নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নুর নবী দুলাল
  • নাসিম হোসেন
  • মিঠুন সি দাস
  • সংবাদ পর্যবেক্ষক

নতুন যাত্রী

  • নওসাদ
  • ফুয়াদ হাসান
  • নাসিম হোসেন
  • নেকো
  • সোহম কর
  • অজিতেশ মণ্ডল
  • আতিকুর রহমান স্বপ্ন
  • অ্যালেক্স
  • মিশু মিলন
  • আগন্তুক মিত্র

আপনি এখানে

ব্যক্তিগত কথাকাব্য

তুই কাফের! তোকে হত্যা করতে হবে!


ফাহিমের মা দুল কিনে নিয়ে চলে গেল। কিন্তু ফাহিমের কথাগুলো এখনো আমার কানে বার বার বাজছে। তুই কাফের! তোকে হত্যা করতে হবে! তোদের ভগবান কাফের.... ফাহিমের বয়স ৭-৮ বছর। বলা যায় অবুঝ মনের অবোধ একটা বালক। অথচ এসব বালকদের প্রিয় কার্টুন ছবি ডরিমন নিয়ে গল্প করার কথা ছিল। মোবাইলের গেমস নিয়ে গল্প করার কথা ছিল। না হয় সাকিব-তামিমের ব্যাট বল নিয়ে গল্প করার কথা ছিল। তা না করে কোনো কারণ ছাড়া বালকটি তেড়ে এসে আমাকে "কাফের" বলে তৃপ্তি পেল। আমাকে হত্যার ইচ্ছে পোষন করে তৃপ্তি পেল। ফাহিমের কথায় কিইবা অবাক হবো? গত দুই তিন বছরে ইসলামিক স্টেট আইএসের গনহত্যা তো দেখলাম। কিভাবে মানুষের মুন্ডু কেটে তারা পৈচাশিক উল্লাস করেছে। এমন কি আইএসরা তাদের ৭-৮ বছরের শিশুদের দিয়ে আল্লাহু আকবর বলে বলে মানুষ জবাই করা শিখিয়েছে। শিশুগুলোও দারুন উচ্ছাস আর আনন্দে আল্লাহু আকবর বলে বলে তাদের বাপের বয়সি মানুষদের গলা কেটে হাসতে হাসতে এক হাতে মুন্ডু, আরেক হাতে রক্তাক্ত তলোয়ার নিয়ে নৃত্য করেছে। এই চরম বর্বর স্নৃতিগুলো তো ভুলার নয়।

বই মেলা ২০১৭


আগামি শুক্রবারে মামা ভাগ্নে বই মেলায় যাবো।।।।।।। ইশ্টিশনের সকল বন্ধুকে অনুরোধ করতেছি যে সেরা বই, মুক্ত চিন্তা, ইতিহাস, আত্ম জীবনি, ভ্রমন, বইযের তালিকা দিযে সাহায্য করলে খুশি হতাম

কিছু প্রত্যাহার, অনেকের জন্য শুভ!


আমাদের গ্রামটি তিনটি মহল্লায় বিভক্ত। সঠিক ভাবে বললে ঠিক তিনটি মহল্লা নয়, আসলে তিনটি সারিতে বেশ কয়েকটি মহল্লায় ভিভক্ত। দক্ষিণের সারিতে আছে চারটি চারটি মহল্লা। মাঝের সারিতে আছে চারটি মহল্লা। আর উত্তরের সারিটি একটি লম্বা বেশ বড় মহল্লা। এ যেন কোন টিলার ভিত্তিমূল এটি। গ্রামটিকে যদি আড়াআড়ি ভাবে একটির উপর অপরটিকে রাখা হয় তবে উত্তরের মহল্লাটিকে আবশ্যই ভিত্তিমূলে রাখতে হবে। এর উপরই যেন দাঁড়িয়ে আছে অপর দু'টি মহল্লার সারি। শুষ্ক মৌসুমে তিনটি স্বতন্ত্র মহল্লা মনে হলেও বর্ষা মৌসুমের চিত্র সম্পূর্ন ভিন্ন। বর্ষায় বন্যার সময় কিছুটা উঁচু থেকে বা একটু দূরে থেকে দেখলে মনে হতো নয়টি কচুরী পানার ঝো

আমাদের ভুলে যাওয়ার চেষ্টা এবং অস্বীকার করতে চাওয়ার সংস্কৃতি!


সবকিছু ভুলে যাওয়া বা অস্বীকার করার চরম ক্ষমতা নিয়ে আমরা জন্মগ্রহণ করেছি! আর এই ভুলে যেতে পারা বা অস্বীকার করার অসীম ক্ষমতার কারণে ঘটনার পুনরাবৃত্তি দেখি প্রতিনিয়ত। সবই হয়তো সবার জানা, তারপরও স্মৃতিটাকে একটু ঘষামাজা করার চেষ্টা।

"এক নাস্তিকের জবানবন্দী" পর্ব--৬


দেশটাকে কতোটা যে ধর্মান্ধতা গ্রাস করে নিয়েছে, দেশের ভিতরে ভিতরে ধর্মের ক্যান্সার ভাইরাসের মতো কতটা আক্রান্ত করেছে তা বুঝেছি সেদিন। যেদিন পুলিশগুলো আমাকে মুসলমানিত্বের বিশ্বাস থেকে কেটে ফালা ফালা করা উচিত মনে করেছিল। দেশটা পাকিস্তান থেকে স্বাধীনতা লাভ করেছে মাত্র ৪১ বছর পেরিয়েছে। একটি অসাম্প্রদায়িক রাষ্টের জন্য, একটি সেক্যুলার রাষ্ট্র-ব্যবস্থার জন্য, পাকিস্তানী কট্টর সাম্প্রদায়িক ইসলাম ও মুসলমান প্রেমী শাসকদের কাছ থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য শুধু এদেশের ৩০ লক্ষ মানুষ শহীদ হয়েছে! এই বদ্বীপের মানচিত্রের বধ্যভুমিগুলো খনন করলে আজো সেই শহীদদের কঙ্কাল পাওয়া যাবে। সেই স্বাধীন বাংলাদেশের পুলিশ কি করে এতোটা ধর্মান্ধ মৌলবাদ হয়? তাদের ধর্মানুভূতি কি করে পাকিস্তানী শাসকদের মতো এতোটা সহিংস-সাম্প্রদায়িক মনোভাবের হয়?

আজ তুমি নেই... (শেষ পর্ব)


বয়স কম। অনভিজ্ঞ---আদর। দু’জন দু’জনকে আবিস্কারের রাত। প্রথম ২/৩ ঘন্টা বোধহয় গল্প করেই কাটলো। মা্ত্র ২৮দিন এর প্রেমে যে দৌড়োদৌড়ি গেছে, জানাও হয়নি কোনকিছু। এরই মধ্যে এক্কেবারে পাকা বুড়ির মতো বললাম, আমরা কিন্তু বাবু নেবনা এত তাড়াতাড়ি। সো আজ রাত আমরা গল্প করেই কাটাবো। বললে-ঠিক আছে হাতটা দাও, ধরবো শূধু। একটা/দুটো করে চুমু। ক্রমশ: অস্থির সঞ্চালনা। তোমার আব্দার---আজ শুধু দেখবো তোমায়……। তারপর… সব ভুলে গেলাম…….দু’জনে। সেদিন রাতে আমার শরীরে ক’টা তিল আছে, গুণে নিয়েছিলে তুমি….পাকা অংকবিদ এর মতো।।

’ভিন্নথাতে প্রবাহিত’ ও আপন অন্তর্জালীয় মতামত


তিন তারিখের ফেব্রুয়ারি ২০১৭। খাগড়াছড়িতে প্রয়াত শ্রদ্ধেয় চন্দ্রমণি মহাস্থবিরের ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণ দাহক্রিয়া অনুষ্ঠানের জন্য পূন্যার্থীদের মেলা বসেছিল মাটিরাঙ্গা ও খাগড়াছড়ির সীমান্তবর্তী চট্টগ্রাম-খাগড়ছড়ি সড়কের পাশে অবস্থিত একটি বৌদ্ধ বিহারে। অনুষ্ঠানে সমবেত হয়েছিল আবাল-বৃদ্ধ-বণিতা হাজার হাজার জনতা। ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের সাথে উৎসবের পরিবেশও ছিল অনুষ্ঠান প্রাঙ্গনে। সাধারণভাবে বৌদ্ধ ধর্মীয় মতে কোন উপসম্পদা প্রাপ্ত ভিক্ষু স্বাভাবিকভাবে পরিণত বয়সে মারা গেলে মৃত ব্যক্তিকে নিয়ে শোক প্রকাশ না করে তার সদগতি যে লাভ হয় তার জন্য ধর্মীয় বিধানমতে শ্রাদ্ধক্রিয়াসহ ধর্মীয় কর্মসূচি করার বিধান রয়েছে। ধ

এক প্রবাসীর আত্মকথন


বাংলাদেশের প্রবাসীরা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছেন। কেউবা মধ্যপ্রাচ্যে অথবা কেউ ইউরোপ আমেরিকায়। কেউবা জীবন সংগ্রামের যুদ্ধ করছেন অথবা কেউ কেউ পড়াশুনার জন্য প্রবাসে আছেন। আমি নিজেও একজন প্রবাসী। এই প্রবাসীদের নিয়েই নিজের ব্যাক্তিগত অভিজ্ঞতার পরিপ্রেক্ষিতে কিছু বাস্তবতা লিখেই ফেললাম।

আগুনজলের এক সহযোদ্ধা


চয়ন যা ধারন করতো তা অকপটে বলতো। আমাকে তার চিন্তাটা শেয়ার করতো প্রতিনিয়ত। শ্রেণী বিভক্ত সমাজে চরম বৈষম্যের ঘেরাটোপে আটকে যাওয়া মানুষগুলো নিয়ে তার ভাবনার অন্ত ছিলোনা। এ নিয়ে অযৌক্তিক কথা বললে সে কাউকে একচুলও ছাড় দিতো না। হোক সে সমাজপতি কিংবা হোমরাচোমরা টাইপের কেউ। এই সৎ সাহসটাই চয়নকে অন্যদের কাছ থেকে আলাদা করেছে। তার আর আমার মধ্যে সম্পর্কের রসায়নটা ছিলো দারুন। কারণ আমাদের বর্তমান সময়ে আগের সবাই কুলাউড়ার বাইরে চলে গিয়েছে। চিন্তা আর কবিতার পাঠশালায় আমরা হারাধনের মতোই ছিলাম কুলাউড়ায়। গ্রামের বাড়ি থেকে রওয়ানা হওয়ার আগেই আমরা দু’জন মুঠোফোনে যোগাযোগ করেই বের হতাম।

আজ তুমি নেই ... (২য় পর্ব)


বিয়ে হলো তোমার-আমার। এরপরের গল্প খুব দ্রুত আগাতে লাগলো। বিকালে বাসায় যাবো আমি। বলতেই তুমি আর রাজী হলেনা। একটু আগেও সবাই এই আলোচনা করছিলাম, এরপর কি হবে? আমি চলে যাবো, কেউ কিছু জানবে না। আমরা এভাবেই পড়াশোনা চালিয়ে যাবো। পরে আব্বু-অাম্মুকে জানাব। কিন্তু যাবার মূহুর্তে বেঁকে বসলে তুমি। হাতই ছাড়বেনা। এক কথা-যা হয় হবে, তুমি আমায় ছেড়ে যাবে না। আচ্ছা যাব না। থেকে গেলাম আমি। আমার তুহিন এর কাছে। বিকালে আম্মু-আমায় নিতে আসলো। এসে শুনলো, স্বাভাবিকভাবেই নিয়ে যাবার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা করলো সে। নানা ভাবে বোঝানোর চেষ্টা করলো। কিন্তু তোমার একই কথা, ও আমার বিয়ে করা বউ, যাবেনা আমার কাছ থেকে। মা-বাধ্য হয়ে বাবা-কে সব খুলে বললেন। সন্ধ্যায় বাদল মামা এলেন নিতে আমায়। ফিরিয়ে দিলাম তাকেও।

পৃষ্ঠাসমূহ

Facebook comments

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর