নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 3 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নুর নবী দুলাল
  • শাম্মী হক
  • সলিম সাহা

নতুন যাত্রী

  • চয়ন অর্কিড
  • ফজলে রাব্বী খান
  • হূমায়ুন কবির
  • রকিব খান
  • সজল আল সানভী
  • শহীদ আহমেদ
  • মো ইকরামুজ্জামান
  • মিজান
  • সঞ্জয় চক্রবর্তী
  • ডাঃ নেইল আকাশ

আপনি এখানে

নাইলন একটি গ্রহের নাম


পৃথিবীতে, বিশেষ করে এশিয়া মহাদেশের অন্তর্গত বাংলাদেশে একটা রহস্যময় ঘটনা ঘটলো। পেপারের কোণায় ছোট করে সংবাদ টা উঠল কিনা জানি না। তবে এই নিয়ে কারও মাথা ব্যাথা রইল না। কর্তৃপক্ষের লোক সামান্য ভ্রু কুঁচকাল, এই যা ব্যস। টেনশন বলতে এই যা এতটুকুই। বাংলাদেশের ঢাকা জেলার শাহবাগ এলাকার মোড়টায় এই নিয়ে একটা ছোট কথা উঠল, অনেকেই শুনল। কেউ গা করল না। ওদিকে হরদম ফুল বিক্রি চলছে। ঘটনা আর কিছু না, পাবলিক লাইব্রেরি থেকে অনেক গুলো বই উধাউ হয়ে গেছে। কোন উপাত্ত ছাড়া ই। এটা কোন কথা হল ? চুরি ও তো হওয়ার কথা না। স্রেফ উধাও।

- কেমন দেখলি ?
- ভালই তো। গ্রহটার নাম কি যেন ?
- পৃথিবী হবে বোধয়। দাঁড়া দেখে নিই...... হুম, পৃথিবী।
- নামবি ?
- নামা যায়। যেই গোলার্ধে রাত সেখানে নামতে হবে। এই গ্রহে বুদ্ধিমান প্রাণী আছে।
- অবশ্যই।

ডায়ালগ থেকে বুঝা গেল এরা এলিয়েন। পৃথিবী তে এসেছে। তাদের মোটিভ বুঝা যাচ্ছে না। এটা কোন ব্যাপার না। পৃথিবীর মানুষগুলো এলিয়েন কে যেভাবে কল্পনা করে এসেছে তারা ঠিক সে রকমই। মোটামুটি বামন আকৃতির,শুকনো হাত পা, চোখটা মায়া মায়া, মাথা টা বড়। এ থেকে বুঝা গেলো, পৃথিবী গ্রহের মানুষের সৃজনীশক্তি কম থাকলেও কল্পনা শক্তি ভাল। তারা যে মহাকাশযান এ করে এসেছে, তা ও সম্পূর্ণ মানুষের কল্পনার সাথে মিলে যায়। একটা পিরিচের মত। সারাক্ষণ এটা ঘুরতে থাকে। গতি অবশ্যই দ্রুত। তা ও যেমন তেমন দ্রুত না। হুট হাট এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় চলে যায়। আর তারা বুদ্ধিমান, অবশ্যই মানুষ থেকে বেশি। কল্পনা অনুসারে নয়, বাস্তবতা থেকে।

তারা দু’জন রাত এর গোলার্ধ বেছে নিলো। পর্যবেক্ষণ চলছে।

- তারা বিদ্যুতের ব্যাবহার জানে।
- হুম, পুরু গোলার্ধ টাই তো জ্বলজ্বলে। সমুদ্রে তো আর নামা যায় না। একটা সমস্যা হল নাকি ?
- ইউরেকা। পেয়েছি একটা অন্ধকার জায়গা। ওই দেখ। এখানেই নামতে হবে।

তারা বাংলাদেশ নামক একটা দেশে নামলো। তখন সে দেশে ইলেক্ট্রিসিটি ছিল না।

গ্রহের নাম নাইলন। এ গ্রহের অধিবাসীরা মাত্র সংবাদ মাধ্যমে খবর পেল তারা একটা গ্রহের অস্তিত্ব খুঁজে পেয়েছে। খবরটা এরকম যে, পাসা ( একটা রিসার্চ ইন্সটিটিউট ) এর বিজ্ঞানীরা সফলভাবে একটি গ্রহের সন্ধান পেয়েছে। তারা এ মুহূর্তে গ্রহের গতি প্রকৃতি সব কিছু বের করার চেষ্টায় আছেন। তাদের দু’জন মহাকাশচারী গ্রহটিতে সফলভাবে আবর্তন করেছে। তাদের পাঠানো তথ্য অনুযায়ী, গ্রহটি নাইলনবাসীদের বাস করার জন্য সম্পূর্ণ উপযুক্ত। অক্সিজেন এ ভরপুর। অবশেষে সংবাদ মাধ্যম যা ভবিষ্যৎবানী করল তা হচ্ছে, অচিরেই বোধয় নাইলনবাসীদের কষ্ট মোচন হতে যাছে।

বলার অপেক্ষা রাখে না, নাইলন গ্রহটা বসবাসের জন্য মোটামুটি অনপযুক্ত হয়ে গেছে। ওদের গ্রহে একটা বিজ্ঞানের সূত্র আছে, “ কোন গ্রহের দূষণ তার উন্নতির সমানুপাতিক।” কোন এক ক্লাস এ এটা তাদের প্রমাণ করতে হয়। গ্রাফ আঁকতে হয়। দেখাতে হয় যে, গ্রাফটা সরলরেখা।

নাইলন গ্রহে উচ্চ পর্যায় থেকে গোল টেবিল বৈঠক বসলো। ঘন্টার পর ঘন্টা আলোচনা হল। নাইলন সাধারণ কে জানানো হল না। তাদের অনেক মতবিরোধ হল। নাইলনবাসী অনেক দ্রুত। তাদের সিদ্ধান্তগুলো ও দ্রুত। তারা সিদ্ধান্তে পৌঁছল, পৃথিবী আক্রমণ করতে হবে। সেখানে তাদের আধিপত্য বিস্তার করতে হবে। এটাই একমাত্র এবং শেষ সিদ্ধান্ত।

নাইলনবাসীদের একটা সমস্যা হল, তারা পৃথিবী সম্পর্কে তেমন কিছু জানে না। কিন্তু যা করার দ্রুত করতে হবে। পৃথিবীটা যে তাদের দখল করতে হবেই। বাই হুক অর বাই ক্রুক। গ্রহের উচ্চ পর্যায়ের একটা লোক তাঁর নাম ‘সাহারাউন’ এর যথাযোগ্য সমাধান দিল, “এটা তো একটা সহজ সমাধান ! তোমরা জান না সাহিত্য জাতির দর্পণ স্বরূপ ? তোমাদের মাথায় কিছু নেই নাকি ? যতসব!” নাইলনবাসী এ কথা থেকেই যা বুঝার বুঝে নিল। আগেই বলা হয়ে গেছে এরা যথেষ্ট বুদ্ধিমান। উচ্চ পর্যায় থেকে পৃথিবী তে অবস্থানরত ওই দুই মহাকাশচারী নাইলন দের বলা হল,
- ওদের কিছু সাহিত্য কর্ম নিয়ে আসো।
- জ্বি স্যার।
- এটাই তোমাদের পৃথিবীতে শেষ কাজ। এর পর ডাইরেক্ট নাইলন। ওকে ?
- জ্বি স্যার।

সাহিত্যকর্ম নিয়ে আনা হল। পৃথিবী গ্রহের বাংলাদেশ নামক দেশের ঢাকা নামক স্থানের একটা লাইব্রেরি থেকে। ‘পাসা’র বিজ্ঞানীরা সেটা নিয়ে সাথে সাথে রিসার্চ করা শুরু করলো।

ওদিকে উচ্চপর্যায় থেকে আক্রমণ এর আয়োজন করা হচ্ছে। মহাকাশ সেনাবাহিনী গঠন করা হয়েছে। একটা প্রজেক্ট করা হল। নাম দেয়া হল, ‘প্রজেক্ট ডট’। নাইলনবাসী দের সবাই জানল তারা একটা গ্রহ আক্রমণ করতে যাচ্ছে। এগুলো কোন যুদ্ধ টুদ্ধ নয়। জাস্ট দখল। নাইলনবাসীদের কাছে এটা কোন ব্যাপার ই না। ওই পৃথিবীবাসীদের আছে ই বা কি ? Be exited, no tension । আক্রমণ এর সব আয়োজন শেষ। মহাকাশ সেনাবাহিনীর লোকরা মনে মনে হাসল। নিজেরা বলাবলি শুরু করলো, দেখবেন বস, ঠিক এক মিনিটের মধ্যে সব ছারখার হবে। প্রস্তুতি সব শেষ হল।

উচ্চপর্যায়ের লোকেরা মোটামুটি সন্তুষ্ট। সর্বচ্চ পর্যায় থেকে ঘোষণা এল আক্রমণের । বাদ সাধল ‘পাসা’র বিজ্ঞানীরা। তারা খুব ব্যতিব্যস্ত হয়ে উচ্চ পর্যায়ের সাথে যোগাযোগ করল। একটা গরমিল হয়েছে। অবশ্যই। এখনি সব থামান দরকার। যোগাযোগ হল। কনভারসেশন তুলে ধরা হল।

- স্যর, একটা সমস্যা।
- .....................।
- আমরা ওই গ্রহ কে আক্রমণ করতে পারি না।
- .....................
- বুঝতে পারছেন না, আমরা ওদের সাথে কুলিয়ে উঠতে পারব না। ওই গ্রহে কয়েকটা অদ্ভুত প্রাণী আছে। এরা পদার্থবিদ্যার সমস্ত সূত্র লঙ্ঘন করতে পারে। আর অনেক বুদ্ধিমান।
- ..................
- বুঝতে পারছেন স্যর ? এদের ইয়ে টা ছিঁড়া ও সম্ভব না।
- ..................

উচ্চ পর্যায় থেকে জরুরী ঘোষণা এল। আজকে থেকেই প্রজেক্ট ডট কলাপজ করা হল। আক্রমণ বাদ। উচ্চপর্যায়ের সামান্য মন খারাপ হল। কিছু করার নেই। পদার্থ বিজ্ঞানের সমস্ত সূত্র লঙ্ঘন করে বলে কথা !

ঢাকা তে দুইটা মানুষের একটু মন খারাপ হল। একটা ষোল বছরের কিশোরের। আরেকটা পঞ্চান্ন বছরের লোকের। তারা দুজন লাইব্রেরি তে। ষোল বছরের কিশোরটির প্রিয় হরর বই টি পেল না। অথচ কয়েকদিন আগে ও দেখে গেলো। লোকটির মনে হল সে খুব সুন্দর একটা ধর্মের বই পাচ্ছে না। বইটা থাকার কথা।

বিঃদ্রঃ দুর্ভাগ্য বশত এলিয়েন গুলো রিসার্চ করতে নিয়ে গিয়েছিল সমস্ত হরর আর ধর্মের বই। তারা বুঝতেও পারে নি তারা কত বড় ভুল করেছে। তারা সাহারাউন এর প্রতি চরম কৃতজ্ঞতা বোধ অনুভব করল। তাকে গ্রহীয় সর্বচ্চ পদক দেয়া হল। তাঁর বুদ্ধির জন্যে ই.........:অ

Comments

বেনসন এন্ড হেজেজ এর ছবি
 

রম্যরচনা একটা

 
সাগর সাগর এর ছবি
 

স্যাটায়ার ভালো হইছে। :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ: :থাম্বসআপ:

 

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

গাজী ফাতিহুন নূর
গাজী ফাতিহুন নূর এর ছবি
Offline
Last seen: 4 years 3 weeks ago
Joined: বুধবার, ফেব্রুয়ারী 20, 2013 - 9:39অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর