নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 5 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • শাম্মী হক
  • সলিম সাহা
  • নুর নবী দুলাল
  • মারুফুর রহমান খান
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী

নতুন যাত্রী

  • চয়ন অর্কিড
  • ফজলে রাব্বী খান
  • হূমায়ুন কবির
  • রকিব খান
  • সজল আল সানভী
  • শহীদ আহমেদ
  • মো ইকরামুজ্জামান
  • মিজান
  • সঞ্জয় চক্রবর্তী
  • ডাঃ নেইল আকাশ

আপনি এখানে

আসাম রাজ্যে নাগরিকদের নতুন তালিকাঃ বাংলাদেশের জন্য নতুন সংকট তৈরি করবে কি?


প্রতিবেশী রাষ্ট্র ভারতের আসাম রাজ্যে অস্থিতিশীল অবস্থা বিরাজ করছে। এই অস্থিরতার সৃষ্টি আসাম রাজ্য সরকার কতৃক নাগরিকদের নতুন তালিকা প্রকাশের কারণে। এই তালিকা থেকে লাখ লাখ বাঙালি মুসলিম বাদ পড়েছেন। রাজ্য সরকার বলেছে নাগরিকত্ব পাওয়ার শর্ত পূরণকারীদের আরও দুটি তালিকা প্রকাশিত হবে। তাই নাররিক তালিকা থেকে বাদ পড়াদের উদ্বিগ্ন না হতে বলেছে আসাম সরকার। যদিও সাধারণের ধারনা সবকটি তালিকা প্রকাশের পরও ১৫-২০ লাখ মুসলিম ভারতের নাগরিকত্ব থেকে বঞ্চিত হবেন। কেননা, ভারতের কেন্দ্রীয় আর রাজ্য সরকার মনে করে এই বিপুল মুসলিম জনগোষ্ঠী ভারতীয় নয়, তারা বাংলাদেশী অনুপ্রবেশকারী!

আসাম রাজ্যের এমন কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে পাশ্ববর্তী অন্যান্য রাজ্যের প্রধানরা মুখ না খুললেও, পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী বেশ সমালোচনা মুখর হয়ে উঠেছেন। সেই সমালোচনার জেরে আসাম পুলিশ মমতা বন্দোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে মামলা পর্যন্ত করেছে। পাল্টা হিসেবে মমতা নাগরিকত্ব হারানোর শঙ্কায় থাকা মুসলিমদের নিজ রাজ্যে আশ্রয় দেয়ার ঘোষনা দিয়েছেন। যদিও এটা রাজনীতির মাঠে মমতার ফাঁকা বুলি বলে ধারনা করা হচ্ছে। পশ্চিমবঙ্গের প্রায় ৩২ শতাংশ মুসলিম সম্প্রদায়ের অধিক আস্থা অর্জনের জন্য মমতার এমন ঘোষনা বলে মনে করা হচ্ছে।

পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী যা-ই করুন, আশপাশের রাজ্যগুলো কিন্তু আসামের থেকে কেউ যাতে প্রবেশ করতে না পারে, সেজন্য কড়া নজরদারির ব্যবস্থা করেছে। পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য সরকার আসামে নাগরিকত্ব লাভে ব্যর্থ হওয়া বাঙ্গালি মুসলমানদের থেকে কতজনকে নিজ রাজ্যে ঠাঁই দিবেন, সেটা বলা না গেলেও বাংলাদেশে যে আরেকটি বড় শরণার্থী বা নাগরিকত্বহীন জাতিগোষ্টীর চাপ আসছে, সেটা নিদ্বিধায় বলা যায়। এই বিষয়ে বাংলাদেশের প্রস্তুতি কি?

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে আসা ১০ লাখের বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থীকে নিয়ে বাংলাদেশ মহা সংকটে আছে। মরার উপর খাড়ার ঘা হয়ে যদি আসাম থেকে বিপুল মানুষের ঢল নেমে আসে, সেটা কিভাবে মোকাবেলা করা হবে, সেই বিষয়ে আমি নিশ্চিত নই। বাংলাদেশ রাষ্ট্র আসামের নাগরিকদের এই তালিকা প্রকাশের বিষয়ে উদ্বিগ্ন কিনা, সেটাও আমার জানা নেই। বাংলাদেশের পক্ষ থেকে প্রতিরোধমূলক কোন ব্যবস্থা কিন্তু লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। বন্ধু রাষ্ট্রের একটি রাজ্যের এমন বিতর্কিত নাগরিক তালিকার বিষয়ে বাংলাদেশ সরকারের একটা বক্তব্য প্রদান করা উচিত ছিলো বলে মনে হয়।

সংকট সৃষ্টি হওয়ার পূর্বেই সেটা সমাধানের পদক্ষেপ গ্রহণ করা বুদ্ধিমানের কাজ। আসাম থেকে জনস্রোত নামবে কিনা, সেটা নিশ্চিত করে বলা না গেলেও সেটার সম্ভাবনা উড়িয়ে দেয়ার নয়। সেই সংকট শুরু হলে, বাংলাদেশ থেকেও যে বহু হিন্দু সম্প্রদায়ের মানুষকে শরণার্থী হয়ে ভারতে পাড়ি দিতে হবে, সেটা দায়িত্ব নিয়েই বলা যায়। ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার নাকি হিন্দু শরনার্থীদের নাগরিকত্ব দেয়ার ঘোষনাও দিয়ে রেখেছে। এমন অবস্থায় বাংলাদেশে নিপীড়নের শিকার সংখ্যালঘু সম্প্রদায় আরও বেশি নিরাপত্তাহীনতায় পড়বে, সেটা ধারনা করা যায়। নিজ দেশের সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তায় রাষ্ট্রের প্রস্তুতি কতটুকু, সেটাও আমার জানা নেই।

আসাম থেকে নাগরিকত্ব হারানো মুসলিমরা আসতে শুরু করলে এবং বাংলাদেশ থেকে নির্যাতন সহ্য করতে না পারা, ভারতীয় নাগরিকত্ব পাওয়ার লোভে শরণার্থী হওয়া হিন্দুরা ভারতে পাড়ি দেয়া শুরু করলে, অচিরেই বাংলাদেশ ৯৯ শতাংশ মুসলমানের দেশে পরিণত হবে, এতে কোন সন্দেহ নেই। এমন অবস্থায় সব সংকট উত্তরণে বাংলাদেশের পূর্ব সতর্কতার কোন বিকল্প দেখি না।

বিভাগ: 

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

কফিল উদ্দিন মোহাম্মদ
কফিল উদ্দিন মোহাম্মদ এর ছবি
Offline
Last seen: 3 weeks 6 দিন ago
Joined: রবিবার, মে 8, 2016 - 11:31পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর