নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 2 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • মিশু মিলন
  • নুর নবী দুলাল

নতুন যাত্রী

  • চয়ন অর্কিড
  • ফজলে রাব্বী খান
  • হূমায়ুন কবির
  • রকিব খান
  • সজল আল সানভী
  • শহীদ আহমেদ
  • মো ইকরামুজ্জামান
  • মিজান
  • সঞ্জয় চক্রবর্তী
  • ডাঃ নেইল আকাশ

আপনি এখানে

কট্টর নারীবাদীতা, ডাইসেক্টিং উইথ সেল্ফ পারস্পেক্টিভ


ওকে, লেটস ডাইসেক্ট সামথিং উইথ সেল্ফ পারস্পেক্টিভ

ধরেন,
আপনি চাকরী করেন, ২০কে এর মত বা বেশি স্যালারি পান। তো, আপনের জীবন চালানোর জন্য আপনের স্যালারি এনাফ। আপনে মুভি দেখতে পারেন, বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে ঘুরতে পারেন, দুই তিন মাস টাকা জমায়ে নতুন জেলা ঘুরে আসতে পারেন ইত্যাদি। যেহেতু আপনে একা, তাই মুভির টিকিট প্রিমিয়াম ক্যাটাগরির না হইলেও কোন সমস্যা নাই, রেস্টুরেন্টে মোটামুটি মানের খাবার নিলেও সমস্যা নাই, ঘুরতে যায়ে বোর্ডিং এ ১০০ টাকা পার নাইট খরচ দিয়ে থাকলেও সমস্যা নাই বা ১৫ টাকার পরোটা খায়ে লোকাল বাসে ঘুরলেও সমস্যা নাই।

নো ওয়ান ইজ দেয়ার টু জাজ ইউ, অর কম্পেল ইউ টু ডু সামথিং বেটার।

এখন ভাবেন, আপনে বিয়া করলেন। স্যালারি বাড়লো, ধরেন ৪০কে প্লাস। তারপরেও ভাবেন তো, আপনে ওমন ফ্রি ভাবে ঘুইরা বেড়াইতে পারবেন? ওমন ১৫ টাকার পরোটা খায়ে রাত কাটাইতে পারবেন? যে কোয়ালিটি লাইফ আপনে ২০কে দিয়া লিড করতে পারতেছিলেন, আর পারবেন সেটা?

নো ফাকিং ওয়ে! দেয়ার ইজ সামওয়ান টু জাজ ইউ নাও, কম্পেল ইউ টু ডু সামথিং "ক্লাসি", অ্যান্ড টু মাই পয়েন্ট, দেয়ার ইজ আ বারডেন ইন ইয়োর লাইফ নাও।

ওকে, এখন আর ও সামান্য গভীরে যাই।
বিয়ার পর বাচ্চা নিয়া ফালাইলে আর আপনার সেল্ফ টাইম পাস করার মত টাইম হাতে থাকবে? পারবেন আর রাস্তায় দাড়ায়ে চায়ে পাউরুটি ডুবায়ে খায়ে টাকা জমায়ে ঘুরতে?

নো, নাও ইউ হ্যাভ গট রুট, অ্যান্ড ইউ মাস্ট প্রোভাইড আ গুড, কোয়ালিটিফুল লাইফ টু ইয়োর কিডস।

আই থিংক ইউ গট মাই পয়েন্ট।

সো, এই জায়গা থিকা আমি বিয়া করা আর বাচ্চা নেওয়া, নিজে জীবন উপভোগ করার পরিপন্থী মনে করি।

কিন্তু তারপরেও বিয়া ক্যান অবসোলিট হচ্ছে না?
কারণ ইউ হ্যাভ টু হ্যাভ সামওয়ান ইন ইয়োর লাইফ।

মানব জাতির মধ্যে একা থাকার বিষয়টা নেই। যখন সে একা থাকে, তখন ও তার মনে থাকে হাজার মানুষ।

হুমায়ুন আহমেদ স্যারের কথা, আমার না।

এই কাউকে সাথে রাখার প্যাটার্ন থেকেই ফ্যামিলি, ফ্রেন্ডস এই টার্মগুলার আবিষ্কার।

হ্যা, ফ্রেন্ডস এর সাথে খুনসুটি কইরে জীবন কাটানো যায়। কিন্তু যখন যখন আপনের বেস্টি ও বিয়া কইরে ফেলে, তখন আর আপনে রাত দুইটার সময় আপনের মাথার ফাউল চিন্তা ডিস্কাস করার জন্য মাত্র সেক্স কইরা ঘুমাইতে যাওয়া বেস্টিরে ফোন দিয়া ঘুম ভাঙ্গাইতে পারেন না।
সোশ্যাল নর্মস ডাজন্ট সাপোর্ট দ্যাট।

এই রাইত বিরাতে মনের কথা কইয়া ফালানোর জন্য ও বিয়া করণ লাগে।
ইন দ্যাট সেন্স, ম্যারেজ ইজ জাস্ট আ লাইসেন্স টু হ্যাভ সামওয়ান টু এন্ডিউর ইয়োর কোয়ার্কস, অ্যান্ড রেপেল ইয়োর মেলাঞ্চলি, নাথিং মোর দ্যান দ্যাট।

নাউ লেটস ডাইসেক্ট,
এই সমস্ত ভভাইবা যখন একটা পোলার একা থাকা, জীবন কাটানো জাস্টিফাই করতে পারি, ও, আচ্ছা, ম্যারেজ এর আরেকটা পার্ট আছে, সেক্সুয়াল রিলিফ, সে যদি ইন এ্যানাদার ওয়ে ক্যান রিলিভ হিজ সেক্সুয়াল আর্জ, হি ডাজন্ট নিড টু ম্যারি, তবে নারী যদি চায়, সেটা কেন মানতে পারবো না?

ইন দিস ক্লজ, কট্টর নারীবাদীরা যখন বিয়ার কোন দরকার নাই, বিয়া মানে শিকল পড়া, প্রেম মানে আটকা পড়া টাইপ লেখা লেখে, আমি প্রতিবাদ করতে পারি না, ঠিকই আছে।

কিন্তু পুরুষের একা থাকাটা আমরা মানতে পারি, আবার নারীরটা পারি না, এর পিছনে অন্য একটা কারণ ও আছে।
নারী ইকোনমিকালি কখনোই ফ্রি না, তার চাহিদা মেটাতে বাপ-ছোট বয়সে, স্বামী-একটু বড়, পোলা-বুইরা বয়সে, এদের মুখাপেক্ষী হইতে হয়।

এগেইন, ইন দিস ক্লজ, কট্টর নারীবাদীতা আমি খারাপ চোখে দেখি না। এক্কেবারে আটকা পড়া অবস্থা থিকা কট্টর নারীবাদীতা যদি মোটিভেট কইরে সামান্যতম হইলেও চেঞ্জ আনতে পারে নারীর মনে, বিশ্ববিদ্যালয় পাশ কইরাও যে স্বামীর এম্বারগো মাইনা বাইরে কাজ করতে চায় না, সেগুলো চেঞ্জ করতে পারে, তবে খারাপ কী?

তবে সমস্যা হইলো, এই যে বিরাট লেখা লেখলাম, এই আমিও ওই হরমোনাল আর্জের বাইরে যাইতে পারি না, হরমোনের হাতে বান্ধা পইড়াই যাই, যখন দেখি হুদাই মন খারাপ হয়া গেছে, যা আবার বেস্টির লগে আলাপ করা যাইত, কিন্তু বেস্টি ব্যস্ত, তখন মনে হয় কোয়ার্কি আলাপগুলা পারার লাইগা কেউ থাকলে নির্দিষ্ট, খারাপ হইত না।

তাই এইসব লিখি না, মন চায় না। যেটা আমি মানতে পারুম না, তা ঢাকঢোল পিটায়ে লিইখা কী লাভ?

তয়, আপনেরা যদি পারেন, তইলে আমার স্যালুট। কট্টর নারীবাদী লেখা লেইখা তাগোর ইকোনোমিক মুক্তি আনেন, উল্টাপাল্টা ভুজুং দিয়া মাথা খাইয়েন না।

ওভার অ্যান্ড আউট।

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

সূর্যসন্তান
সূর্যসন্তান এর ছবি
Offline
Last seen: 1 month 3 weeks ago
Joined: রবিবার, নভেম্বর 5, 2017 - 2:09পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর