নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নুর নবী দুলাল
  • সৌম্যজিৎ দত্ত
  • নগরবালক
  • কাঙালী ফকির চাষী

নতুন যাত্রী

  • নীল মুহাম্মদ জা...
  • ইতাম পরদেশী
  • মুহম্মদ ইকরামুল হক
  • রাজন আলী
  • প্রশান্ত ভৌমিক
  • শঙ্খচূড় ইমাম
  • ডার্ক টু লাইট
  • সৌম্যজিৎ দত্ত
  • হিমু মিয়া
  • এস এম শাওন

আপনি এখানে

আমেরিকার মিলিটারি ইন্টেলিজেন্স স্বীকার করল UFO ও বহির্জাগতিক উন্নত প্রানীর অস্তিত্ব সত্য


বেশ কয়েক দশক ধরে আলোচনা সমালোচনা চলছে , বিশ্বে মানুষই একমাত্র উন্নত প্রানী না। বরং বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তেই বুদ্ধিমান জীব আছে আর তারা মানুষের চাইতেও বহু উন্নত। এসব নিয়ে বহু বই পুস্তক, অনলাইনে বহু ভিডিও , ওয়েব সাইট আছে। কিন্তু এ পর্যন্ত কখনই এমন কোন নির্ভরযোগ্য ব্যাক্তি এ বিষয়ে সুনির্দিষ্ট প্রমান দাখিল করেন নি। এবারই প্রথম আমেরিকার মিলিটারী ইন্টেলিজেন্সের একজন প্রাক্তন কর্মকর্তা CNN এ সেটা স্বীকার করলেন।

প্রথমেই আমরা সেই ভিডিওটা দেখি , যাতে সেই প্রাক্তন কর্মকর্তা বিষয়টা স্বীকার করেছেন --মাত্রই চার মিনিটের একটা ভিডিও , সেটা দেখুন আগে

আমেরিকার মিলিটারীতে UFO investigation এ এক সময় কর্মরত ছিলেন এই কর্মকর্তা CNN এর মত বিশ্ব মিডিয়াতে প্রকাশ্যে বলছেন - তারা আকাশে এমন বহু উড়ন্ত বস্তুর দেখা পেয়েছেন যা দুনিয়ার কোন দেশের তালিকায় নেই। অভিজ্ঞ পাইলট , এমন কি রাডারের মাধ্যমেই এসব উড়ন্ত বস্তু পর্যবেক্ষন করা হয়েছে।

তিনি বলছেন - এসব উড়ন্ত বস্তুর উড্ডয়ন পথ কোনভাবেই পৃথিবীর বাইরে থেকে আসা উল্কা পিন্ড বা গ্রহানু নয় কারন এদের উড্ডয়ন পথের প্রকৃতি। এসব উড়ন্ত বস্তু হঠাত করে এক যায়গায় দাড়িয়ে পড়ে , কখনও অতি দ্রুত গতিতে চলে , কখনও বা আস্তে চলে। তারপর তারা হঠাত করে এমন বাক নেয় যা পৃথিবীর কোন মহাকাশ যান বা কোন বিমান করতে পারবে না। উল্কা বা গ্রহানু কখনও এই ভাবে উড়তে পারে না। তিনি বলেন - অভিজ্ঞ পাইলটরাই এটা শুধু সরাসরি দেখেছেন, তাই নয়, এরকম অনেক বস্তুই রাডারে দেখা গেছে , ও তাদের উড্ডয়ন পথ পর্যবেক্ষন করা হয়েছে। দেখা গেছে , এরা এই রাডারে ধরা পড়ছে , আবার হারিয়ে যাচ্ছে। তার মানে বর্তমানে আমরা যে স্টিলথ প্রযুক্তির কথা বলি , যেমন আমেরিকার সদ্য তৈরী করা F-35 যুদ্ধ বিমান যা রাডারে ধরা পড়বে না , তেমন চরিত্র এদের ।

তার মানে অতি উন্নত কোন জীবেরাই এই ধরনের মহাশুন্যযান বানিয়ে পৃথিবীতে পঠিয়ে থাকতে পারে , যারা এখানে এসে হয়তবা আমাদের মানব সভ্যতাকে নিয়মিত ভাবে পর্যবেক্ষন করছে।

ঘটনা সত্যি না হলে এই কর্মকর্তা বিশ্ব মিডিয়াতে এসে এ কথা বলতেন না। যাইহোক বিষয়টা যখন সত্য ,তখন আমাদের দুনিয়াতে চলা এত সব ধর্মের এখন কি হবে ? নবী রসুল বা দেব দেবতাদের কি হবে ? তারা এখন কোথায় পালাবে ?

Comments

P K Bhowmik এর ছবি
 

এমন ও হতে পারে এরাই প্রিথিবীতে বিভিন্ন প্রজাতির প্রানি রেখে গিয়েছিল আর এদেরকেই মানুষ আল্লাহ্‌, ফেরেশতা, দেব দেবি, গড হিসাবে মেনে এসেছে। স্রষ্টার বিশ্বাস ত আদিম জুগ থেকেই। পরে বিভিন্ন মানুষ বিভিন্নভাবে অংকিত করেছে.....হতে পারে না? হতে পারে অদের পাঠানো বা ছেড়ে দেয়া প্রানিরা কেমন জীবন যাপন করছে, তা দেখতেই হয়ত অরা প্রিথিবী তে আসে? Kind of scientific experiment.....

 
মৃত কালপুরুষ এর ছবি
 

ধন্যবাদ সুন্দর একটি বিষয় উপস্থাপন করার জন্য। তবে এটি এখনও একটি বিতর্কিত ব্যাপার তাই এটা নিয়ে কোন মন্তব্য নয় আগে একটি নুন্যতম প্রমান দেখতে চাই পৃথিবীর মানুষ।

-------- মৃত কালপুরুষ

 

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

কাঠমোল্লা
কাঠমোল্লা এর ছবি
Offline
Last seen: 3 দিন 8 ঘন্টা ago
Joined: শুক্রবার, এপ্রিল 8, 2016 - 4:48অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর