নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 7 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • কফিল উদ্দিন মোহাম্মদ
  • দীপ্ত সুন্দ অসুর
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • ড. লজিক্যাল বাঙালি
  • নুর নবী দুলাল
  • দীব্বেন্দু দীপ
  • সুবিনয় মুস্তফী

নতুন যাত্রী

  • আরিফ হাসান
  • সত্যন্মোচক
  • আহসান হাবীব তছলিম
  • মাহমুদুল হাসান সৌরভ
  • অনিরুদ্ধ আলম
  • মন্জুরুল
  • ইমরানkhan
  • মোঃ মনিরুজ্জামান
  • আশরাফ আল মিনার
  • সাইয়েদ৯৫১

আপনি এখানে

উপন্যাস

বাতাসরে গাইতে শোনেন : হারুকি মুরাকামি (২)



এই,কাহিনীর শুরু হইসে ৮ই আগস্ট ১৯৭০, আর শেষ হইসে আঠারদিন পরে- অন্য কথায় একই বছরের আগস্টের ২৬ তারিখে।

ধারাবাহিক উপন্যাসঃ চতুর্থ পর্ব।


এক নিঃশ্বাসে কথাগুলো বলে নিজের রুমে চলে গেলো বিজয়। গতকাল শাহরিয়ার কবিরের মুখে কথাগুলো শুনেছে সে। বিছানার এক পাশে দাদু ঘুমিয়ে পড়েছেন। অর্থির সাথে কথা বলতে ইচ্ছে করছে। কিন্তু রুমে দাদু থাকায় ফোন করলো না বিজয়। বিছানায় শুয়ে ফেসবুকে প্রবেশ করলো। অর্থিকে অনলাইনে পেলো না। টাইমলাইন স্ক্রল করতে করতে ‘আস্তিক বনাম নাস্তিক তর্কযুদ্ধ’ নামক গ্রুপে একটা পোস্ট চোখে পড়লো ওর। কে একজন একটা ব্লগ শেয়ার করে লিখেছে, ‘ দেখুন, আল্লাহর নবীকে নিয়ে কি লিখেছে এই শাহবাগী নাস্তিক।’ লিংক থেকে ব্লগটার ভিতরে গেলো বিজয়। লেখাটার শিরোনাম ‘ নবী মুহম্মদের নারী লিপ্সা’।

ধারাবাহিক উপন্যাসঃ তৃতীয় পর্ব


৫। প্রজন্ম
কলাবাগান ক্রীড়াচক্র মাঠে নেট প্র্যাক্টিস করছে ক্রিকেটাররা। দীর্ঘক্ষণ একটানা ব্যাটিং করে হেলমেট, গ্লাভস খুলে মাঠের মধ্যে বসে পড়লো মাসুদ। কলাবাগানের হয়ে প্রথম বিভাগে খেলে সে । বাংলাদেশ অনুর্ধ্ব-১৯ দলেও তার ডাক পাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।
মাসুদের পাশে এসে বসলো বিজয় । ও নিজেও এক সময় ক্রিকেট খেলতো । মাসুদ আর বিজয় বাল্যবন্ধু । দুজনের বাসাই মোহাম্মদপুরে ।
‘আরেকটা রাজাকারের বিচারের রায় দিলো আজকে ,শুনেছিস?’ বিজয় বললো।
-‘হুম , কাদের মোল্লারে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিছে।হালা রাজাকার । ফাঁসি দেওনের দরকার আছিলো’। মাসুদ বললো।

ধারাবাহিক উপন্যাসঃ দ্বিতীয় পর্ব


৩। সেইসব দিনরত্রি
অনেকক্ষণ ধরে রাস্তা দিয়ে হাঁটছে সে। একা। গন্তব্য কোথায় তা জানে না। হঠাত সামনে রাস্তার উপর উল্টো হয়ে শুয়ে থাকা একটা মানুষ চোখে পড়লো। দ্রুত লোকটার কাছে ছুটে গেলো ও। ভালোভাবে তাকিয়ে দেখতে পেলো লোকটার শার্ট রক্তে ভেজা। বেশ ভয় পেলো সে। লোকটার গায়ে হাত দিয়ে মুখটা ফেরালো। মুখটা তার খুব চেনা। চিৎকার করে কেঁদে উঠলো সে।

ধারাবাহিক উপন্যাসঃ প্রথম পর্বের খসড়া


১। প্রারম্ভিকা। মাঘের শীতে বাঘও কাঁপে।আর উত্তরবঙ্গের বৃদ্ধ-বৃদ্ধাদের মাঝে মড়ক নামে।বগুড়া,রাজশাহী,রংপুর,পঞ্চগড়ের গ্রামগুলোতে সন্ধ্যার পর বাড়ির বাইরে বেরুনো কঠিন হয়ে পড়ে। ঘন কুয়াশায় কাছের জিনিসও দেখা দায়।সবুজ ঘাস,গাছপালা এমনভাবে শিশিরসিক্ত হয়ে থাকে যেন খানিক আগেই বৃষ্টি হয়েছে।এশার নামাযের পরপরই পুরো গ্রাম নীরব হয়ে যায়।

‘শূয়রের বাচ্চা কখনও মানুষ হয় না’ (পর্ব—৪)



মতিনদের ধরতে ওরা ঝড়ের বেগে রওনা হয়ে যাচ্ছিলো। এমন সময় অধ্যাপক লিটু মিয়া ওদের একটু থামতে বললেন। তারপর তিনি ঘরের বারান্দা থেকে নিচে নেমে এসে ওদের কাছে দাঁড়িয়ে বললেন, “তোমরা খুব সাধারণভাবে ওদের ধরতে যাবে। তোমরা আগে থেকে কাউকে কিছু বুঝতে দিবে না। এভাবে দলবেঁধে একসঙ্গে গেলে এলাকার সবাই বুঝে ফেলবে যে, তোমরা কোনো উদ্দেশ্য নিয়ে কোনোদিকে যাচ্ছো। আর এতে ধূর্ত মতিন-চোরাটা পালিয়ে যেতে পারে। তাই বলছিলাম, তোমরা দুই-চারজনের একটা দলগঠন করে একটু দূরে-দূরে হাঁটবে, আর পথ চলবে। এতে কারও মনে কোনো সন্দেহের উদ্রেক হবে না।”
প্রথম পর্বের লিংক: https://istishon.com/?q=node/27123
দ্বিতীয় পর্বের লিংক: https://istishon.com/?q=node/27204
তৃতীয় পর্বের লংক: https://istishon.com/?q=node/27385

সহীহ মুসলমানের চেহারা (দ্বিতীয় পর্ব)


হাঁটতে-হাঁটতে ইসমাইল একসময় আরও বলে, “দোস্ত শোন্, আমার এই মামু শালার ব্যাটা কিন্তু আমলীগ আর কমুনিস্ট না কী জানি কী কয়—তাগরে দুইচক্ষে দেখতে পারে না। সে যদি তোর সামনে আমলীগরে গালিগালাজ করে তুই আবার কিছু কইস না কিন্তু! শালার ব্যাটা মনে অয় একাত্তুরে রাজাকারই আছিলো।”
তাইজুল হতাশ হয়ে বলে, “আচ্ছা। আর চল, কাছে গিয়ে দেহি লোকটা কীরহম মানুষ!”
প্রথম পর্বের লিংক: https://istishon.com/?q=node/27344

সহীহ মুসলমানের চেহারা (প্রথম পর্ব)


সে দেখতে লাগলো: তার চাচা অনেক সময় নিয়ে আজ নামাজআদায় করছে। তাইজুলের এবার সত্যি মনে হলো: সে হয়তো বড় কোনো বুজুর্গ হবে। সে তার চাচার প্রতি মনে আরও ভক্তিভাব আনার সর্বাত্মক চেষ্টা করতে থাকে। আর সে মনে-মনে আল্লাহর শুকরিয়া আদায় করলো: বাঃ এমন একজন বুজুর্গলোক তিনি তাকে মিলিয়ে দিয়েছেন। সত্যি, আল্লাহ রহিম-রহমান!

পৃষ্ঠাসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর