নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • বিকাশ দাস বাপ্পী
  • রসিক বাঙাল
  • এলিজা আকবর

নতুন যাত্রী

  • সাতাল
  • যাযাবর বুর্জোয়া
  • মিঠুন সিকদার শুভম
  • এম এম এইচ ভূঁইয়া
  • খাঁচা বন্দি পাখি
  • প্রসেনজিৎ কোনার
  • পৃথিবীর নাগরিক
  • এস এম এইচ রহমান
  • শুভম সরকার
  • আব্রাহাম তামিম

আপনি এখানে

কুরআন অনলি কুইক রেফারেন্স:(৫) কুরআনের বানী সুস্পষ্ট!


ইসলামের সেই আদিকাল থেকে এখন পর্যন্ত ইসলাম বিশেষজ্ঞ মুসলমান আলেমদের যখন কুরানের কোন অস্পষ্ট বর্ণনার বিষয়ে আলোকপাত করা হয়, তখন তাদের প্রায় সকলেই যে দাবীটি উত্থাপন করে থাকেন তা হলো, "কুরআনকে সঠিকভাবে বুঝতে হলে আয়াতটির প্রেক্ষাপট (শানে নজুল ও তফসির) জানতে হবে!" আর এই একই প্রশ্নটি যদি কোন ইসলাম বিশ্বাসী অপণ্ডিতদের করা হয় তখন তাদের প্রায় সকলেই যে দাবীটি করে থাকেন তা হলো, "কোন সহি-শুদ্ধ (হক্কানি) ইসলাম বিশেষজ্ঞ মুসলিম আলেমদের সাহায্য ছাড়া কুরআন বোঝার চেষ্টা করা নিরর্থক!" অন্যদিকে, স্বঘোষিত আখেরি নবী হযরত মুহাম্মদ (সাঃ) তার আল্লাহর রেফারেন্সে বারংবার দাবী করেছেন যে, "কুরআনের আয়াত সুস্পষ্ট!” অতঃপর তিনি দাবী করেছেন যে কুরআনের যে আয়াতগুলো সুস্পষ্ট, সেগুলোই কিতাবের আসল অংশ; অন্যগুলো রূপক, যার ব্যাখ্যা আল্লাহ ছাড়া অন্য কেউ জানে না!

মুহাম্মদের ভাষায়: [1] [2]

৫৪:১৭ (সূরা আল ক্বামার) - "আমি কোরআনকে বোঝার জন্যে সহজ করে দিয়েছি। অতএব, কোন চিন্তাশীল আছে কি?"
>> এই একই বাক্যের পুনরাবৃত্তি: ৫৪:২২, ৫৪:৩২ ও ৫৪:৪০।

২২:১৬ (সূরা হাজ্জ্ব) - "এমনিভাবে আমি সুস্পষ্ট আয়াত রূপে কোরআন নাযিল করেছি এবং আল্লাহ-ই যাকে ইচ্ছা হেদায়েত করেন।"

২২:৭২ - "যখন তাদের কাছে আমার সুস্পষ্ট আয়াতসমূহ আবৃত্তি করা হয়, তখন তুমি কাফেরদের চোখে মুখে অসন্তোষের লক্ষণ প্রত্যক্ষ করতে পারবে।"

২৪:১৮ (সূরা আন-নূর) - "আল্লাহ তোমাদের জন্যে কাজের কথা স্পষ্ট করে বর্ণনা করেন। আল্লাহ সর্বজ্ঞ, প্রজ্ঞাময়।"

২৪:৩৪ - "আমি তোমাদের প্রতি অবতীর্ণ করেছি সুস্পষ্ট আয়াতসমূহ, তোমাদের পূর্ববর্তীদের কিছু দৃষ্টান্ত এবং আল্লাহ ভীরুদের জন্যে দিয়েছি উপদেশ।"

২৪:৪৬ - "আমি তো সুস্পষ্ট আয়াত সমূহ অবর্তীর্ণ করেছি। আল্লাহ যাকে ইচ্ছা সরল পথে পরিচালনা করেন।"

৫৭:১৭ (সূরা আল হাদীদ)- "তোমরা জেনে রাখ, আল্লাহই ভূ-ভাগকে তার মৃত্যুর পর পুনরুজ্জীবিত করেন। আমি পরিষ্কারভাবে তোমাদের জন্যে আয়াতগুলো ব্যক্ত করেছি, যাতে তোমরা বোঝ।"

১৮:১ (সূরা কাহফ) - "সব প্রশংসা আল্লাহর যিনি নিজের বান্দার প্রতি এ গ্রন্থ নাযিল করেছেন এবং তাতে কোন বক্রতা রাখেননি।"

৩:৭ (সূরা আল ইমরান) - "তিনিই আপনার প্রতি কিতাব নাযিল করেছেন। তাতে কিছু আয়াত রয়েছে সুস্পষ্ট, সেগুলোই কিতাবের আসল অংশ। আর অন্যগুলো রূপক। সুতরাং যাদের অন্তরে কুটিলতা রয়েছে, তারা অনুসরণ করে ফিৎনা বিস্তার এবং অপব্যাখ্যার উদ্দেশে তন্মধ্যেকার রূপকগুলোর। আর সেগুলোর ব্যাখ্যা আল্লাহ ব্যতীত কেউ জানে না। আর যারা জ্ঞানে সুগভীর, তারা বলেনঃ আমরা এর প্রতি ঈমান এনেছি। এই সবই আমাদের পালনকর্তার পক্ষ থেকে অবতীর্ণ হয়েছে। আর বোধশক্তি সম্পন্নেরা ছাড়া অপর কেউ শিক্ষা গ্রহণ করে না।"

>>> আল্লাহর রেফারেন্সে মুহাম্মদের ওপরে বর্ণিত দাবী অনুযায়ী কুরআনের সমস্ত আয়াত দুইভাগে বিভক্ত: সুস্পষ্ট ও অস্পষ্ট (রূপক)। মুহাম্মদ তার এই বানীগুলো প্রচার করেছিলেন সাধারণ লোকদের উদ্দেশ্যে যেন তারা তা বুঝতে পারেন, কোন পণ্ডিত বা বিশেষজ্ঞদের উদ্দেশ্য নয়। সুতরাং, মুহাম্মদের এই 'সুস্পষ্ট ও অস্পষ্টের' মাপকাঠি হলো সাধারণ লোকদের কাছে যা 'সুস্পষ্ট কিংবা অস্পষ্ট' তার ওপর ভিত্তি করে, কোন পণ্ডিত বা বিশেষজ্ঞের বোঝার মাপকাঠিতে নয়।

সুতরাং, 'আমি তোমাদের প্রতি অবতীর্ণ করেছি সুস্পষ্ট আয়াতসমূহ' দাবী করার পর যদি কুরআনের কোন আয়াত সাধারণ মানুষের বোধগম্যের অতীত বলে বিবেচিত হয় ও সে কারণে দাবী করা হয় যে উক্ত বক্তব্যটি বোঝার জন্য বিশেষজ্ঞের সহায়তার প্রয়োজন, তবে সেই বক্তব্যটিকে আর কোনভাবেই 'সুস্পষ্ট' বলা যায় না। তা নিশ্চিতরূপেই 'অস্পষ্ট' শ্রেণীভুক্ত। আর মুহাম্মদের দাবী মোতাবেক এই অস্পষ্ট শ্রেণীভুক্ত কুরআনের বানীগুলোর অর্থ একমাত্র 'আল্লাহ' ছাড়া অন্য কেউই জানে না। অস্পষ্ট আয়াতগুলোর মর্মার্থ উদ্ধারের জন্য কোন ব্যক্তি-কে মুহাম্মদের মৃত্যুর ১০০-২৫০ বছর পরের “মানুষের লিখিত” সিরাত (মুহাম্মদের জীবনী) ও হাদিস গ্রন্থের সহায়তায় ঐ আয়াত গুলোর প্রেক্ষাপট জানতে হবে, কিংবা তাকে যেতে হবে কোন ইসলাম বিশেষজ্ঞ হক্কানি মুসলমান আলেমদের কাছে; এমন দাবী মুহাম্মদের (আল্লাহর) ওপরে বর্ণিত দাবীর সম্পূর্ণ পরিপন্থী! এমন দাবীর সরল অর্থ হলো 'একমাত্র আল্লাহ ছাড়া যার অর্থ কেউ জানে না', সেই অর্থ খোঁজার জন্য কাউকে মানুষের দ্বারস্থ হবার পরামর্শ দেয়া। বিষয়টি হাস্যকর!

বিষয়টি হাস্যকর হলেও, বারংবার "আমি তো সুস্পষ্ট আয়াত সমূহ অবতীর্ণ করেছি" ঘোষণার পর তা বোঝার জন্য যদি সত্যিই কোন বিশেষজ্ঞের সহায়তার প্রয়োজন হয়, তবে আল্লাহর রেফারেন্সে মুহাম্মদের এই বহু-সংখ্যক বানী সম্পূর্ণরূপেই মিথ্যা ও বানোয়াট। আর যদি তা না হয়, তবে ইসলাম বিশ্বাসী পণ্ডিত ও অপণ্ডিতরা শতাব্দীর পর শতাব্দী যাবত কোন বিশেষ উদ্দেশ্য নিয়ে তা প্রচার করে আসছেন! কেন তারা তা করছেন? সম্ভাব্য কারণগুলো হতে পারে এমন:

১) সাধারণ লোকেরা তাদের নিজেদের ভাষায় কুরআন পড়ে এর অন্তর্নিহিত অসংখ্য ঘৃণা ও সন্ত্রাসের বানী যেন জানতে না পারেন তা নিশ্চিত করার প্রয়োজনে।

২) আল্লাহর “সুস্পষ্ট বানী গুলোকে” তাদের মনের মতো করে ব্যাখ্যা দিয়ে সাধারণ সরলপ্রাণ মুসলমানদের বিভ্রান্ত করার প্রয়োজনে।

৩) এই দাবীর মাধ্যমে তারা বোঝাতে চান যে তারা কত জ্ঞানী! ধারনা দিতে চান যে তাদের সাহায্য ছাড়া কুরআনের মর্মার্থ উদ্ধার সাধারণ মানুষের কর্ম নয়! তা সে যত বড় বিজ্ঞানী, ডাক্তার, প্রকৌশলী কিংবা অন্যান্য বিষয়ে যত জ্ঞানীই হউক না কেন! তাদের ধর্ম ব্যবসা-টি টিকিয়ে রাখার স্বার্থে এ প্রচারণা অত্যন্ত জরুরী।

যুক্তি বিদ্যার প্রাথমিক পাঠ হলো, যদি কোন নির্দিষ্ট বিষয়ে দুই (বা ততোধিক) পক্ষ সম্পূর্ণ বিপরীতধর্মী দাবী উত্থাপন করে, তবে তাদের যে কোন এক পক্ষের দাবী 'সত্য', অপরপক্ষের দাবী মিথ্যা; কিংবা তাদের সবার দাবীই মিথ্যা। দু'পক্ষ একই সাথে কখনোই সত্য হতে পারে না। সুতরাং একজন মুক্তচিন্তার মানুষ এক্ষেত্রে স্বাভাবিকভাবেই যে প্রশ্নটি উত্থাপন করতে পারেন তা হলো, মুহাম্মদ ইবনে আবদুল্লাহ ও তার সহি অনুসারী, এই দুই দাবীদারদের মধ্যে কে মিথ্যাচারী? নবী মুহাম্মদ? নাকি, তার সহি অনুসারীরা? নাকি দু'পক্ষই?

বিস্তারিত পরবর্তী পর্বে।

(চলবে)

তথ্যসূত্র ও পাদটীকা:
[1] কুরআনেরই উদ্ধৃতি ফাহাদ বিন আবদুল আজিজ কর্তৃক বিতরণকৃত তরজমা থেকে নেয়া। অনুবাদে ত্রুটি-বিচ্যুতির দায় অনুবাদকারীর।
http://www.quraanshareef.org/
[2] কুরানের ছয়জন বিশিষ্ট ইংরেজি অনুবাদকারীর ও চৌত্রিশ-টি ভাষায় পাশাপাশি অনুবাদ: https://quran.com/

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

গোলাপ মাহমুদ
গোলাপ মাহমুদ এর ছবি
Offline
Last seen: 2 ঘন্টা 54 min ago
Joined: রবিবার, সেপ্টেম্বর 17, 2017 - 5:04পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর