নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • বিকাশ দাস বাপ্পী
  • রসিক বাঙাল
  • এলিজা আকবর

নতুন যাত্রী

  • সাতাল
  • যাযাবর বুর্জোয়া
  • মিঠুন সিকদার শুভম
  • এম এম এইচ ভূঁইয়া
  • খাঁচা বন্দি পাখি
  • প্রসেনজিৎ কোনার
  • পৃথিবীর নাগরিক
  • এস এম এইচ রহমান
  • শুভম সরকার
  • আব্রাহাম তামিম

আপনি এখানে

ব্রাহ্মন আর আলেমদের নিয়ে কিছু কথা।


ছোটবেলা থেকে মা বাবার মুখে শুনে এসেছি ধর্ম মানুষকে আলোর পথ দেখায়,নৈতিকতার সন্ধান দেয়,চিত্ত গুহার অন্ধকার দূর করে।কিন্তু দুখের বিষয় হলো,হিতে বিপরিত।।
যেমন,ধর্ম মানুষকে অন্ধ বানিয়ে দেয়। বিবেকের দরজা বন্ধ করে দেয়। জীবনকে অন্ধকারময় করে তোলে। কিন্তু কেন? তাহলে কি মা বাবা মিথ্যে কথা বলতো? সেটাও বা কি করে হয়। তাদের তো কখনো অন্যায় করতে দেখিনি। তারা তো সেই ধর্মকে আশ্রয় করেই বেচে আছে। তাদের মধ্যে কখনো তো আমি অনৈতিকতা,বর্বরতা,অমানুষিকতা দেখিনি। তবে কি তাদের ধর্ম আলাদা?

আজ পৃথিবীতে ধার্মিকদের সংখ্যা খুব বেশি বেড়ে গেছে। মাঝে মধ্যে চোরের মুখেও ধর্ম কথা শোনা যায়। কই, তাতে চোর তো চুরি করা বন্ধ করলো না! বা খুনির হাতে খুন হওয়া! বন্ধ তো হলনা ধর্ষকের দ্বারা কৃত ধর্ষনের মত যঘন্যতম কর্ম। তবে তারা কোন ধর্মে দ্বীক্ষীত?

ব্রাহ্মন তো প্রতিদিনই শাস্র পাঠ করে। তবে কেন তারা সমাজে বৈসম্য সৃষ্টি করে ? কেন সমাজকে ভেঙে টুকরো টুকরো করে? কেন তারা হিংসার মত জঘন্য ভাইরাস সমাজের মধ্যে ছড়িয়ে ছিটিয়ে বেরায়। পৈতা পরেও লোভ লালসা চরিতার্থের জন্য জ্বিভ বেড় করে থাকে। পৈতা কেন তাদের জ্বিভ গুলোকে বেধে রাখতে পারে না ? যদিও কালের বিবর্তনে উন্নত চিন্তা ধারা বহন কারী কিছু মস্তিস্ক, কিছুটা হলেও নতুনত্ব উপহার দিতে পেরেছে নিপীড়িত সমাজকে। কিছুটা হলেও পাল্টাতে পেরেছে সনাতনি সমাজব্যবস্থার ভয়ংকর রূপ রেখা।

এদিকে হুজুর/মোমিনরা প্রতিদিন কুরান পড়ে। কুরান নাকি তাদের জ্ঞানের আলো। সকল সৃষ্টির মুল তত্ব। তবে কেন তারা নতুনত্বকে পায় লাথি মারে।ধংসের অগ্রীম পরিকল্পনা করে সম্ভব্য সব নতুন সৃষ্টি গুলোকে। কেন তারা মাথায় টুপি পরে, দাড়ি রেখে হিংসাত্বক বিবৃতি ছড়িয়ে বেড়ায় সমাজের প্রতিটা মানুষের হৃদয়। তাহলে দারি টুপি কি তাদেরকে মোটেও সংযমী হওয়ার শীক্ষা দেয় নি? কেন তারা হুরের আশায় ধর্ম পালন করে? কেন তারা বর্বরতার চরম পর্যায় গিয়ে সমাজ কে অনৈতিক শৃঙ্খলে বাধতে চায় ?

যদি ধর্ম পবিত্র হয়, তবে কেন তারা ধর্মের গায়ে রাজনীতির ন্যায় নোংরা কাদামাটি লেপন করে? কেন তাদের কুরানে ধর্ষনের মত জঘন্য কুকর্মের স্বীকৃতি দেয় ? তাহলে প্রশ্ন ওঠে, ধর্ম ভুয়া নাকি ধর্মের পুস্তক । তাহলে গোজামিলটা কোথায়? যদি ধর্ম খারাপ হয়ে থাকে তাহলে, সেই ধর্মের পুস্তক তো খারাপ হবেই। তবে সেই ধর্ম পালন করারই বা কি দরকার?

আমার সাজেসন হলো হয় নাস্তিক হন,নায় হয় ধর্মকে শুদ্ধ করুন,অথবা ধর্ম যদি পালন করতেই হয় তাহলে যে ধর্ম তুলনা মূলক ভালো সেই ধর্ম গ্রহন করুন। নিজে শান্ত হন আর সমাজের মানুষকেও শান্তি দিন। বুঝেছেন তো? কোন ধর্মের কথা বলেছি!যে ধর্ম পালনে নৈতিকতা,মহানুভবতা,সংযমীতা,ধৈর্য্য,ত্যাগ,
নিয়ে শান্তিতে জীবন জাপন করা যায় সেই ধর্ম পালন করুন।
---------- ভাল থাকবেন সবাই---------

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

আর এইচ মিলন
আর এইচ মিলন এর ছবি
Offline
Last seen: 1 week 2 দিন ago
Joined: সোমবার, অক্টোবর 9, 2017 - 11:05পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর