নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • সাইয়িদ রফিকুল হক
  • শ্মশান বাসী
  • আহমেদ শামীম
  • গোলাপ মাহমুদ

নতুন যাত্রী

  • নীল মুহাম্মদ জা...
  • ইতাম পরদেশী
  • মুহম্মদ ইকরামুল হক
  • রাজন আলী
  • প্রশান্ত ভৌমিক
  • শঙ্খচূড় ইমাম
  • ডার্ক টু লাইট
  • সৌম্যজিৎ দত্ত
  • হিমু মিয়া
  • এস এম শাওন

আপনি এখানে

আত্মার বিশ্বাস


যে ব্যক্তি বিশ্বাসের মত একটি নিরর্থ তাৎপর্যবিহীন শব্দের সাথে জড়িয়ে কাল্পনিক আত্মা,পেতা-পেত্নি,ভুত ঈশ্বর প্রাপ্তির আশাকরে কুসংস্কার পরায়ণ হয়,তাদের সাথে আলোচনা করাই বৃথা বলে মনে করি।

কারণ, এদের উদ্দেশ্য একটাই পাছা দিয়ে পাহাড় ঠেলা।
যা'ই বলি না কেন এরা কোন প্রকার যুক্তি মানবে না বরং দাবী করবে তাল গাছ'টি আমার।
বিশ্বাস নিয়ে বহু গুনি'জন বিভিন্ন সময় নানাভাবে চমৎকার ব্যাখ্যা ও উক্তি দিয়ে গেছে।
কিন্তু যাদের মাথায় একগাদ গোবর গাঁদা থাকে তারা কখনোই তা যৌক্তিক ভাবে অনুধাবন করে না।
কারণ ধর্ম বা ধর্মের মূল সেই নিরর্থক বিশ্বাসের উপর দাঁড়ানো।

এরা কোন ভাবেই একটু পরিষ্কার মস্তিষ্ক দ্বারা গবেষণা করে না যে, বিশ্বাস শব্দ'টা একটি সন্দেহবাচক,ও চূড়ান্ত শব্দ।যা জ্ঞানের পরিধিরেখায় তাৎক্ষণিক ভাবে ইতিস্তম্ভ গড়ে।
আবার এই শব্দটি আমরা যদি অন্যভাবে ব্যাখ্যা করি তাহলে দেখা যাবে এটি একটি শাসনীয় শব্দ।
যেমন,একটা উদাহরণ দেয়া যায় -

দোস্ত দয়াকরে বিশ্বাস কর আমি সেদিন ভুত বা শয়তান দেখছি।
তারমানে তুই'ও বিশ্বাস কর!
অতএব এখানে জোর করা হচ্ছে বিশ্বাস করতে!
আসলে ধর্মের আইন,রূপকথা গুলো'ও তাই বিশ্বাস করতে হবে, করতেই হবে না করলেই নয়।
বিশ্বাস করো তুমি অমুক পাবা,বিশ্বাস করো তুমি খাবা
বিশ্বাস করো তোমাকে পুড়বে,বিশ্বাস করো তোমাকে জ্বালাবে।
শুধু বিশ্বাস আর বিশ্বাস।
কেন ভাই আমি বিশ্বাস করতে যাবো! আমি অবিশ্বাস করবো আমি প্রশ্ন তুলবো।
আপনার যেমন বিশ্বাস করার জন্য অনুরোধ করতে পারেন, ঠিক তেমনি ভাবে এর বিপরীতে আমি তা প্রত্যাখ্যান করে অবিশ্বাস করতে পারি,এ আমার অধিকার।

কিন্তু ধর্ম সেই অধিকার থেকে আমাদের বঞ্চিত করেছে। এমন'কি এও উল্লেখ করা হয়েছে অবিশ্বাসী'রা খারাপ, চতুষ্পদ প্রানি এদের শেষ করা উচিৎ।
কারণ যারা এই ধরনের বিধান তৈরি করেছে তারা ঠিক'ই জানে যুগযুগ ধরে একটি শ্রেণী থাকবে অবিশ্বাস করারা জন্য। সত্য বেড় করার জন্য। আর এটাই ধর্মের ভয় মারাত্মক পরাজয়।
""অবিশ্বাস জ্ঞানের পরিধিকে সমৃদ্ধি করে বিকাশে- আনে চমৎকার সফলতা""
যার,প্রমাণ এখন এই আধুনিক পৃথিবী, এই সভ্যতা, এই মানবতা।

অথচ,অন্ধ ধার্মিক'রা বিশ্বাসের মত বিষের বস্তা কাঁধে চাপা দিয়ে অন্ধদেশের প্রধানত্ব তৈরি করে, এবং এই নিয়েই তারা গর্বে ফেটে আলোর পথের মানুষের কাছে শ্রেষ্ঠ গাধা হিসেবে পরিচিত দান করে।

আত্মাঃ
এদের অনেকের ভেতর আত্মা আছে বলে নিজেদের'কে স্বচ্ছ ও বিজ্ঞান-মনস্ক ভেবে বিবেচিত করে।
ভাবতে'ই অবাক লাগে এরা একটুও পড়াশুনা না করে কী করে বিজ্ঞানের মত একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের উপর কালিমা লেপন করে!

বিজ্ঞান এর মতে, জীবন আর মৃত্যুর মাঝে পার্থক্য হচ্ছে মস্তিস্কের কার্যক্ষমতা। যতক্ষন আমাদের মস্তিস্ক সঠিক ভাবে কার্যক্ষম থাকে ততক্ষন আমরা আমাদের অস্তিত্বকে অনুভব করতে পারি বা অন্য কথায় নিজেদের জীবিতবোধ করি।

আসলে আমরা আত্মা বলতে যে, স্পিরিচুয়াল স্বত্তার বা শক্তির কথা চিন্তা করি, বিজ্ঞানে তার কোন অস্তিত্ব নেই বা এর এখনো প্রমান পায় নি।দৈহিক কার্যক্রম ও মস্তিস্কের সমন্বয়ের ফলে, আমরা আমদের মাঝে যে অস্তিত্ব অনুভব করি এবং একটি জীবনী-শক্তি-বোধ করি,এই পুরো ব্যাপারটিই মস্তিস্কপ্রসূত।
-টিটপ হালদার

ধন্যবাদ

বিভাগ: 

Comments

নুর নবী দুলাল এর ছবি
 

পোস্টের ছবির সাথে লেখার সম্পর্ক খুঁজে পেলাম না!

 
মগজ এর ছবি
 

আত্মার ছবি আমি দেখি নি, তাই দেই নি !
ধন্যবাদ দাদা মন্তব্য করবার জন্য
শুভ কামনা

titop

 

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

মগজ
মগজ এর ছবি
Offline
Last seen: 1 week 6 দিন ago
Joined: সোমবার, জুলাই 18, 2016 - 4:21অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর