নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 5 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • সরকার আশেক মাহমুদ
  • নুর নবী দুলাল
  • সাইয়িদ রফিকুল হক
  • সজল-আহমেদ
  • নরসুন্দর মানুষ

নতুন যাত্রী

  • নীল মুহাম্মদ জা...
  • ইতাম পরদেশী
  • মুহম্মদ ইকরামুল হক
  • রাজন আলী
  • প্রশান্ত ভৌমিক
  • শঙ্খচূড় ইমাম
  • ডার্ক টু লাইট
  • সৌম্যজিৎ দত্ত
  • হিমু মিয়া
  • এস এম শাওন

আপনি এখানে

ইসলামই হলো মুসলমানদের সব সমস্যার মূল


ইসলাম প্রাথমিকভাবে মূলত: দুই রকম- শান্তিবাদী ও জিহাদবাদী। মুহাম্মদ যখন মক্কায় দুর্বল ছিল তখন সে শান্তিবাদী ইসলাম প্রচার করত। কিন্তু মদিনায় গিয়ে যখন একটা বাহিনী গঠন করে , তখন শান্তিবাদী ইসলাম ত্যাগ করে তরবারীর মাধ্যমে ইসলাম প্রচার করে যেটাকে বলা হয় জিহাদী ইসলাম। কোরান ও হাদিসে এই দুই ধারার ইসলামের মধ্যে জিহাদী ইসলামের প্রভাব ও ঘটনা অনেক বেশী। আর এই কারনেই সব সমস্যার উৎপত্তি।

আজকের একদল মুসলমান নিজেদেরকে শান্তিবাদী মুসলমান মনে ক'রে দাবী করে-ইসলাম হলো শান্তির ধর্ম। পক্ষান্তরে অন্য দল নিজেদেরকে জিহাদী মুসলমান হিসাবে গন্য করে শান্তিবাদী মুসলমানদেরকে মুনাফিক হিসাবে চিহ্নিত করে। বিধান হিসাবে কোরান নিজেই শান্তিবাদী ইসলামকে বাতিল করে দিয়ে জিহাদী ইসলামকেই অত:পর চিরস্থায়ী করে গেছে। কিন্তু শান্তিবাদী মুসলমানরা কোরান হাদিসের বিধান না জেনেই বা জেনেও না জানার ভান করে দাবী করে , জিহাদী ইসলাম এখন চলবে না বা জিহাদ হলো নিজের নফসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ।কিন্তু কোরান ও হাদিসে জিহাদ অর্থ যে নফসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ , তার কোন ইঙ্গিত নেই। বরং জিহাদ বলতে শত শত আয়াত ও হাদিসে এটাই বলা আছে যে - আগ বাড়িয়ে কাফির , মুশরিক , মুনাফিকদেরকে আক্রমন করে , তাদেরকে হত্যা করে ধন সম্পদ গণিমতের মাল হিসাবে গ্রহন করতে হবে।

বর্তমান দুনিয়াতে শান্তিবাদী মুসলমানরা আবার বহু শাখা প্রশাখায় বিভক্ত। জিহাদী মুসলমানরাও বহু শাখা প্রশাখায় বিভক্ত। প্রতিটা শাখার মুসলমানরা নিজেদেরকেই একমাত্র খাটি মুসলমান মনে করে অন্য সব দলকে কাফের , মুনাফিক হিসাবে চিহ্নিত করে থাকে।যেমন - তাবলিগীরা জামাতকে , জামাত তাবলিগিদেরকে , মাজহাবি পন্থিরা সালাফিদেরকে , সালাফিরা মাজহাবি পন্থিদেরকে , শিয়া সুন্নিদেরকে , সুন্নিরা শিয়াদেরকে , পীরপন্থিরা আহলে হাদিসকে , আহলে হাদিসরা পীরপন্থিকে এরকম আরও বহু , পরস্পরকে কাফের মুনাফিক হিসাবে আখ্যায়িত করে থাকে ও একই সাথে পরস্পর পরস্পরকে কঠিন দুশমন হিসাবে চিহ্নিত করে থাকে। এক্ষেত্রে ইসলামই আসলে দায়ী। কোরান হাদিস ইত্যাদিতে এমন সব বর্ননা ও বিধান আছে , যার দ্বারা উক্ত দলের প্রতিটাই নিজেকে একমাত্র খাটি মুসলমান হিসাবে দাবী করার সুযোগও পায়। কারন তারা প্রত্যেকেই তাদের নিজেদের মতের সমর্থনে কোরান হাদিস থেকে দলিল দেখাতে পারে। তার সোজা অর্থ - কোরান হাদিসের অস্পষ্ট , বিভ্রান্তিকর , স্ববিরোধী কথা বার্তাই মূলত: মুসলমানদের মধ্যে নানা শাখা প্রশাখা , দল উপদল সৃষ্টির জন্যে দায়ী।

ইসলামে মুনাফিকদের শাস্তি হলো মৃত্যুদন্ড। তার ফলে প্রতিটা শাখার মুসলমানরা অন্য সব শাখার মুসলমানদেরকে মুনাফিক হিসাবে গন্য করে সময় সুযোগ পেলে , তাদের ওপর ঝাপিয়ে পড়ে হানাহানি , হত্যা ইত্যাদি কার্যে লিপ্ত হয়ে পড়ে। তখন শান্তিবাদী মুসলমানরাও আর শান্তিবাদী থাকে না , হয়ে যায় জিহাদী। এই সময় কিছু লোক বলে - ইসলাম মুসলমানদেরকে হত্যা করতে কঠিনভাবে নিষেধ করেছে। কিন্তু তারা জানে না , কেউ আসলে মুসলমান হত্যা করে না। তারা হত্যা করে তাদের ভাষায় যারা মুনাফিক তাদেরকেই।

সুতরাং ইসলাম নিজেই এমন এক অপরিস্কার , বিভ্রান্তিময়, স্ববিরোধী আদর্শ ও বিধি বিধানের সমাহার , যার দ্বারা মানুষ বিভ্রান্ত হয়ে , নিজেদের মধ্যেই বিবাদ বিস্বম্বাদ ঘটায় ও পরিশেষে নিজেদের মধ্যেই সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে , যা পরিশেষে মুসলমানদেরকে একটা বর্বর, অসভ্য ও জঙ্গি জাতিতে পরিনত করে।

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

কাঠমোল্লা
কাঠমোল্লা এর ছবি
Offline
Last seen: 3 ঘন্টা 10 min ago
Joined: শুক্রবার, এপ্রিল 8, 2016 - 4:48অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর