নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 5 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • সাইয়িদ রফিকুল হক
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • ড. লজিক্যাল বাঙালি
  • মোমিনুর রহমান মিন্টু
  • রহমান বর্ণিল

নতুন যাত্রী

  • আদি মানব
  • নগরবালক
  • মানিকুজ্জামান
  • একরামুল হক
  • আব্দুর রহমান ইমন
  • ইমরান হোসেন মনা
  • আবু উষা
  • জনৈক জুম্ম
  • ফরিদ আলম
  • নিহত নক্ষত্র

আপনি এখানে

বাঙালি নাস্তিক ব্লগারদের সাফল্য এবং ব্যর্থতা!!


প্রিয় নাস্তিক মুক্তমনা ভাইরা, কখনো কি ভেবেছেন আপনি কেন ধর্ম নিয়ে এত লেখালেখি করেন?

কখনো কি ধার্মিকদের এমন প্রশ্নের সম্মুখীন হয়েছেন। আপনি কেন দিনরাত এক করে সোশ্যাল মিডিয়ায় লেখালেখি করতেছেন? তাতে আপনার লাভ কি? কার ইন্ধনে আপনে এগুলো করতেছেন? লেখালেখির মাধ্যমে আপনি কি প্রমান করতে চাইতেছেন? অন্য আট দশজন ভালো নাস্তিকের মত চুপচাপ থাকুন। আর সেটাই হবে সমাজের জন্য মঙ্গল কর।

এমন প্রশ্নের সম্মুখীন হয়নি, এইরকম নাস্তিক পাওয়া দুর্লভ। ধার্মিকদের গালিগালাজ শোনেননি এমন নাস্তিকও পাওয়া যাবেনা। যারা ভালো নাস্তিক সেজে চুপচাপ থাকার চেষ্টা করে তারাও ধার্মিকদের গালাগালির হাত থেকে রক্ষা পায়না। কিন্তু গালাগালী শুনতে শুনতে নাস্তিকরা এমন একটা পর্যায়ে চলে যায়, কোন গালিগালাজ চোখে পড়লেই তখন শুধুমাত্র হাসতে ইচ্ছে করে।

কিন্তু কেন? নাস্তিকদের মূল উদ্দেশ্য কি? সেটা কখনো ভেবে দেখেছেন? এই যে হাজার হাজার নাস্তিক ব্লগার লেখালেখি করতেছে তাদের মূল উদ্দেশ্য কি? তাদের সঠিক গন্তব্য কোথায়, তারা কতদিন লেখালেখি করবে? তারা কি এই পথচলার শেষ ঠিকানা জানে?

নাস্তিকরাও মানুষ তাদেরও অন্য আট দশজন মানুষের মত অনুভুতি আছে। তারাও আঘাত পেলে কাঁদে আনন্দ পেলে হাসে, তারাও অন্যসব মানুষের মত সাধারন ভাবে জীবন যাপন করে।

পার্থক্য শুধু একটাই সেটা হলে চিন্তার অমিল। ১৬ কোটি বাঙালির মধ্যে তারা একটু ভিন্নরকম। তারা নামাজ পড়ে না, পুজো করে না, প্রার্থনা করার জন্য কোন গির্জায়ও যায় না। তাদের স্বর্গের লোভ নেই, নরকের ভয় নেই, কবর আযাবের ও চিন্তা নেই।

তাদের উদ্দেশ্য একটাই অসম্প্রদায়িক মানবিক একটা বাংলাদেশ। যেখানে মানুষ প্রাণ ভরে নিঃশ্বাস নিতে পারবে। সকল সম্প্রদায়ের মানুষ একসাথে গাইবে সাম্যের গান। যেখানে সবাই হাঁটতে পারবে আপন মনে। যেখানে ধর্মের দোহায় দিয়ে কেউ কারোর ওপর আক্রমণ করবে না। যেখানে নারায়ে তাকবীর বলে কেউ কারো গলায় চাপাতি চালাবে না। যেখানে শিশুরা মুক্ত বিহঙ্গে খেলে বেড়াবে। যেখানে মানুষ সৃষ্টিকর্তার ভয়ে নয়, মানবতার দিকে লক্ষ্য রেখে মানুষকে ভালোবাসবে।

যেখানে হিন্দু-মুসলিম-বৌদ্ধ-খ্রিষ্টান-নাস্তিক-ইহুদি সবাই হাতে হাত মিলিয়ে বলবে এই বাংলাদেশ আমাদের সবার। এদেশের মাটি আমাদের মা। এদেশের মাটি আমাদের হৃদয়ের সাথে মিশে আছে। যে মাটিতে আমাদের পূর্বপুরুষরা ঘুরে বেরিয়েছে মনের আনন্দে। যে মাটিকে শকুনের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য প্রাণ দিয়েছে ত্রিশ লাখ মানুষ। যে মাটির জন্যে নষ্টদের হাতে ধর্ষিত হয়েছে আমাদের লাখো মা বোন। যে মাটির স্বপ্ন দেখেছেন শেখ মুজিবের মত মহান মানুষ।

নাস্তিক মুক্তমনারাও ঠিক এমন একটি দেশের স্বপ্ন দেখে যাচ্ছে প্রতিনিয়ত। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নের জন্য কাজ করে যাচ্ছে নিরন্তর।

যেই স্বপ্ন দেখেছিলেন হুমায়ুন আজাদের মত ভাষাবিজ্ঞানী প্রথাবিরোধী লেখক। যে স্বপ্ন দেখেছিলেন আরজ আলী মাতব্বরের মত, গ্রামের ধুলিমাখা পথে হাঁটা একজন সাদামাটা মানুষ।

যেই স্বপ্ন হৃদয়ে ধারণ করে প্রাণ দিতে হয়েছে হুমায়ুন আজাদকে। যেই স্বপ্ন কেড়ে নিয়েছে অভিজিৎ রায়ের মত একজন বিজ্ঞানমনস্ক লেখকের প্রাণ। যে স্বপ্নের আশায় চাপাতিকে বরণ করে নিয়েছে, রাজীব হায়দার' অনন্ত বিজয়' ওয়াশিকুর রহমান বাবু' নিলয় নীল' সহ অনেক মুক্তমনা ব্লগার। যে স্বপ্ন বুকে নিয়ে দেশ থেকে বিতাড়িত হয়েছেন তাসলিমা নাসরিনের মত শক্তিশালী নারীবাদী লেখিকা।

এই স্বপ্নকে ছেলেখেলা মনে করে উড়িয়ে দেওয়ার মত স্বপ্ন নয়। এই স্বপ্নকে হাঁসি দিয়ে উড়িয়ে দেয়ার মতো কিছু নেই। বাংলাদেশকে নিয়ে স্বপ্ন দেখে গেছে অনেক মানুষ। বিনিময় হতে হয়েছে দেশ থেকে বিতাড়িত। সহ্য করতে হয়েছে চাপাতির মত শক্তিশালী আঘাত। যে আঘাত দমিয়ে দিতে পারেনি আসিফ মহিউদ্দিনকে। যে আঘাত সহ্য করেও প্রতিনিয়ত লড়াই করে যাচ্ছে বন্যা আহমেদের মতো একজন মানুষ।

যে আঘাতের ভয়ে চুপকরে নেই'হাজার হাজার নাস্তিক ব্লগার! মানুষের কথা বলার স্বাধীনতার জন্য তারা নিরন্তর পরিশ্রম করে যাচ্ছে। তাদেরকে দমিয়ে দেওয়া এত সহজ নয়। ফেসবুক ইউটিউবে ব্লক করে রিপোর্ট দিয়ে, গালাগালি করে নাস্তিকদের মুখ বন্ধ করা যাবে না। বাড়িঘরে ভাঙচুর করে, মামলা করে, দেশ থেকে তাড়িয়ে দিয়ে, নাস্তিকদের মুখ বন্ধ করা যাবেনা।

বন্ধ করা যাবেনা ইস্টিশন-উইমেন চ্যাপ্টার-মুক্তমনার মত শক্তিশালী প্লাটফর্ম। বন্ধ করা যাবে না আসিফ মহিউদ্দীনের লেখা। বন্ধ করা যাবেনা মোফাস্সিল ইসলামের সারা পৃথিবী ঘুরে বেড়ানো সাহসী পদক্ষেপ। বন্ধ করা যাবেনা আরিফুর রহমানের ধর্মনিয়ে যুক্তিপূর্ণ আলোচনা। বন্ধ করা যাবে না আরিফ রহমানের মত তরুণ লেখকদের চিন্তাশক্তি। বন্ধ করা যাবেনা আব্দুল্লাহ আল মাসুদের সাহসী উদ্যোগ। বন্ধ করা যাবেনা সুষুপ্ত পাঠক-এর শক্তিশালী কলম।

এই ষোলো কোটি মানুষের বাংলাদেশ নিয়ে নাস্তিকদের থেকে বেশি চিন্তা কেউ করেনা! নাস্তিকরা রাজনীতি করে না। ধর্ম নিয়ে ব্যবসা করে না। সরকারি উচ্চপদস্থ জায়গায় বসে দুর্নীতি করার কোন ইচ্ছে তাদের নেই। চেয়ারম্যান-এমপি-মন্ত্রী হয়ে সরকারি টাকা লুটপাট করার কোনো খায়েশ তাদের মধ্যে কখনো হয়ে ওঠেনি। আর ভবিষ্যতেও হবে না।

নাস্তিকরা শুধু কথা বলার অধিকার চায়। নাস্তিকরা শুধু মুক্তভাবে চলাফেরা করার স্বাধীনতা চায়। নাস্তিকরা শুধু পরিবারের অন্য সদস্যদের নিয়ে ভালোভাবে বাংলাদেশে বেঁচে থাকতে চায়। নাস্তিকরা নারী-পুরুষ সবাইকে সমান মনে করে। নাস্তিকরা হিন্দু-মুসলমান- বৌদ্ধ-খ্রিস্টান সবাই কে আপন মনে করে। নাস্তিকদের মধ্যে ধর্ম-বর্ণের কোনো বেদাবেদ নেই। কে ধনী-কে গরিব, কে শিক্ষিত-কে অশিক্ষিত নাস্তিকরা এসব বিষয় খোঁজাখুঁজি করে না। নাস্তিকরা সবাইকে মানুষের চোখে দেখে।

নাস্তিকরা সুন্দর একটা মানবিক বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখে অন্যসব দেশের মানুষদের মত। আর মৃত্যুর আগ পর্যন্ত এই স্বপ্ন তারা দেখে যাবে। তাদের এই উদ্দেশ্যকে প্রতিহত করার ক্ষমতা পৃথিবীর কোন মানুষের নেই। তাদের এই পথ চলাকে দমিয়ে দেয়ার ক্ষমতা বাংলাদেশের কোন কুলাঙ্গার ধর্মীয় সরকারের পর্যন্ত নেই।

বাংলাদেশের নাস্তিকরা আগের থেকে মোটামুটি এখন অনেক এগিয়ে। বাংলাদেশের নাস্তিকদের এখন হাজার হাজার ফলোয়ার। এখন প্রকাশ্যে নাস্তিকদের পক্ষে লেখালেখি হচ্ছে। যে বিষয়টা একসময় কল্পনাও করা যেতনা। দেশের বাইরে থাকা নাস্তিক ব্লগাররা বাংলাদেশের ফিরে আসবে, সেই দিন আর বেশি দূরে নয়। নাস্তিকদের পক্ষে লাখ লাখ মানুষের সমাবেশ হবে। সেই স্বপ্নের লাল সূর্য উদিত হতে আর বেশি দিন সময় লাগবে না।

নিজেকে ভালো নাস্তিক সাজিয়ে হাঁটু গেড়ে বসে থাকার মধ্যে কোন সার্থকতা নেই। ভালো নাস্তিকরা যাদেরকে উগ্র নাস্তিক মনে করেন, সেই উগ্র নাস্তিকদের এই নিরন্তর লড়াই চলছে চলবে। যতদিন না বাংলাদেশ থেকে ধর্মান্ধতা দূর করা যাবে। যতদিন না ধর্মীয় অন্ধবিশ্বাসের নামে মানুষকে অন্ধকারে ঠেলে দেওয়া বন্ধ না হবে। যতদিন না মানুষ প্রকাশ্যে তার হৃদয়ে জমে থাকা কথাগুলো বলতে পারবে। ততদিন এই আন্দোলন সংগ্রাম চলবে।

ডিসেম্বর বিজয়ের মাস উপলক্ষে,সকল নাস্তিক-মুক্তমনা-ব্লগারের প্রতি আমার গভীর শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা!!

বিভাগ: 

Comments

নুর নবী দুলাল এর ছবি
 

ভাল লিখেছেন। ভাল নাস্তিক বলে যারা নিজেদের পরিচয় দেয় এরাও মডারেট ধার্মিকদের মত ভণ্ড ও সুবিধাবাদী। এদেরকে নাস্তিক মনে করার কোন কারণ দেখি না।

 
মৃত কালপুরুষ এর ছবি
 

এই উদ্যোগের কারনে এমন অনেকের চেহারা দেখতে পারলাম যারা মনে করে এই জাতীয় কিছু করলে আমরা সবাই নাকি টার্গেটে পড়ে যাবো। এই চিন্তা করে যদি এই জাতীয় ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র কাজে আমরা আজো না না বলে চিৎকার করতে থাকি তাহলে কবে আমরা বলতে শিখবো ???

-------- মৃত কালপুরুষ

 
সাহাবউদ্দিন মাহমুদ এর ছবি
 

এটাতে হতাশ হওয়ার কিছু নেই। এরকম কিছু ভালো নাস্তিকদের মুখ আমাদের দেখতেই হত আজ না হয় কাল, আমরা আমাদের চেষ্টা চালিয়ে যাব,একটা জাতিকে পঙ্গু করে দিয়ে ঘরে বসে থাকার মধ্যে কোন সার্থকতা নেই। আমাদের কলম চলবে, আর এইরকম উদ্যোগ প্রতিনিয়ত চলতে থাকবে। ইস্টিশনকে ধন্যবাদ আমাদের পাশে থাকার জন্যে। মৃত কালপুরুষ আপনাকেও ধন্যবাদ ভাই আপনার এই সাহসী উদ্যোগের জন্য।

Shahabuddin

 
আর এইচ মিলন এর ছবি
 

সাহাবুদ্দিন মাহামুদ, তুমি এযুগে নতুন প্রজন্মের উদ্দমতা, তোমার লেখার প্রতিটা লাইন সমাজের নৃশংসতার যাঁতাকলে নিষ্পেষিত হৃদয়ের প্রতিটা মানুষের নতুন প্রানের বারতা।
তোমার সৃজনশীল চিন্তা সত্যিই প্রশংশনীয়। সাহস খুজে পেলাম তোমার অভিব্যক্তির মাঝে সাথে পেলাম প্রতিরোধ করার অস্র সমাজের সব অন্যায় অবিচারের বিরুদ্ধে রুখে দারানোর।
আর ঘুমিয়ে থেকোনা ঘুমন্ত হৃহয়ের জনতা। মাঠে নেমে পরো, সময় এসেছে এবার, এক হওয়ার। আমাদের আদর্শ, আমরা যাদের অনুসরন করি তাদের প্রতিও আমার নিবেদন এই যে, আপনারা আপনাদের মধ্যে গুটিয়ে থাকবেন না। সাহাবুদ্দিনের মত হাজার লেখকদের বাচিয়ে রাখুন আপনাদের অনুপ্রেরনায়। কারন আপনারা বেচে আছে ও এবং আমাদের হৃদয়।

 

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

সাহাবউদ্দিন মাহমুদ
সাহাবউদ্দিন মাহমুদ এর ছবি
Offline
Last seen: 8 ঘন্টা 39 min ago
Joined: মঙ্গলবার, আগস্ট 8, 2017 - 12:09পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর