নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

There is currently 1 user online.

  • নুর নবী দুলাল

নতুন যাত্রী

  • আরিফ হাসান
  • সত্যন্মোচক
  • আহসান হাবীব তছলিম
  • মাহমুদুল হাসান সৌরভ
  • অনিরুদ্ধ আলম
  • মন্জুরুল
  • ইমরানkhan
  • মোঃ মনিরুজ্জামান
  • আশরাফ আল মিনার
  • সাইয়েদ৯৫১

আপনি এখানে

মালাউন খেঁদা:


১৯৭১ সালে স্বাধীন বাংলাদেশ রাষ্ট্র হিসেবে আত্মপ্রকাশের পর ১৯৭২ সালে যে সংবিধান হয়েছিল সেখানে চারটি মূল স্তম্ভ-ধর্মনিরপেক্ষতা ,গনতন্ত্র, সমাজতন্ত্র ও জাতিয়তাবাদ ।বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্য দিয়ে সেই সংবিধানের মৃত্যু হয়েছিল । তারপর সামরিক ক্ষমতার অপব্যবহার করে জিয়াউর রহমান ক্ষমতায় এসে গড়ে তোলে বিএনপি(Bangladesh National Party—BNP) ।
১৯৭৮ সালে সংবিধান সংশোধন করে ধর্ম নিরপেক্ষতা ও নীতিটি মুছে দেওয়া হয় ।সংবিধানের মুল ভিত্তি হয় ইসলাম । বলা হলো ,আল্লার প্রতি ইমান হবে সব কাজের ভিত্তি ।বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশে ধর্মীয় রাজনীতি নিষিদ্ধ করেছিলেন কিন্তু জিয়াঊর রহমান সেই নিষেধাঙ্গা তুলে দিয়ে ইসলামী রাজনীতিকে আইনসিদ্ধ করলো। মুক্তি যুদ্ধের শত্রু ও পাকিস্তানপন্থী মুসলিম মৌলবাদী ও জঙ্গি সংগঠনগুলোকে ও ধর্মগুরুদের রাজনৈতিক পুনর্বাসন দেওয়া হলো । সেটা ছিল ৫ম সংশোধনী । জেনারেল এরশাদ ১৯৮৬ সালে ৭ম সংশোধনীর মাধ্যমে বাংলাদেশকে অন্ধকারের দিকে আর এক ধাপ টেনে নিয়ে গেল,ইসলামকে রাষ্ট্র ধর্ম ঘোষণা করে ।

দুই কুখ্যাত সংবিধান সংশোধনী বাংলাদেশের ধর্মনিরপেক্ষ নীতি, মুক্তিযুদ্ধের নীতি ,আদর্শ ও চেতনাকে সম্পূর্ণ হত্যা করলো । মারা গেল ৩০ লক্ষ প্রাণের বিনিময়ে অর্জিত গনতন্ত্র ও বাঙালি জাতিয়তাবাদ । বাঙালি জাতির পরিচয় মুছে বাংলাদেশের মানুষদের একটাই জাত হলো :মুসলমান জাত ,বাংলাদেশি বাঙালি মুসলমান । পূর্ব পাকিস্তান আমলের মতই শুরু হল ইসলামিকরণ ! লক্ষ্য একটাই- বাংলাদেশকে হিন্দু ,বৌদ্ধ ও খৃষ্টান মুক্ত করা । রাষ্ট্রীয় মদতে মৌলবাদীরা ঝাঁপিয়ে পরলো সংখ্যালঘুদের ওপর । শুরু হয়ে গেল ব্যাপক সন্ত্রাস- লুটপাট ,হত্যা ,নারীধর্ষণ। আওয়ামি লিগ ক্ষমতায় ফিরে আসার পর সংখ্যালঘুদের ওপর এই আক্রমণ অনেকটাই কমলো ।

হিন্দু জনসংখ্যা কিন্তু ক্রমাগত কমতেই থাকে । ১৯৫১ সালে বাংলাদেশে হিন্দু ও মুসলিম :৭৬.৯% এবং ২২% । ২০১১ সালে সেটা হল ৯০.৪% এবং ০৮.৫% । অর্থাৎ৬০ বছরে হিন্দু জনসংখ্যা ১৩.৫% শ্রেফ গায়েব।পাঠক বুঝুন যে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের উপর কি ভয়ানক আক্রমন হয় বাংলাদেশে ।আক্রমণের ভয়াবহতার তথ্য পাবেন বাংলাদেশের ধর্ম নিরপেক্ষ ও সাহসী বুদ্ধিজীবীদের লেখায় ।মানবাধিকার কর্মী সালাম আজাদের কথায়: 'বাংলাদেশের হিন্দুদের জন্য এখন তিনটি পথ খোলা এক. ধর্ম বদল করে মুসলিম হয়ে যাওয়া –যা ধর্মপ্রাণ হিন্দুর কাছে মৃত্যুর সমতুল্য ।দুই . আত্মহত্যা করা । তিন. দেশত্যাগ করে সীমান্ত অতিক্রম করে ভারত চলে যাওয়া ।' Ref: (ভাঙা মঠ ,পৃ-৭৯)। বইটাতে কি হারে হিন্দুরা স্বদেশ ত্যাগ করে চোখের জলে ভারতে পাড়ি দিয়েছেন তার তথ্য রয়েছে । বই অনুযায়ী ,প্রতিদিন ৪৭৫ জন এবং প্রতি বছর ১৭৩৩৭৫ জন হিন্দু চিরদিনের জন্য বাংলাদেশ ছেড়ে চলে যাচ্ছে । ২০০৪ সালে বইটা যখন কলকাতায় প্রকাশিত হয়েছিল তখন বাংলাদেশে বিএনপির সরকার এবং প্রধান মন্ত্রী খালেদা জিয়া । আবার এই একই সুর শোনা যায় লন্ডন প্রবাসী বাংলাদেশের বিশিষ্ট চিন্তাবিদ ও সাংবাদিক গাফফার চৌধুরীর গলাতে । তিনি তার একটা প্রবন্ধে লেখেন : '২০০১ সালের অক্টোবর নির্বাচনের পর জোট সরকার সেনা ,BDR ও দলীয় ক্যাডারদের সাহায্যে সংখ্যালঘুদের ওপর যে নির্মম নির্যাতন চালায় তাতে তাদের মধ্যে দেশত্যাগের আবার ব্যাপক হিড়িক দেখা দেয়।'

তিনি আরও লেখেন : "আমার কোনও সন্দেহ নেই ,বিএনপি ও জামায়াতের সমন্বয়ে গঠিত বাংলাদেশের বর্তমান জোট সরকার-এর অঘোষিত নীতি হচ্ছে দেশটাকে হিন্দু ,বৌদ্ধ ,খৃষ্টান ও আদিবাসী শুন্য করা ।" ref : দৈনিক স্টেটসম্যান ,১৮.১২.২০০৪। তাই আজকের এই মুক্তিযুদ্ধের গেটকিপার থেকে মালিক আওয়ামী সরকারের আমলে গদি ধরে রাখতে বাঙালি মুসলমান সত্ত্বাকে চাগিয়ে তুলে, হেফাজতি ছায়ায় সেই একই ট্রাডিশন বজায় রাখা হয়েছে ।

সংখ্যালঘুরা কবে বুঝবে যে তারা এই বাংলাদেশে অনাকাঙ্খিত ??

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

রাজর্ষি ব্যনার্জী
রাজর্ষি ব্যনার্জী এর ছবি
Offline
Last seen: 4 ঘন্টা 44 min ago
Joined: সোমবার, অক্টোবর 17, 2016 - 1:03অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর