নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 5 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • অবাক ছেলে
  • মাহফুজ উল্লাহ হিমু
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • দ্বিতীয়নাম
  • মিশু মিলন

নতুন যাত্রী

  • রবিউল আলম ডিলার
  • আল হাসিম
  • মাহের ইসলাম
  • এহসান মুরাদ
  • ফাহিম ফয়সাল
  • সানভী সালেহীন
  • সাঞ্জানা প্রমী
  • অতৃপ্ত আত্বা
  • মনিকা দাস
  • আব্দুল্লাহ আল ম...

আপনি এখানে

মুক্তচিন্তা

মুক্তচিন্তা

মুহাম্মদের সমালোচনা করলে মুমিনরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে , কিন্তু আল্লাহর সমালোচনা করলে কিছু বলে না , কারন কি ?


একটা বিষয় বেশ চোখে পড়ার মত। আল্লাহকে নিয়ে কিছু বললে , মুমিনরা তেমন উত্তেজিত হয় না কিন্তু মুহাম্মদকে নিয়ে কিছু বললেই সাথে সাথে ক্ষিপ্ত বর্বর পশুর মত আচরন করে। কারনটা কি ? আমি এ বিষয়ে গবেষণা করে কিছু তথ্য বের করলাম।

যারা ধার্মিক , তাদেরকে কি মানসিক রোগী বলা যায় ?


দুনিয়াতে বহু ধর্ম আছে , তার মধ্যে খৃষ্টান , ইসলাম , হিন্দু , বৌদ্ধ , ইহুদি ইত্যাদি ধর্ম প্রধান। প্রতিটা ধর্মের কাহিনী ভিন্ন ভিন্ন এবং দেখা যাবে , প্রায়ই আজগুবি সব কাহিনী যার সাথে ঠাকুরমার ঝুলির গল্পের মত অনেক মিল পাওয়া যাবে। মনে হয় ঠাকুরমার ঝুলির কাহিনী ছোট বেলায় যে কোন ধর্মের কাহিনী বলে চালিয়ে দিলে , এক সময় সেই ধর্মের অনুসারীরা সেইসব কিচ্ছাকেও সত্য বলে বিশ্বাস করত। কথা হচ্ছে , আজকের এই বিজ্ঞানের যুগে , যুক্তি তর্কের যুগে , যারা ধর্মের নানা উদ্ভট কিচ্ছা কাহিনীকে সত্য বলে বিশ্বাস করে , তাদেরকে কি মানসিক রোগী বলা যাবে ? মনোবিজ্ঞান কি বলে ?

ধর্ষণের জন্য নারীর পর্দা দায়ী হলে আগে পুরুষের পর্দা জরুরী



সত্যি কথা বলতে পুরুষের জন্যই পর্দার আয়াত প্রথমে নাযিল হয়েছে। পরবর্তীতে নারীর পর্দার আয়াত নাযিল হয়েছে।

সুরা নূরের ৩০ নম্বর আয়াতে মহান আল্লাহ্‌ বলেছেন- "মুমিন পুরুষদেরকে বলুন, তারা যেন তাদের দৃষ্টি নত রাখে এবং লজ্জাস্থানের হেফাযত করে। এতে তাদের জন্য খুব পবিত্রতা আছে।"

এর পরের আয়াত অর্থাৎ সুরা নূরের ৩১ নম্বর আয়াত মহান আল্লাহ্‌ নাযিল করেছেন নারীদের পর্দার জন্য।

ধর্ষণের দায় নারীর পোশাকের নয়, পুরুষের অনিয়ন্ত্রিত প্রবৃত্তির!


আজ থেকে প্রায় বছর দশেক আগের কথা। চট্টগ্রাম হালিশহর এ ব্লক-বি ব্লক এলাকায় একটা মানসিক ভারসম্যহীন মেয়ে ছিলো। প্রায়শই মেয়েটির পরনে তেমন কোন জামা-কাপড় থাকত না। আমার স্মৃতি যদি বিশ্বাসঘাতকতা না করে, তবে আমার মনে আছে মেয়েটি অধিকাংশ সময় গর্ভবতী অবস্থায় থাকতো। আকাশ সংস্কৃতির আগ্রাসনে এ দেশের মেয়েরা পশ্চিমা ঢংয়ে চলতে গিয়ে যে বোরকা-হিজাব পরিত্যাগ করেছে, আমাদের দেশের বিরাট ছাগু সম্প্রদায়ের মতে দেশে প্রকটাকার ধারন করা ধর্ষণের কারণ সেটা, কিন্তু সেই বিরাট বিজ্ঞ গোষ্ঠীর প্রতি আমার প্রশ্ন- সেই মানসিক ভারসম্যহীন মেয়েটি কি করণে কিছুদিন পরপর গর্ভবতী হতো?

শফি হুজুরদেরকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা!


মেয়েদের পোশাক নিয়ে মোশারফ করিমের ‘ইসলাম বিরোধী’ মন্তব্যে অনলাইন অফলাইন তোলপাড়। তিনি ধর্ষণের কারণ হিসেবে পোশাক নয় বরং বিকৃত মস্তিষ্ককে দায়ী করেছিলেন। এটা কিনা হয়ে গেলো ইসলাম বিরোধী মন্তব্য? তাহলে কি ইসলাম ‘অশালীন’ পোশাক পরা মেয়েদের ধর্ষণের অনুমতি দেয়? এটা জিজ্ঞেস করে ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে ৭দিনের ব্যান খেলাম সাথে বেশ্যা-মাগী জাতীয় উপাধিসহ ধর্ষণ ​ও হত্যার হুমকি।

বুদ্ধি প্রতিবন্ধির বাংলাদেশ



অনেকদিন পর ইস্টিশন ব্লগে আমার আইডিতে লগইন করলাম,মনে করেছিলাম পার্সওয়ার্ড ভুল করব কিন্তু না ঠিকমত লগইন হল।আমি সর্বশেষ একটিভ হয়েছিলাম প্রায় বছর দেড়েক আগে।ব্যক্তি্গত কিছু সমস্যা ও নতুন চাকুরিতে ব্যাস্ত থাকার কারনে আসা হয়নি।এরমধ্যে পদ্মা-মেঘনার অনেক জল বয়ে গেছে যা আমাদের যানা।কিন্তু কিছু কিছু ঘটনা আসলেই খুব চিন্তায় পেলে দেয়।মৌলবাদী ও চরম ধর্মিয়
বুদ্ধিপ্রতিবন্ধিতে দিনদিন দেশ চেয়ে যাচ্ছে। সাম্প্রতি জাফর ইকবাল স্যারের উপর হামলা অভিনেতা মোশারফ করিমের বাড়িঘরে হামলা! আসলে কি হচ্ছে বাংলাদেশে?

খোলা মাঠ চাই!!!


খোলা মাঠ চাই!!!

স্কুল, কলেজ আর বিশ্ববিদ্যালয়ে মাঠ থাকতেই হবে। অনেক বড় না হলেও মাঝারি সাইজের মাঠ। যেখানে সবাই দৌড়াবে, আকাশ দেখবে, মুক্ত বাতাসে বুক ভরে নিঃশ্বাস নিবে। ক্লাসের ফাকে, টিফিনে বা ক্লাস শেষে খেলাধুলা হবে। কেউ ফুটবল খেলবে, কেউবা ক্রিকেট। ছোট্ট ছোট্ট ছেলেমেয়েরা হুদাই দৌড়াবে। ছোঁয়াছুঁয়ি খেলবে বা কানামাছি। শীতে খেলবে ব্যাডমিন্টন সেই একি কোর্টে খেলবে দারিয়াবান্দা। বউছি খেলবে, গোল্লাছুট খেলবে। ছেলেরা বোম্ববাস্টিক বা সাত চাড়া খেলবে। একজন আর একজনকে বল মেরে লাল করে ফেলবে।

ভাই, বিমান চালাতে কি নুনু লাগে?


এই লেখার শিরোনামটা যদি এভাবে করি- ভাই বিমান কি নুনু দিয়ে চালায়!? তবে কি বলবেন অশ্লীল বেয়াদব বা আরো কিছু?

বোরকা-হিজাব আসলে শয়তানের আবিষ্কার


মাদ্রাসার নিম্নমানের পাতিহুজুর তথা মোল্লাদের জন্ম পরের জাকাত-ফিতরা-সাদকাহ খেয়ে। এরা পরের ভিক্ষা খেয়ে নিম্নমানের শিক্ষাগ্রহণ করে বাংলাদেশের সাধারণ ও প্রকৃত শিক্ষিতদের তুচ্ছতাচ্ছিল্য করছে। আর জাকাত-ফিতরা-সাদকাহ খাওয়া এই বেজন্মাগুলো নকল করে পরীক্ষায় পাস করে সাধারণ একটা “আলিম-ফাজিল-কামিল” নামের নিম্নমানের ডিগ্রী নিয়ে সমাজের বুকে নিজেদের আলেম-উলামা ভেবে বসে আছে। কিন্তু এইসব বেজন্মার কেউই আলেম-উলামা নয়।

সেনাশাসন, মুখোশবাহিনী, অপহরণ এবং আমার ভাবনা


স্বাধীনতার পর থেকে পার্বত্য চট্টগ্রামে নানা যড়যন্ত্র, সেনাশাসন জারি রয়েছে। ১১ দফা নির্দেশনা জারির পর তা আরো পাকাপোক্ত করা হয়েছে। প্রতিনিয়ত সেটলার বাঙ্গালিদের দিয়ে জায়গা জমি দখল করা হচ্ছে। গণহত্যা, ধর্ষণসহ নানা ছড়যন্ত্রের বীজ বপন করা হচ্ছে।সর্বশেষ বিলাইছড়িতে দুই মারমা তরুণীকে ধর্ষণ এবং যৌন হেনস্তা করা হয়েছে। চাকমা সার্কেলের রাণীকে শারীরিকভাবে নিগৃহীত করা হয়েছে। পাহাড়ে সংঘাত সৃষ্টির পায়তাঁরা চালাচ্ছে সেনাবাহিনী চিহ্নিত কিছু অংশকে মদদ দিয়ে, প্রশাসনিক সুবিধা দিয়ে।

পৃষ্ঠাসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর