নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 8 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • ওয়াহিদা সুলতানা
  • নগরবালক
  • উদয় খান
  • মোমিনুর রহমান মিন্টু
  • আশিকুর রহমান আসিফ
  • ড. লজিক্যাল বাঙালি
  • কাঙালী ফকির চাষী
  • দীপ্ত সুন্দ অসুর

নতুন যাত্রী

  • আরিফ হাসান
  • সত্যন্মোচক
  • আহসান হাবীব তছলিম
  • মাহমুদুল হাসান সৌরভ
  • অনিরুদ্ধ আলম
  • মন্জুরুল
  • ইমরানkhan
  • মোঃ মনিরুজ্জামান
  • আশরাফ আল মিনার
  • সাইয়েদ৯৫১

আপনি এখানে

পাগলের বাড়ির বিয়ে, শুয়রে বাজায় ঢোল !


কথাটি মা প্রায়ই বলতেন। এর মানে হচ্ছে, পাগলের বাড়ির বিয়েতে শুকরেও ঢোল বাজাতে পারে। সুতরাং বোঝাই যাচ্ছে ঐ বিয়ের কি অবস্থা হয় তখন!
:
১ ফেব্রুয়ারি/১৮ খুলনা গিয়েছিলাম ডুমিরিয়াতে ফুলকলির সংবর্ধনা নিতে। ফিরতে হলো ৪ তারিখ। দুদিন আগেই এক্সপ্রেস চিত্রা ট্রেনের (হায়! মনে পড়লো চীনের এক্সপ্রেস ম্যাগলেভের কথা!) টিকেট কিনে রাখলাম ১১৫৬ টাকায়। সকাল ৮:৪০-এ ট্রেন ছাড়বে, তাই টুটপাড়া থেকে ৮:০০টার মধ্যে ব্যাটারিচালিত অটোতে পৌঁছে গেলাম স্টেশনে। কিন্তু হায়! ট্রেন তখন জাস্ট ঢাকা থেকে এসে দাঁড়ালো। তারপর মানুষ ও কত মালছামান নামলো।আটশাট পোশাক পরা টিটি বললো, স্যার এটা এখন "ওয়াশে" যাবে, ৩০ মিনিট আপনি ঐ First Class Waiting Room এ বসুন!
:
১ম শ্রেণির ওয়েটিং রুমে ঢুকেই চোখ চরকগাছ। কোলকাতার গ্রাম্য "গোচরণ" স্টেশনের ওয়েটিং রুম এর চেয়ে অনেক আধুনিক। খুলনার মত বড় শহরের ওয়েটিং রুমের এ হাল দেখে মনটা খারাপ হলো খুব। "মুততে"ও আর ইচ্ছে হলোনা ঐ ১ম শ্রেণির ওয়েটিং রুমের ওয়াশ রুমে। চলে গেলাম নদীবন্দরে ও কাজটি করার জন্য। ৮:৪০ এর ট্রেনটি দশটায় এলো নিজেকে ফিটফাট করে। কিন্তু একি! ট্রেনে উঠবো কিভাবে? কারণ নিচু প্লাটফরম থেকে ট্রেনটি অনেক উঁচু। এবং ৩/৪ ধাপের সিঁড়ি একদম খাড়া। আমার মত সাতান্ন দেশ ঘোরা মানুষ হয়তো উঠতে পারবো কিন্তু শিশু, বুড়ো, অসুস্থ্য মানুষরা কিভাবে উঠবে এ ট্রেনে?
:
টিটি গোছের একজনকে পেয়ে ধরলাম, "ভাই এভাবে ট্রেনে উঠতে মানুষতো পড়ে গিয়ে আহত হতে পারে। আপনারা ১০০ বছরের পুরনো স্টেশন উঁচু করছেন না কেন"? উনি বিনীতভাবে বললেন, এ কথা রেলমন্ত্রী ভাল বলতে পারবেন, কারণ উঁচু করার কথা অনেকবার আমরা বলেছি। কিন্তু কেউ শোনেনি আমাদের কথা"! শেষে বললেন, কোন কোম্পানী নাকি কটা কাঠের সিঁড়ি বানিয়ে প্লাটফরমে রেখেছে। হলুদ রঙের একটা দেখলামও পাশে দাঁড়ানো। বললেন, টাকা দিলে কোম্পানীর লোকরা সিঁড়ি লাগিয়ে দেয় ট্রেনে। এখন ওদের লোক নেই বলে (কিংবা টাকা দেয়া হয়নি বলে) সিঁড়িটা বিচ্ছিন্ন বা লাগানো হয়নি ট্রেনে।
:
এবং উঠলাম ১১৫৬ টাকায় কেনা টিকেটের মায়ায়। প্রথম শ্রেণির এসি স্লিপারে চা দিলো একদম পানির মত (তাহলে সাধারণ শ্রেণির চা কেমন হয় আল্লাহ/ভগবান মালুম)। চাএমন পানির মত ঠান্ডা কেন জানতে চাইলে ওয়েটার বললো, "স্যার "কিচেন কার" সামনের দিকে, আর এসি বগি পেছনের দিকে, তাই আনতে আনতে পানি হয়ে যায়"। এমন যৌক্তিক কথাতে ১০ টাকা জরিমানা দিয়ে চা নামক পানিটুকে গেলা বা ফেলা ছাড়া উপায় থাকেনা।
:
এবং বিকেল ৫:১০ এ যে চিত্রা ট্রেন পৌঁছানোর কথা বিমানবন্দর স্টেশনে, তা থেকে নামার চেষ্টা করি সন্ধ্যা ৭:৩৫ এ। কিন্তু বিমানবন্দর স্টেশনে শত শত যাত্রীরা উঠতে চায় এ আন্তনগর এক্সপ্রেস ট্রেনে সম্ভবত কমলাপুর যাবে তারা। তাদের ওঠার চেষ্টাতে আমার মত এসি স্লিপারের নারী ও অন্য যাত্রীরাও নামতে পারেনা। আবার মাত্র ৫ মিনিট পরই নাকি বিমানবন্দর স্টেশন ছেড়ে দেবে এ "এক্সপ্রেস ট্রেন"! অতএব "এক্সপ্রেস" শক্তি প্রয়োগে নামতে হলো স্টেশনে। ট্রেন তখন চলতে শুরু করেছে। আর তার পাশে পাশে দৌঁড়ুচ্ছে অন্তত শ'খানেক যাত্রী। সবার গন্তব্য ঢাকার কমলাপুর স্টেশন! আচ্ছা এরা কি সবাই বিনা টিকেটের যাত্রী!
:
ছবি : খুলনা স্টেশনে দাঁড়ানো চিত্রা ট্রেন, দরজার সাথে লাগানো খাড়া সিঁড়ি, নিচু প্লাটফরম ও পাশে হলুদ রঙের কোম্পানির কাঠের সিঁড়ি!

Comments

ড. লজিক্যাল বাঙালি এর ছবি
 

!

===============================================================
জানার ইচ্ছে নিজেকে, সমাজ, দেশ, পৃথিবি, মহাবিশ্ব, ধর্ম আর মানুষকে! এর জন্য অনন্তর চেষ্টা!!

 
সুবর্ণ জলের মাছ এর ছবি
 

ওয়াও, চমৎকার !

 

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

ড. লজিক্যাল বাঙালি
ড. লজিক্যাল বাঙালি এর ছবি
Online
Last seen: 1 ঘন্টা 14 min ago
Joined: সোমবার, ডিসেম্বর 30, 2013 - 1:53অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর