নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 5 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • ড. লজিক্যাল বাঙালি
  • নুর নবী দুলাল
  • প্রত্যয় প্রকাশ
  • কাঙালী ফকির চাষী
  • সাইয়িদ রফিকুল হক

নতুন যাত্রী

  • নীল মুহাম্মদ জা...
  • ইতাম পরদেশী
  • মুহম্মদ ইকরামুল হক
  • রাজন আলী
  • প্রশান্ত ভৌমিক
  • শঙ্খচূড় ইমাম
  • ডার্ক টু লাইট
  • সৌম্যজিৎ দত্ত
  • হিমু মিয়া
  • এস এম শাওন

আপনি এখানে

জীবন, নাকি অভিশাপ?


ভোর ৬.৩০...
কল্লোল কেমন আছিস? প্রত্যুত্তরে কল্লোল বলল ভালো আছি, তুই কেমন আছিস রবিন? এভাবে দুইজনের কথা শুরু হলো কমলাপুর রেলস্টেশনের ২ নং প্লাটফর্মের কোনো এক যাত্রীছাউনিতে।কল্লোলের প্রশ্নের প্রত্যুত্তরে রবিন বললো জীবন যেমন রেখেছে তেমন আছি।তারপর কত কথা,কত গল্প হলো দুজনের মধ্যে তা আজ পাঠকের অজানাই থাক।গল্প করতে করতে হঠাৎ তারা শব্দ ফেল দূর-দিগন্তে হর্ণ বাজিয়ে রেলগাড়ি তার আগমনি বার্তা দিচ্ছে,দুই বন্ধু ব্যতিব্যস্ত হয়ে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছিল রেল-গাড়ি স্টেশনে এসে থামার অপেক্ষায়,সবার আগে উঠতে হবে তাই এত ব্যস্ততা। অবশ্য ব্যস্ততার একটি বিশেষ কারণ ও আছে,দুইজনের কেউই টিকেট করেনি। রেলগাড়ি এসে থামলো,সমস্ত যাত্রী নামার আগেই ওরা জানালা দিয়ে ধস্তাধস্তি করে কোনোভাবে উঠল।বিনা টিকেটে উঠেও আজ তারা খালি সিট পেয়ে গেলো চিরাচরিত নিয়মে,এ আর আজ নতুন কি,গত একবছর ধরে এভাবেই যাচ্ছে তাদের।কিছুক্ষণের মধ্যে রেলগাড়ির হর্ণ বেজে উঠল,এইবার বোধহয় তার যাওয়ার সময় হয়েছে।

দেরী না করে রেলগাড়ি চলতে লাগলো তার আপন গন্তব্যে।
ঠক্ ঠক্ শব্দ করে গাড়ি চলছে চলছেই পিছনে ফেলছে তার দুপাশে দাঁড়িয়ে থাকা এই কৃত্রিম শহরটাকে।
চলতে চলতে হঠাৎ জানালা দিয়ে রবিনের চোখ পড়ল পাশের রেললাইনের উপর শুঁয়ে থাকা কতগুলো জন্তু-জানোয়ারের উপর,কি অবাক হচ্ছেন আসলে এরা হচ্ছে বস্তির সেই মানুষগুলো যাদেরকে আমাদের সমাজে জন্তু-জানোয়ার ভাবা হয়,এর বেশি কিছু নয়।রবিন অপলক দৃষ্টিতে চেয়ে রইলো ওই তথাকথিত জন্তুরুপী মানুষ গুলোর দিকে,নিদারুণ এক কষ্টে তার হৃদয় শূন্য হয়ে আসলো,পাশে থাকা কল্লোল বিষয়টা খেয়াল করলো,কল্লোল কিছু না বলে রবিন এর হাতটা চেপে ধরে বললো বন্ধু এত ভাবিস না,এদেরকে নিয়ে ভাববার অনেক লোক আছে।ঠিকই তো বলেছে যেই ছেলে টাকার অভাবে টিকেটবিহীন রেলে চড়ে বেড়ায় সেই ছেলের অন্যদেরকে নিয়ে ভাবাটা কি বেমানান নয়?
রবিন অস্পষ্ট স্বরে বললো বন্ধু তুই বলতো এটা কি ওদের দোষ,চেয়ে দেখনা এই বড় বড় মানুষগুলোর কথা না হয় বাদই দিলাম,কিন্তু এই যে ছোট বালক-বালিকা,কিশোর-কিশোরী,শিশুগুলোর কি দোষ বল?এদের ভবিষ্যত কি হবে?
কল্লোল নিশ্চুপ হয়ে রইলো,রবিন কাঁদো কাঁদো গলায় বললো দেখ এদের গায়ে কাপড় নেই,শোয়ার একটা নির্দিষ্ট জায়গা নেই,খাবার নেই তারপরও এরা হাসছে খেলা করছে,এরা কি বুজে উঠতে পারছে ওরা এই পৃথিবীর মানুষের কাছে কতটা অবহেলিত।জীবন কেন ওদের এত শাস্তি দিচ্ছে?
কল্লোল রবিনকে জড়িয়ে ধরে বললো একদিন আমরা বড় হলে এদেরকে নিয়ে কাজ করবো-এদেরকে সুন্দর পৃথিবী উপহার দিবো।পনের কি ষোল বছর একটা ছেলে এর থেকে আর বড় স্বান্তনা কি দিবে।দুইজন চুপ করে রইলো।এতক্ষণে তারা গন্তব্যের কাছাকাছি চলে এসেছে। দুই বন্ধু আকাশের পানে চেয়ে রইলো,আকাশকে প্রশ্ন করলো আর নিজেকে ধিক্কার দিতে লাগলো,ধিক্কার দিতে লাগলো এই পৃথিবীকে।
চলে এলো ওদের গন্তব্য নেমে পড়লো দুইজন,চেকপোস্ট ফাঁকি দিয়ে চলে গেল কাজে।

এতক্ষণ যে কল্লোল আরর রবিন এর কথা বলছি এরা আর কেউ নয়,দিনমজুর এরা-বেশী টাকা পাবে বলে কমলাপুর থেকে এয়ারপোর্টে এসে কুলির কাজ করে বেড়ায়,দিনশেষে ফিরে যায় পরিবারের কাছে।
প্রতিদিন এভাবে যাদের পথচলা তারাও ভাবে অন্যদের নিয়ে,এও সম্ভব?শুধু আমি আপনি আর আমরা ভাবতে পারিনা.....

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

তাপস ভৌমিক
তাপস ভৌমিক এর ছবি
Offline
Last seen: 6 দিন 1 ঘন্টা ago
Joined: রবিবার, এপ্রিল 1, 2018 - 5:09অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর