নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • বিকাশ দাস বাপ্পী
  • রসিক বাঙাল
  • এলিজা আকবর

নতুন যাত্রী

  • সাতাল
  • যাযাবর বুর্জোয়া
  • মিঠুন সিকদার শুভম
  • এম এম এইচ ভূঁইয়া
  • খাঁচা বন্দি পাখি
  • প্রসেনজিৎ কোনার
  • পৃথিবীর নাগরিক
  • এস এম এইচ রহমান
  • শুভম সরকার
  • আব্রাহাম তামিম

আপনি এখানে

দারিদ্র্যের কাছে ধর্ম এক নিষ্ঠুর প্রহসন!


বেশ্যাবৃত্তি নি:স্বন্দেহে সীমা লঙ্ঘন। কিন্তু স্বামি পরিত্যেক্তা নিরুপায় যে মেয়েটি সন্তানের মুখে আহার তুলে দেয়ার জন্য পতিতাবৃত্তির এই ঘৃন্য পথটি বেচে নেয় ধর্মে তার জন্য আলাদা কোন বিধান আছে কি না আমার জানা নাই।

নারীদের অন্ত:পুরে থাকার জন্য ধর্মে সুস্পষ্ট নির্দেশ দেয়া আছে। পুরুষের সহচর্যে আসা সমগ্র নারী জাতের জন্য নিষেধ। কিন্তু বিকল বৃদ্ধ অসহায় বাবা, সয্যাশায়ী মা, পঙ্গু স্বামী অথবা অসহায় সন্তানের পেটের ভাত যোগাতে যে মেয়েটি পুরুষের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে রাস্তায় ইট ভাঙা কিংবা সিমেন্ট ঢালাইয়ের কাজ করতে বাধ্য হয়, ধর্ম কি তার জন্য রোজ হাসরের অন্তিম বিচারের দিন একটু শিথিল হবে?

মিথ্যা বলা মহা পাপ। মিথ্যা সকল পাপের জননী। কিন্তু সত্যে যখন ভিক্ষা জোটে না, তখন যে নি:স্বন্তান ভিক্ষুকটিও একটা টাকা বাড়তি পাওয়ার জন্য 'সন্তান দুারারোগ্য ব্যধীতে আক্রান্ত' বলে ভিক্ষা চেয়ে আপনার আমার কাছে হাত পাতে, সেই মিথ্যাবাদী ভিক্ষুক কে কোন মিথ্যার জন্য দন্ড দেয়া হবে জানতে খুব ইচ্ছে করে।

"এই ঈদে পুরানো জামাটা ধুয়ে ইস্ত্রী করে চালিয়ে দাও, সামনে মাসে তোমাকে এক জোড়া নতুন জামা কিনে দিবো" যে অসহায় বাবা তার অবুঝ সন্তান কে এরকম মিথ্যে আশ্বাস দিয়ে বছরের পর বছর পার করিয়ে দেয়, সেই মিথ্যাবাদী বাবা কে ধর্মের কোন দন্ডে দন্ডিত করলে এত বড় মিথ্যার উপযুক্ত শাস্তি হবে ধার্মীকেরা জানাবেন।।

"দুনিয়াতে যার সম্পদ কম আখিরাতে তার হিসেবও সহজ হবে" অথবা, "ধনীর ৫শত বৎসর আগে স্বর্গে যাবে গরীবরা"। ধর্মে গরীবের জন্য আর কিছু না থাক, এরকম গাল ভরা কিছু সান্তনা আছে।

মানতে নারাজ। দারীদ্রতার যাঁতাকলে পিষ্ট হয়ে নিজের এবং পরিবারের অন্য সদস্যদের মুখে দু'বেলা দু'মুঠো ভাত তুলে দেয়ার জন্য একজন গারীব কে সারা জীবন যে পরিমান মিথ্যা বা অন্যায় পন্থার আশ্রয় নিতে হয়, তার হিসেব ৫শ বছর কি? ৫হাজার বছরেও শেষ হবে না। সুতরাং তার স্বর্গের পথও বন্ধ।

মৃত্যুর পর স্বর্ন খচিত পালঙ্কে দিবা-রাত্রি উপবিষ্ট থাকার চেয়ে জিবদ্দশায় এক থালা গরম ভাতের উপযোগিতা যে কত বেশি সেটা কেবল অভুক্ত ব্যক্তিই বলতে পারবে।

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

রহমান বর্ণিল
রহমান বর্ণিল এর ছবি
Offline
Last seen: 12 ঘন্টা 7 min ago
Joined: রবিবার, অক্টোবর 22, 2017 - 9:43অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর