নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 8 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • মোমিনুর রহমান মিন্টু
  • ওয়াহিদা সুলতানা
  • দীপ্ত সুন্দ অসুর
  • নগরবালক
  • উদয় খান
  • আশিকুর রহমান আসিফ
  • ড. লজিক্যাল বাঙালি
  • কাঙালী ফকির চাষী

নতুন যাত্রী

  • আরিফ হাসান
  • সত্যন্মোচক
  • আহসান হাবীব তছলিম
  • মাহমুদুল হাসান সৌরভ
  • অনিরুদ্ধ আলম
  • মন্জুরুল
  • ইমরানkhan
  • মোঃ মনিরুজ্জামান
  • আশরাফ আল মিনার
  • সাইয়েদ৯৫১

আপনি এখানে

মসজিদ আল আকসা ও টেম্পল অব সলোমন বিতর্ক (পর্ব : ১)


বর্তমানে বাংলাদেশসহ বিশ্বের সকল মুসলমানরা বিশ্বাস করে যে, ইসরাইল তথা ইহুদিরা জোর করে তাদের ৩য় পবিত্র মসজিদ ও ১ম কিবলা জেরুজালেমের "মসজিদুল আকসা" দখল করে রেখেছে। অপর দিকে ইহুদি ও খৃস্টানরা বিশ্বাস ও বলে থাকে যে, ৬৩৭ খৃস্টাব্দে জেরুজালেম দখল করার পর, মুসলমানরা তাদের "টেম্পল অব সলোমন" (সিনাগগ) ধ্বংস করে ঐ ধ্বংসস্তুপের স্থানে মসজিদ আল আকসা নির্মাণ করেছে। যে কারণে বর্তমান মসজিদ আল আকসা সন্নিহিত ইহুদিদের পবিত্রতম "ওয়েস্ট ওয়ালে" এখনো তারা মাথা কুটে প্রার্থনা করে তাদের ঈশ্বর "যিহোভা"র কাছে। দেখা যাক, তবে কি এ টেম্পল অব সলোমন ভার্সাস মসজিদ আল আকসা।
:
ইসলামের ইতিহাস ও হাদিস অনুসারে মদিনায় অবস্থিত "মসজিদে কুবা" বা "কুবা মসজিদ" (Arabic: مَسجد قُباء‎, Masjid Qubā’) ইসলামের প্রথম মসজিদ। হিজরতের পর নবী মুহাম্মদ (স:) নিজে এই মসজিদের ভিত্তি স্থাপন করেন ৬২২ খৃস্টাব্দে। এখানে তিনি ১৪-দিন অবস্থান ও ইমামতি করেছিলেন।
:
ইসলামের অপর ইতিহাস অনুযায়ী, নবী মুহাম্মদের (সা:) নবুওয়াত প্রাপ্তির ১১তম বছরে, মানে ৬২০ খ্রিষ্টাব্দে তিনি মক্কার কাবা থেকে জেরুজালেমে অবস্থিত "মসজিদুল আকসায়" গমন করেন এবং সেখানে তিনি নবীদের জামায়াতে ইমামতি করেন। শেষে জান্নাতি বাহন বোরাকে আসীন হয়ে ঊর্ধ্বাকাশে "সিদরাতুল মুনতাহায়" তিনি আল্লাহ'র সাক্ষাৎ লাভ করেন। এই সফরে ফেরেশতা জিবরাইল তাঁর সফরসঙ্গী ছিলেন।
:
ইহুদিরা এ ক্ষেত্রে প্রশ্ন তোলে, ইসলামের ইতিহাস অনুযায়ী মদিনার কুবা মসজিদ যদি ইসলামের ১ম মসজিদ হয়, যা মূলত নির্মিত হয়েছিল ৬২২ খৃস্টাব্দে। তাহলে ইহুদি নবী ও রাজা সলোমন কর্তৃক খৃস্টের জন্মের হাজার বছর আগে (961-920 BCE) নির্মিত The Temple of Solomon ৬২০ খৃস্টাব্দে মিরাজ গমনকালে কিভাবে "মসজিদুল আকসা" হয়? যদিও ইসলামের ২য় খলিফা হযরত ওমর কর্তৃক জেরুজালেম দখল করা হয় ৬৩৭ খৃস্টাব্দে। এ ক্ষেত্রে নেতিবাচক ইহুদিদের প্রশ্ন, তবে কি মুসলিমরা জেরুজালেম দখলের আগেই, ইহুদিরা ৬২০ খৃস্টাব্দের পূর্বেই মুসলিমদের জন্য "মসজিদুল আকসা" বানিয়ে রেখেছিল? না হলে কিভাবে মুসলমানরা "সলোমন মন্দিরকে" তাদের "মসজিদুল আকসা়" বলে থাকে?
:
বর্তমানে জেরুজালেমে অবস্থিত The Temple Mount-কেই কিং সলোমন নির্মিত "পবিত্র সিনাগগ" মনে করে ইহুদিরা। যেখানে ইমামতি (রাব্বি) করতেন. ইহুদি নবী সখরিয়া (ইসলামি নাম জাকারিয়া) ও যাতে সেবিকা হিসেবে ছিলেন, যিশু মাতা মরিয়াম। মুসলমানগণ কর্তৃক ৬৩৭ খৃস্টাব্দে জেরুজালেম দখলের পর The Temple of Solomon ধ্বংসপ্রাপ্ত হয়। তদস্থলে গড়ে ওঠে মুসলিমদের পবিত্র "মসজিদুল আকসা"। এখনো ইহুদিরা তাদের পবিত্র মন্দিরস্থলে দন্ডায়মান "পশ্চিম দেয়ালে" (Western Wall) মাথা ঠুকে তাদের প্রার্থনা করে, যা মূলত নির্মাণ করেছিল তাদের অপর রাজা "হিরোদ"!
:
নবী সুলায়মানকে হিব্রু ভাষায়: שְׁלֹמֹה, আধুনিক হিব্রুতে Šəlomo or Šlomo, আরবি ভাষায় سليمان বলা হয়। হিব্রু বাইবেল অনুসারে, তিনি ছিলেন ইসরায়েলের প্রথম এবং গুরুত্বপূর্ণ রাজ়া। তাঁর জন্ম আনুমানিক ১০১১ খ্রীষ্টপূর্বাব্দে এবং মৃত্যু আনুমানিক ৯৩১ খ্রীষ্টপূর্বাব্দে। তাঁর রাজত্বকাল ছিল প্রায় ৯৭০ থেকে ৯৩০ খ্রীষ্টপূর্বাব্দ পর্যন্ত। তিনি ছিলেন নবী দাউদ (আঃ)-এর পুত্র। কথিত আছে, নবী সুলায়মান (আ.) জেরুজালেম নগরী প্রতিষ্ঠা করে সেখানে নির্মাণ করেন বায়ত আল হিকমা, (Hebrew: בֵּית־הַמִּקְדָּשׁ‬: Beit HaMikdash), যাকে মুসলমানরা আল-আকসা মসজিদ হিসেবে মান্য করে। যা বর্তমানে ইসরাইলি শাসনে। নবী সলোমন ছিলেন Kingdom of Israel and Judah প্রদেশের রাজা। ইহুদিদের কাছে পরিচিত Temple Mount (Hebrew: הַר הַבַּיִת‎, Har HaBáyit মুলত "Mount of the House of God" । মসজিদুল আকসা (المسجد الاقصى‎‎) মসজিদ বা বাইতুল মুকাদ্দাস নামেও পরিচিত। এটির সাথে একই প্রাঙ্গণে "কুব্বাত আস সাখরা", "কুব্বাত আস সিলসিলা" ও "কুব্বাত আন-নবী" নামক স্থাপনাগুলো অবস্থিত। স্থাপনাগুলোসহ এ পুরো স্থানটিকে মুসলমানরা "হারাম আল শরিফ"ও বলে থাকেন। স্থানটি ইহুদি খৃস্টানদের কাছে "টেম্পল মাউন্ট" বলে পরিচিত এবং ইহুদি ধর্মে পবিত্রতম স্থান বলে বিবেচিত। মুসলমানরা যাকে এখন Haram esh-Sharif (الحرم الشريف‎), al-Ḥaram al-Qudsī al-Šarīf হিসেবে মান্য করে। ইহুদিদের পবিত্র প্রার্থনাস্থল "পশ্চিম ওয়াল" সন্নিহিত এলাকাকে মুসলমানরা "আল বুরাক ওয়াল" বলে থাকে। ইসলামের নবী মুহাম্মদের (স) মিরাজ গমনের সময় তিনি তার বাহন বুরাককে এ ওয়ালের পাথরের সাথে বেঁধে রেখেছিলেন বলে হাদিসে উল্লেখ আছে।
:
ইসলাম অনুসারীদের মতে, সম্পূর্ণ উপাসনার স্থানটিই ইসলামের নবী সুলাইমান (আঃ) তৈরি করেছিলেন, যা পরবর্তীতে ধ্বংস হয়ে গিয়েছিল। বর্তমানে "আল-আকসা" মসজিদ বলতে বোঝাায় - কিবলি মসজিদ , মারওয়ানি মসজিদ ও বুরাক মসজিদ এ ৩টির সমন্বয়। খলিফা উমর ৬৩৭ খৃ: জেরুজালেম দখল করার পর একটি মসজিদ নির্মাণ করেছিলেন। ৭১৩-১৪ খ্রিষ্টাব্দে কয়েকটি ভূমিকম্পে মসজিদের পূর্ব অংশ ধ্বংস হয়। পুন ৭৪৬ খ্রিষ্টাব্দে ভূমিকম্পে মসজিদুল আকসা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ৭৭৪ খ্রিষ্টাব্দে আর একটি ভূমিকম্পের ফলে আল মনসুরের সংস্কারের সময়ের দক্ষিণ অংশ বাদে অনেক অংশ ধ্বংস হয়। ১০৩৩ খ্রিষ্টাব্দে আরেকটি ভূমিকম্পে মসজিদটি ক্ষতিগ্রস্ত হলে, ফাতেমীয় খলিফা আলি আজ-জাহির পুনরায় মসজিদটি নির্মাণ করেন।
:
ইহুদি বিশ্বাস অনুযায়ী "কুব্বাত আস সাখরা" বেহেশত ও পৃথিবীর মধ্যকার "আধ্যাত্মিক সংযোগস্থল" তথা জংশন। ইসলামি মতে, "কুব্বাত জিব্রাইল হচ্ছে এমন স্থান, যেখানে মেরাজের রাত্রে নবী মুহাম্মদ (স) ঊর্ধ্বাকাশে গমনের পূর্বে এই স্থানেই নবী (সাঃ), অপর নবিগণ ও ফেরেস্তাদের সাথে নামাজ পড়েছিলেন। এ মসজিদের প্রধান অজুর স্থান "আল-কাস" (কাপ) নামে পরিচিত। আগে অজুর জন্য পানি বেথলেহেমের কাছের সুলাইমানের সেতু থেকে সরবরাহ করা হলেও, বর্তমানে জেরুজালেম শহরের সিটি পানি সরবরাহ ব্যবস্থা থেকে এখানে পানি সরবরাহ করা হয়। মুসলমানরা বিশ্বাস করে যে, এটি পৃথিবীতে নির্মিত দ্বিতীয় মসজিদ। যা মসজিদুল হারামের পরে নির্মিত হয়েছিল। ইসলামি মুফাসসিরগণ বলেন যে, এটি ছিল আগে বনি ইসরাইলিদের (ইহুদিদের) দাওয়াত ও তাবলিগের জায়গা এবং নামাযের কিবলা, যা মুসলমানদের কাছেও সম্মানিত ও পবিত্র। কথিত আছে মিরাজ শেষে নবী মুহাম্মদ (সাঃ) প্রথম বাইতুল মুক্কাদ্দাসে অবতরণ করেন। সেখান থেকে বোরাকে করে প্রভাতের পূর্বেই মক্কায় পৌঁছে যান। হাদিস অনুসারে, মসজিদে আকসায় নামাজ পড়লে, সাধারণ মসজিদের চেয়ে ৫০ হাজার গুণ বেশি সওয়াব পাওয়া যায়।
:
[১ম পর্ব শেষ। ২য় পর্ব আগামিকাল]

Comments

চাইল্ড অব গড এর ছবি
 

কি সব মাথা মুন্ডু লিখলেন। তথ্যগত অসংখ্য ভুল। সঠিক তথ্য সংগ্রহ করে তারপর লিখুন। নাকি মানুষকে বিভ্রান্ত করার জন্যে এটা লিখলেন।

 
সুবর্ণ জলের মাছ এর ছবি
 

চমৎকার তথ্যবহুল যৌক্তিক লেখা

 
সুবর্ণ জলের মাছ এর ছবি
 

ওয়াও, চমৎকার !

 

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

ড. লজিক্যাল বাঙালি
ড. লজিক্যাল বাঙালি এর ছবি
Online
Last seen: 1 ঘন্টা 42 min ago
Joined: সোমবার, ডিসেম্বর 30, 2013 - 1:53অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর