নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 2 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নুর নবী দুলাল
  • মিশু মিলন

নতুন যাত্রী

  • নীল মুহাম্মদ জা...
  • ইতাম পরদেশী
  • মুহম্মদ ইকরামুল হক
  • রাজন আলী
  • প্রশান্ত ভৌমিক
  • শঙ্খচূড় ইমাম
  • ডার্ক টু লাইট
  • সৌম্যজিৎ দত্ত
  • হিমু মিয়া
  • এস এম শাওন

আপনি এখানে

ইহা সহীহ হিন্দুত্ব নহে !


ভারতে ইদানীং ‘জয় শ্রীরাম’ শব্দটা বেশ শোনা যাচ্ছে। ক্রমেই ধর্মান্ধতা চেপে বসছে ভারতের ঘাড়ে। পাকিস্তানের ক্রমাগত ধর্মীয় সন্ত্রাসে অতিষ্ঠ ভারতবাসীর কাছে হিন্দুত্বের শান্তির বার্তা বিতরণ করছে অারএসএস, শিবসেনা, বিজেপি ও বজরং দল।
রাস্তাঘাট, খোলামাঠ, পরিবহন প্রভৃতি স্থানে হাঁটতে গেলে মাঝেমধ্যে কানে অাসে ‘জয় শ্রীরাম’ নামক শান্তিবাণী (?), যা ক্রমেই খাচ্ছে ভারতীয়দের মননশীলতা ও সৃজনশীলতা।
হিন্দুত্ববাদীরা সব ভারতীয়র ঘাড়ে জোর করে হিন্দুত্ব চাপিয়ে দিতে চাইছে। অাপনি যে ধর্মেরই হোননা কেন, অাপনার পরিচয় হবে অাপনি একজন হিন্দু; এই হচ্ছে হিন্দুত্ববাদীদের দাবি। অাপনি যে ধর্মেরই হোননা কেন, জয় শ্রীরাম বলতেই হবে!

ইসলাম ধর্ম যেমন বলে, ইসলাম কেবলমাত্র ধর্ম না, এটা হচ্ছে পরিপূর্ণ জীবন বিধান। হিন্দুত্ববাদীরাও তেমন সুরে বলে, হিন্দু কোন ধর্ম নয়, এটা হচ্ছে ভারতীয় সভ্যতা। খুব সুচতুর ভাবে সংস্কৃতির নামে মানুষের উপর চাপিয়ে দেয়ার চেষ্টা করছে হিন্দুত্ব।
অনেক হিন্দু অাবার নিজেদেরকে নাস্তিকও দাবি করে, কিন্তু তার হাতে পৈতা, গলায় সুতা, কপালে সিঁদুর দেখা যায়!
জিজ্ঞেস করলে বলবে, এটা ধর্ম না, এটা হচ্ছে ভারতীয় কালচার। ঠাকুর, পুরোহিত, সেবায়েতগুলি হচ্ছে বদের হাড্ডি। এরা প্রতিটি লোকের কানে উস্কানির মন্ত্র পড়ে দেয়, ধর্মীয় সন্ত্রাসের বয়ান দেয়। এদের একেকটার চোখের দিকে তাকালে মনে হবে ক্ষুধার্ত শকুন, কিংবা সিঁধকাটা চোর! সব পুরোহিতের চেহারা চোরের মত। যেমন সব মোল্লার চেহারা ডাকাতের মত।

বাংলাদেশে যেমন স্বার্থে লাগলেই তাকে রাজাকার বলাটা কিছু লোকের খাসলত হয়েছে, ভারতেও তেমনিভাবে পাকিস্তানি বলাটা ধর্মান্ধদের দারুণ একটা অনুভূতি-ব্যবসা।
হিন্দুত্ববাদীরা বলে, হিন্দুরা তালেবানের মত কি খুনোখুনি করে? হিন্দু ধর্ম শান্তির ধর্ম।
অামি বলি, অস্ত্র মিছিল করে ঠিক কি শান্তির বারতা দিল হিন্দুত্ববাদীরা? রামনবমী কি কোন শান্তির কাজ?

রামনবমীর রামছাগল সন্ত্রাসীগুলি অার তালেবানের মাঝে অাদৌ কি কোন পার্থক্য অাছে?
সস্তায় জনপ্রিয়তা, সস্তায় টাকা, সস্তায় ক্ষমতা হাতিয়ে নেয়ার জন্য জোটবদ্ধ হয়েছে তালেবান, অাইএস, হেফাজত, অারএসএস, বজরং, শিবসেনা ও বিজেপি।
রসুনের গোড়া যেমন একজায়গায়, ঠিক তেমনি মোল্লা, পুরোহিত, ঠাকুর, রাজনীতিক সবার গোড়া এক জায়গায়।
অাইসিসের নৃশংসতা নিয়ে প্রশ্ন করলে ‘কুশীল’ মুসলিম অাপনাকে বলবে, ইহা সহীহ ইসলাম নহে, ইহার সাথে ইসলামের কোন সম্পর্ক নাই!
রামভক্তদের অস্ত্রমিছিল নিয়ে প্রশ্ন করলে ‘কুশীল’ হিন্দু অাপনাকে বলবে, ইহা সহীহ হিন্দুত্ব নহে। ইহার সাথে হিন্দুত্বের কোন সম্পর্ক নাই!
অামি বলি, মানবতার সাথে ইসলাম এবং হিন্দুত্বের কোন সম্পর্ক নেই।

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

মুফতি মাসুদ
মুফতি মাসুদ এর ছবি
Offline
Last seen: 1 week 5 দিন ago
Joined: সোমবার, আগস্ট 14, 2017 - 6:00অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর