআন অনলি রেফারেন্স: (২৬) গুপ্তহত্যা ও বনি কেইনুকা গোত্র উচ্ছেদ!


আদি উৎসের বিশিষ্ট মুসলিম ঐতিহাসিকদের বর্ণিত সিরাত ও হাদিস গ্রন্থের বর্ণনায় আমরা জানতে পারি, বদর যুদ্ধে কুরাইশদের সংখ্যা ছিল প্রায় ৯৫০ জন আর মুহাম্মদ অনুসারীদের সংখ্যা ছিল প্রায় ৩১৩ জন। তা স্বত্বেও কুরাইশরা মুহাম্মদ ও তার অনুসারীদের কাছে অত্যন্ত করুণভাবে পরাজিত হয়েছিলেন!জগতের প্রায় সকল ইসলাম বিশ্বাসী পণ্ডিত ও অপণ্ডিতরা বদর যুদ্ধের এই অভূতপূর্ব সফলতাকে 'আল্লাহর করুণা ও অলৌকিকত্বের' এক উদাহরণ হিসাবে বিশ্বাস করেন। তাঁদের এই বিশ্বাসের মূল উৎস হলো স্বঘোষিত আখেরি নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)। মুহাম্মদ তার স্ব-রচিত জবানবন্দি 'কুরআনে' এই সফলতার পেছনের কারণ হিসাবে তার কল্পিত আল্লাহর পরম করুণা ও অলৌকিক

একি শষ্যের মাঝে ভূত, নাকি ভূত শষ্যটাই!?


জানলাম চুরি ডাকাতি কেন হয়!!

নামাজ রোজা না করলে, যাকাত না দিলে চুরি ডাকাতি হয়৷ আমি ধরে নিলাম চোর ডাকাতরাই রোজা নামাজী কারণ তাদের ঘরে চুরি ডাকাতি হয়না৷ ময়নার ঘরে ডাকাতি হলো গতকাল ঈদের দিনে, তার মা বাবা বোন সবাই ময়নারে তালিম দিচ্ছে, তুই নামাজ পড়িসনা, রোজা রাখিসনা, যাকাত দিসনা তাই তোর সাথে এমন হয়৷ ময়না ব্যতিত আর সবাই ধার্মিক৷ কিন্তু ক্ষতিটা হলো ময়নার চেয়ে তাদের ছেলের মানে ময়নার ভাইয়ের৷ মানে তাদেরই যারা নামাজ রোজা যাকাত সব পালন করেন৷ এ বিষয়ে তারা নিজেদের কথায় নিজেরা আটকা৷ অর্থ্যাৎ তাদের নামাজ রোজা যাকাত কোন কাজে আসলো না৷

বেহেস্ত না কি পতিতালয় ?


ইসলামে বহুল প্রচলিত একটি প্রলোভন হল - হুর । বেহেস্তে নাকি একজন পুরুষ একাধিক হুরের অধিকারী হবে !
এখন কথা হল হুর কি ? ইসলামী ধর্মগুরুদের মতে , হুর হল বেহেস্তে অবস্থানকারী অতি অপরূপা রমনী যাদেরকে আল্লায় শুধু মাত্র বেহেস্তী পুরুষদের জন্য সৃষ্টি করেছেন । এবার এসম্পর্কে কোরানের কিছু আয়াত দেখি -
সূরা আন- নাবা : ৩১ থেকে ৩৪ আয়াতে বলা হয়েছে , " পরহেযগারদের জন্য রয়েছে সফল্য, উদ্যান , আঙুর , সমবয়স্কা পূর্ণযৌবনা তরুণী এবং পূর্ণ পান পাত্র "
অর্থাৎ , যারা বেহেস্তী তারা উদ্যান ,আঙুর তো পাবেনই সাথে পাবেন যৌবনদিপ্ত নারী আর ড্রিংকস ।

কথিত সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ নবী কিভাবে লম্পট হতে পারে ?


লম্পট কাকে বলে ? সাধারন কোন লোক যদি নিজের ঘরে স্ত্রী থাকার পরেও অন্য কোন বিবাহিতা স্ত্রীর সাথে অবৈধ প্রেম করে বা করার চেষ্টা করে , তাহলে তাকে আমরা লম্পট বলে অভিহিত করি। সেই হিসাবে আমাদের দেশের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ছিলেন একজন লম্পট। কারন তিনি ঘরে স্ত্রী থাকার পরেও জিনাত মোশারফের সাথে প্রেম লীলা চালিয়ে গেছেন অনেকটা প্রকাশ্যেই। এবার আসুন দেখি আমাদের কথিত নবী মুহাম্মদ কোন ক্যটাগরিতে পড়েন।

মুক্তমনা শাহজাহান বাচ্চুকে হত্যা: ইসলামের সাথে ইহার কোনই সম্পর্ক নাই!


মাত্রই গতকাল অনলাইন জগতে পরিচিত মুক্তমনা শাহজাহান বাচ্চুকে হত্যা করা হলো। ইসলামের নামে চলা অন্ধ বিশ্বাস, কুসংস্কারের বিরুদ্ধে লিখতেন যা ইসলামী বিধানে ভয়াবহ অপরাধ।সেই অপরাধেই সহিহ মুমিনরা তাকে হত্যা করেছে। যারা অনলাইনে বিচরন করেন ও তাকে চেনেন , সবাই কিন্তু এক বাক্যে এটাই বলবে। কিন্তু এখনই সরকার পক্ষের পুলিশ বলা শুরু করবে - ব্যাক্তিগত দ্বন্দ্বের কারনে হত্যা কান্ড ঘটেছে , সাধারন মুসলমানরা বলবে - ইসলামের সাথে ইহার কোনই সম্পর্ক নাই।

ছোট দুটি বুলেট আবারও ভাইরাস আক্রান্তদের শিকার একজন প্রগতিশীল মুক্তচিন্তক।


প্রতিদিনের মতো প্রাত্যাহিক কাজগুলো শেষ করে আজও অনলাইনে আসলাম। বিভিন্ন গ্রুপে আমার পোস্টের মন্তব্যের উত্তর দিচ্ছি, তখনই একটি গ্রুপের পোস্ট চোখে পড়লো, একজন অনলাইন এক্টিভিস্ট, প্রগতিশীল, মুক্তচিন্তক, সহজ সাধারন মানুষ 'শাজাহান বাচ্চু' ভাইয়ের হত্যার খবরটি দেখতে পেলাম। আমি যথারীতি বাকরুদ্ধ ও হতাশ হয়ে পরলাম। কিছু লিখব না কি চুপ করে আবারও নিজেকে শান্তনা দিয়ে যাব কিছু চিন্তা করতে পারছি না। ওনার ব্যাপারে বলতে গেলে ব্যক্তিগত তেমন জানাশোনা ছিল না। আমার বন্ধুতালিকায় যুক্ত ছিলেন একসময়। পরে হয়ত কোন কারনবশত ছিলেন না। আর আমরা যারাই অনলাইনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লেখালেখি করে আসছি সেই সূত্র ধরেই পরিচয় স্বল

কথিত ইসলামী পন্ডিতরাই সারাক্ষন প্রমান করে যাচ্ছে মুহাম্মদ হলো ভন্ড নবী


মুসলমানরা যদি একটু ঠান্ডা মাথায় যৌক্তিকভাবে চিন্তা করত, তাহলে বুঝতে পারত , তাদের কথিত ইসলামী পন্ডিতরাই আসলে ইসলাম যে একটা ভূয়া ধর্ম সেটাই প্রবল ভাবে প্রমান করে যাচ্ছে প্রতি নিয়ত। তারা যে একবার তৌরাতে , একবার ইঞ্জিলে , একবার হিন্দুদের ভবিষ্য পুরানে , একবার কল্কি পুরানে মুহাম্মদের নাম আবিস্কার করছে, তারা কি একবারও ভেবে দেখেছে যে , এতে করে চুড়ান্ত ও যৌক্তিকভাবেই মুহাম্মদ একজন প্রকৃতই ভন্ড ও প্রতারক হিসাবে প্রমানিত হচ্ছে ?

মুহাম্মদের নাম বাইবেলে থাকলে , মুমিনদের এই মুহুর্তে ইসলাম ত্যাগ করা উচিত


আহমেদ দিদাত ও ডা: জাকির নায়েক এক সময় বাইবেলে মুহাম্মদের নাম আছে বলে বিপুল প্রচারনা চালাত। সিংহ ভাগ সাধারন মুসলমানরা সেটা বিশ্বাসও করেছিল এবং এখনও করে। এই প্রচারনায় বিভ্রান্ত হয়ে অনেক খৃষ্টানও ইসলাম গ্রহন করেছিল। ঘটনা যদি সত্য হয় ,তাহলে ঠিক এই মুহুতেই সব মুসলমানের ইসলাম ত্যাগ করা উচিত। কেন ত্যাগ করা উচিত , সেটা এখন বলা হবে।

পৃষ্ঠাসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর