নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • সৌম্যজিৎ দত্ত
  • নগরবালক
  • কাঙালী ফকির চাষী
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী

নতুন যাত্রী

  • নীল মুহাম্মদ জা...
  • ইতাম পরদেশী
  • মুহম্মদ ইকরামুল হক
  • রাজন আলী
  • প্রশান্ত ভৌমিক
  • শঙ্খচূড় ইমাম
  • ডার্ক টু লাইট
  • সৌম্যজিৎ দত্ত
  • হিমু মিয়া
  • এস এম শাওন

আপনি এখানে

একজন Amitaruci Chakma এবং বাংলাদেশে চাকমা জাতি :


ইউরোপ আমেরিকাতে ২/১-জন বাঙালি মুসলমান মাঝে মধ্যে ২/১টা সন্ত্রাসী আক্রমনের উদ্যাগ গ্রহণ করে। কিন্তু তার ফলশ্রুতিতে বদনাম হয় পুরো বাংলাদেশের। এসব কারণে আমেরিকা ইউরোপে বাংলাদেশিদের ভিসাতে কড়াকড়ি করে খুব। নানাবিধ নজরদারীতে বসবাস করতে হয় বাঙালিদের এখন ট্রাম্প প্রশাসনের দেশে!
:
এমনই ঘটনা ঘটাচ্ছে কিছু উপজাতিয় সন্ত্রাসী বিশেষ করে চাকমা সন্ত্রাসিরা। জানিনা এদের চিন্তা চেতনা কিভাবে পরিচালিত হচ্ছে। পাহাড়ে কেউ খুন হলে বলছে, বাঙালি সেনারা বা সেটেলাররা করছে। কোন নারী ধর্ষিতা হলেই বলছে, বাঙালি সেনারা ধর্ষণ করছে। অথচ সমতলে যখন কোন বাঙালি খুন বা ধর্ষিতা হয় তখন কিন্তু আমরা বলিনা, ওমুক জাতি, তমুক জাতি এটা করেছে। এমনকি ঘটনাক্রমে হিন্দু কর্তৃক কোন মুসলমান খুন হলেও ব্যাপারটাকে স্বাভাবিক নিয়ম হিসেবেই দেখে বাঙালিরা। ব্যক্তিক্রম লক্ষ্য করছি চাকমা উপজাতিদের মধ্যে।
:
চাকমাদের এসব নেতিবাচক চিন্তাধারার কারণে আমার ফেসবুকের প্রায় ৬০০-চাকমাকে "আনফ্রেন্ড" করেছি আমি কেবল Amitaruci Chakma ছাড়া। কারণ এ চাকমা নারী সব সময় যৌক্তিক কথা বলে এমনটাই আমার ধারণা। গতকাল বিলাইছড়িতে এক মারমা তরুণি ধর্ষিতা হওয়ার পর উগ্রবাদি চাকমা-মারমারা যথারীতি "বাঙালি সৈনিকরা ধর্ষণ করেছে" ঐ উপজাতি মেয়েটাকে এমন কথা বললে, একটা যৌক্তিক পোস্ট দেয় চাকমা তরুণি Amitaruci Chakma কিন্তু উগ্র চাকমারা নানাবিধ অশ্লীল ভাষাতে গালিগালাজ শুরু করলে বাধ্য হয়ে মেয়েটি ডিলেট করে তার পোস্টটি।
:
চাকমা দীপংকর তালুকদার উপজাতীয় সন্ত্রাস সম্পর্কে কিসব কথা বলেছেন, তা প্রকাশিত হয়েছে গতকালকের "বাংলাদেশ প্রতিদিনে"। দেখা যাক কি বলেছেন উনি -
:
পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্রের রাজনীতি করছে উপজাতীয় সন্ত্রাসীরা
:
পার্বত্যাঞ্চলে উপজাতীয় সন্ত্রাসীরা অবৈধ অস্ত্রের রাজনীতি করছে। এ অভিযোগ করেছেন রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার। তিনি বলেন, অবৈধ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের চাঁদাবাজি, হুমকি, অপহরণ, মুক্তিপণ আদায়, গুম, খুনের মতো ঘটনা পাহাড়ে এখন নিত্যনৈমিত্তিক ঘটনা। পার্বত্যাঞ্চলে সশস্ত্র সন্ত্রাসীরা নিরীহ জনগণের ওপর নির্যাতন চালিয়ে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। পাহাড় এখন সন্ত্রাসীদের অভয়ারণ্যে পরিণত হয়েছে। তাই পার্বত্যবাসীর পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। এখন সময় এসেছে রুখে দাঁড়াবার, প্রতিরোধ গড়ে তোলার। প্রশাসন অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করতে ব্যর্থ হলে জনগণ আইন হাতে তুলে নিয়ে সন্ত্রাসীদের প্রতিহত করতে বাধ্য হবে। প্রশাসনকে তার দায় নিতে হবে। তিনি সাঁড়াশি অভিযানের মাধ্যমে সন্ত্রাসীদের অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করে তাদের আইনের আওতায় আনার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে জোর দাবি জানান। রবিবার দুপুরে রাঙামাটি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারের দাবিতে সচেতন নাগরিক সমাজের ব্যানারে আয়োজিত মহা-সমাবেশে দীপংকর তালুকদার এসব কথা বলেন। দীপংকর তালুকদার সন্তু লারমাকে উদ্দেশ করে বলেন, আপনি পাহাড়ের শান্তি প্রতিষ্ঠা করার নিশ্চয়তা দিয়ে সরকারের সঙ্গে পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন। সে থেকে সরকারের সুযোগ-সুবিধা নিয়ে আপনি শান্তিতে আছেন। কিন্তু পাহাড়ের মানুষ শান্তিতে নেই। সমাবেশে তিন পার্বত্য জেলার সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা, পৌর মেয়র মো. আকবর হোসেন চৌধূরী, রাঙামাটি চেম্বার অব কমার্সের সভাপতি মো. বেলায়েত হোসেন ভূইয়া, রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদের সদস্য মো. মুছা মাতব্বর, বাস ও লঞ্চ মালিক সমিতির সভাপতি মঈন উদ্দীন সেলিম, সাবেক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, সচেতন নাগরিক সমাজের প্রতিনিধি কাজি মো. জালুয়াসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এর আগে সচেতন নাগরিক সমাজের ব্যানারে রাঙামাটি পৌরসভা প্রাঙ্গণ থেকে সন্ত্রাসবিরোধী বিশাল বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা রাঙামাটি জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে এসে সমাবেশে মিলিত হয়। রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সচেতন নাগরিক সমাজ ব্যানারে আয়োজিত মহা-সমাবেশে রাঙামাটি জেলার ১০টি উপজেলা থেকে গণমানুষের ঢল নামে। এ মহা-সমাবেশে প্রায় ২০ হাজারেরও অধিক মানুষের সমাগম হয়।
:
আমার ধারণা বাংলাদেশ, বাঙালি জাতি, বাংলাদেশ সেনাবাহিনি ও বাংলাদেশ সংবিধান সম্পর্কে যদি ক্রমাগত নেতিবাচক ধারণা পোষণ করতেই থাকে অধিকাংশ চাকমা উপজাতি, তবে বাঙালিরা অবশ্যই তাদের এ নেতিবাচক চিন্তনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে। এবং অবশ্যই এর সমুচিত জবাব দেবে! সুতরাং চিন্তাশীল চাকমাদের বিষয়টা ভেবে দেখার অনুরোধ করছি!
:
ছবি : Amitaruci Chakma 'র ডিলেটকৃত পোস্ট মন্তব্যসহ

Comments

সুবর্ণ জলের মাছ এর ছবি
 

ওয়াও, চমৎকার !

 

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

ড. লজিক্যাল বাঙালি
ড. লজিক্যাল বাঙালি এর ছবি
Offline
Last seen: 4 ঘন্টা 8 min ago
Joined: সোমবার, ডিসেম্বর 30, 2013 - 1:53অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর