নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 4 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • বিকাশ দাস বাপ্পী
  • রসিক বাঙাল
  • এলিজা আকবর

নতুন যাত্রী

  • সাতাল
  • যাযাবর বুর্জোয়া
  • মিঠুন সিকদার শুভম
  • এম এম এইচ ভূঁইয়া
  • খাঁচা বন্দি পাখি
  • প্রসেনজিৎ কোনার
  • পৃথিবীর নাগরিক
  • এস এম এইচ রহমান
  • শুভম সরকার
  • আব্রাহাম তামিম

আপনি এখানে

মোহাম্মদী লেজের ফায়দা বহুবিধ !


ভূমিকা : মাদকব্যবসায়ী, নারী পাচারকারী, ধর্ষক, খুনি, প্রতারক ও গডফাদারদের শেষ ঠিকানা ধর্ম। তাহের মেয়র, শামীম এন্ড সেলিম ওসমান, জয়নাল হাজারী, হাজী সেলিম, বদি সহ সব গডফাদারদের ফার্স্ট চয়েস হচ্ছে মোহাম্মদের লেজ। ছ্যাঁকামাইসিনের রোগী, বুড়োত্বের যোগী, বসের উচ্ছিষ্ট-ভোগীর শেষ অাশ্রয় ইসলাম।
মোহাম্মদী লেজের ফায়দা বহুবিধ -
দুনিয়ায় হুজুর ও ঈমানদারদের সার্টিফিকেট প্রাপ্তি, অার পরকালে মদ-গাঁজা-হুর-ইয়াবার অফুরন্ত সাপ্লাই।

হিন্দুদের ভূমিদখল, হিন্দুদের নারী দখল, মূর্তিভাঙ্গা ইত্যাদি কাজের দ্বারা গডফাদার এবং ধর্ষকেরা বারবার স্মরণ করিয়ে দেয় চৌদ্দশত বছর পূর্বের এক ভয়ংকর গণহত্যাকারীর কথা।
- দুই বছরের শিশুর ধর্ষক যেন প্রমাণ করতে চায় - সে অায়েশার ধর্ষকের চেয়েও বড় ধর্ষক!
গডফাদাররা পক্ষত্যাগকারীদেরকে গুপ্তহত্যা করে যেন নিজেদেরকে কা'ব, অাসমা, অাবু রাফে, অাবু অাফাকের খুনির চেয়েও বড় খুনি প্রমাণ করতে চাচ্ছে!
বার্মার অহিংসার ধ্বজাধারীরা এখন নিজেদেরকে বনু কুরাইযার খুনির চেয়েও বড় খুনি প্রমাণ করতে ব্যস্ত সময় পার করছে, সাফিয়ার ধর্ষকের চেয়েও বড় ধর্ষক সাজার চেষ্টা করছে বার্মার অার্মি!
অবশ্য তারা সফল।

অাসুন কয়েকজন নব্য দরবেশের দরবেশী জেনে নিই :

- দরবেশ ওসমান : নূর হোসেন জেলে পঁচে, কিন্তু নূর হোসেনের 'ওস্তাদ' এখনো মহাসম্মানের চূড়ায় রয়েছে! টিভি চ্যানেলের মহা টকশোয়ারও সে! বাগাড়ম্বরে তাঁর জুড়ি মেলা ভার! সাথে তাঁর 'কানুয়া হুজুর' সেলিম ভাই তো অাছেই!
প্রথমে অাজমেরীকে দিয়ে ত্বকীকে খুন করা হলো, এরপর সাতখুন.... তবে দরবেশ হলে নাকি সাতখুন তো সাতখুন, সাতশো খুনও মাফ হয়ে যায়!
দরবেশ ওসমান নিজের পোষা ক্যাডারকে নিজেই কিছুদিন পরে খতম করে দেয়। ক্যাঙ্গারু পারভেজ, মাকসুদ সহ নিজের অনেক অনুসারীকেই একটা সময়ে গডফাদারের অপ্রয়োজনীয় মনে হতে থাকে।
নারায়ণগঞ্জের সাত খুনের পরে হঠাৎ করেই গডফাদার সাহেব নবীর প্রতিনিধি তেঁতুল শফির মুরিদ হয়ে গেল।
অাকাম করে ধরা পড়েও যখন গ্রেপ্তার করা হয়না গডফাদারদের, পত্রিকায় চলে বেশুমার সমালোচনা, তখনই ধর্মের লেবাস গায়ে চড়ায় তারা। 'ধোয়া তুলসীপাতা' বা 'ভাজা ডিম উল্টে খেতে জানেনা' মর্মে সার্টিফিকেট লাগবে এখন। তেঁতুলদের কাছ থেকে সার্টিফিকেট কিনতে খুব বেশি টাকা দিতে হয়না, দু'চার লাখ টাকা দিলেই দুনিয়া-অাখেরাতের সব কামিয়াবির সার্টিফিকেট মেলে!
দরবেশদদের হাদিয়া-তোহফার টাকা দিয়েই তেঁতুলের হেলিকপ্টার ভ্রমণ ও ইন্ডিয়া ভ্রমণ চলে।

- মালাউন-বিরোধী মন্ত্রী : সারাজীবন বহুত গুনাহ কামাই করেছেন মালাউন-বিরোধী মন্ত্রী। নামাজ-রোজা, দাড়ি-টুপি, জাকাত-ফেতরার ধার ধারেননি যৌবনকালে। তাই হিন্দুদের বাড়িঘরে ভাঙচুর ও অাগুন দিয়ে সোয়াব কামাই করে মৎস্য-সায়েদুল শেষ বয়সে বেহেশতে যাওয়ার স্বপ্ন দেখছেন।

- হাজী মেয়র সাহেব : চট্টগ্রাম বন্দরের চৌদ্দটা বাজিয়ে সব লুটেপুটে এখন তিনি 'মুমতাজুল হুজ্জাজ' বা হাজীকুল শিরোমণি। অালহাজ্ব মহিউদ্দীন হজ্ব-ব্যবসা করে হাজীদের খেদমত করে বেহেশতের হুরের স্বপ্নে বিভোর।
বন্দরের সম্পদ লুটপাটের জন্য সাবেক ও বর্তমান মেয়রের দ্বন্দ্বটাও বেশ রসের খোরাক জোগাচ্ছে।

- রাবেয়া বসরীর অাবিষ্কারক অাফজাল নানা : ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বিভিন্ন প্রোগ্রামে এবং জাতীয় ইমাম সম্মেলনে অামি দাওয়াত পেতাম। ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ডিজি শামীম মোহাম্মদ অাফজাল শেখ হাসিনাকে সারাক্ষণ রাবেয়া বসরীর সাথে তুলনা করেন, শেখ হাসিনা নাকি প্রতিরাতে তাহাজ্জুদ পড়েন! অামি কখনো বিশ্বাস করিনা - শেখ হাসিনা তাহাজ্জুদের মত এত জঘন্য কাজ করেন, তাহাজ্জুদ যারা পড়ে তারা সবাই হয় পায়ুকামী নয়তো ধর্ষক। নির্জন রাতে তাহাজ্জুদের পরের সময়টাকে পায়ুকাম এবং লাম্পট্যের শ্রেষ্ঠ সময় ধরা হয়। শেখ হাসিনার ব্যক্তিগত চরিত্র খুব ভালো।

প্রিয় বঙ্গবন্ধু-কন্যা! রাবেয়া বসরী হওয়ার চেয়ে ফ্লোরেন্স নাইটিংগেল বা মাদার তেরেসা হওয়া কি উত্তম নয়?
অাপনার চাটুকারদের থামান।
মহাশক্তিধর (ক্বাদীর) এবং অমুখাপেক্ষী (সামাদ) অাল্লাহর এবাদত করে সময় নষ্ট না করে দুর্বল ও অভাবী মানুষের সেবা করা উত্তম নয় কি ?

- নামাজী তাহের হুজুর :অাল্লাহর পেয়ারা বান্দা নবীর পেয়ারা উম্মত তাহেরের কীর্তি জানি চলুন : মাদক ব্যবসা, টেন্ডারবাজি, পরিবহন সেক্টরে চাঁদাবাজি, দখল বাণিজ্য, উন্নয়নের নামে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেওয়াসহ অস্ত্র ও সন্ত্রাসী বাহিনী দ্বারা লক্ষ্মীপুরবাসীকে জিম্মি করে রেখেছে। জেলাজুড়ে মাদক ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ করছে তাহেরের ছোটছেলে শিবলু। সেই সাথে পৌরসভার চাঁদা আদায়ের রসিদ ব্যবহার করে পরিবহন সেক্টরে চাঁদাবাজি চলছে তার নেতৃত্বে। প্রতিটি অটোরিকশা থেকে ৩ থেকে ৫ হাজার টাকা করে প্রায় ১ হাজার অটোরিকশা থেকে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেয় তাহের পরিবার।

রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে মৃত্যুদন্ডের শাস্তি থেকে ক্ষমা পাওয়া মেয়র তাহেরের বড় ছেলে বিপ্লব কারাগারে বসে মোবাইল ফোনে টেন্ডার নিয়ন্ত্রণ, স্থানীয় সন্ত্রাসী বাহিনীর সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ ও কারাগারের ভেতরের অবৈধ বাণিজ্য নিয়ন্ত্রণ করে বলে জানা যায়।

১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর তাহের পরিবারের সন্ত্রাস, অস্ত্রের ঝনঝনানি ও ক্যাডার বাহিনী তৈরির মধ্য দিয়ে খুনের রাজনীতি শুরু হয়। তাহেরের বড় ছেলে বিপ্লবের নেতৃত্বে চলে বশিকপুর ইউনিয়নের জেহাদী বাহিনী, দত্তপাড়ার নুর হোসেন শামীম বাহিনী, হাজিরপাড়া ইউনিয়নের মুন্না বাহিনী।
(সূত্র : ebizctg.com)

- হাজী ওরফে পাজি সেলিম : তাঁর নামের ওতপ্রোত অংশ হচ্ছে 'হাজী।' টেন্ডারবাজি ও চাঁদাবাজির অর্থে হজ্ব করে নবীর মহা অাশেক হাজী সাহেব, লোকেরা অবশ্য পিছনে তাকে 'পাজি' বলেই ডাকে!
একটা সময়ে সে বিপ্লবী ভাব ধরতো, মৌলবাদ-বিরোধীও বটে, অালেম দেখলে টিটকিরি করা তাঁর অভ্যাস ছিল। অালেমদেরকে 'রাজাকার, লাদেন' না ডাকলে নাকি তাঁর ভাত হজম হতো না।
অামার একজন শিক্ষক মাওলানা ইসমাঈল সাহেব পাজি সাহেবের বাসায় গিয়ে অহেতুক অপমানের শিকার হয়েছিলেন। 'অ,অা, ক, খ' ও পড়তে জানতো না পাজি সাহেব, এখন অবশ্য কিছুটা পড়তে পারে, এজন্য সে এখন বড় ব্যবসায়ীও ! অনেক মসজিদ-মাদ্রাসা তৈরি করে বেহেশতের টিকেট কনফার্ম করেছে অক্ষর জ্ঞানসম্পন্ন হাজী সাহেব।

- শাবানা দাদী : শাবানা দাদীর চরিত্র কোনকালেই খারাপ ছিলনা, শুধু সিনেমা করে তিনি প্রচুর গুনাহ কামিয়েছেন। এখন ধর্মাসক্ত হয়ে বেহেশতের বাহাত্তর হুরের সর্দারনী হওয়ার অাশায় দিন গোনেন। অবশ্য ধর্মের চেয়ে রাজনীতি বেশি রসালো, এটা তিনি বুঝেছেন।
শুধু দাদী একা কেন - চরমোনাই, অাটরশি, মাইজভাণ্ডারীর পীরেরাও বুঝেছে - রাজনীতির চেয়ে রস অার কোথাও নেই।

- জলিল হুজুর : চিত্রনায়ক হয়ে জোব্বা পরার মত অসম্ভবকে সম্ভব করার কারিগর হলেন জলিল হুজুর। তবে জলিল হুজুর গুটি চালতে সামান্য ভুল করেছেন, শাবানা দাদীর মত বুড়ো হওয়ার পরে অালখেল্লা পরলে ভালো হতো। দুনিয়া-অাখেরাত সব জায়গায়ই বেনিফিশিয়ার হওয়া যেত!

- ময়ূরী চাচী : প্রগতিশীল ময়ূরী চাচীর খাওয়ার রুচি বেশ, অতিরিক্ত খেতে খেতে হস্তীসার হয়ে রূপযৌবনে ধরলো ভাটা।
ময়ূরী চাচীর দশা কতিপয় নারীবাদীর মতই - মোল্লা দেখলে তাঁকে গোল্লা ডাকতো, গালাগাল করতো। অামার এক বন্ধুর মাদ্রাসার ছাত্ররা ময়ূরী চাচীর বাসায় খতম পড়তে যেত ক'দিন পরপর। খতম পড়া শেষ হলে হুজুর দোয়া করা হতো। দোয়া শেষ হলে খতমের হাদিয়া দিতে ময়ূরী চাচী যে পোশাক পরে হুজুরদের সামনে অাসতেন তা দেখে হুজুরগণ সে রাতে হাত মারতে বাধ্য হতো!
এখন কতিপয় কট্টর পুরুষবিদ্বেষীর দেখা মেলে অনলাইনে, যারা হেফাজতের পয়সাওয়ালা হুজুরদের সাথে বিছানায় যান, কিন্তু তাদের দৃষ্টিতে 'পুরুষ মানেই ধর্ষক!'

- হ্যাপী ভাবি : রুবেল ভাইয়ের ছ্যাঁকা খেয়ে ন্যাকা ভাবি অাল্লাহর শরণাপন্ন হলেন, অাল্লাহপাক একজন হুজুর পাঠালেন ভাবির সৌজন্যে। কিন্তু অাল্লাহর প্রেরিত হুজুরের নিশীথের ঈমানে নাকি জোর কম!
হ্যাপী ভাবির দুর্ভাগ্য - অামার সাথে কনসাল্ট করেননি অাগে।
অামি জানি - কলকাতা অার মাদ্রাজ হারবালের প্রধান কাস্টমার হচ্ছে হুজুররা।
নবীর লুলামির কাহিনী পড়তে পড়তে তাদের হাতে-দন্ডের মিতালি বেড়ে যায়, পরিশেষে দন্ডপতনের রোগে হারবালের বাসিন্দা হয়।
অার যারা সুস্থচিন্তুক ও সুস্থদন্ডী হুজুর তারা ইসলাম ত্যাগ করে। ইসলাম হলো যৌনরোগীদের ধর্ম। অাপনি একটা মোল্লা পাবেননা যার ঈমানদন্ডের ঈমান মজবুত, অার যার ঈমান মজবুত পাবেন, জেনে নেবেন - সে অাসলে মনেমনে এক্স মুসলিম। অার সত্য জানবেনই বা কেমনে - হুজুরের বৌ তো বস্তাবন্দী!
মোহাম্মদ বৃদ্ধ বয়সে ডজনখানেক বৌ সামলাতে না পেরে বৌদেরকে কলা, খেজুর, অাঙ্গুরের মত সম্মানদান করে প্যাকেট করেছে। এই মোহাম্মদী টোটকা এখন মোল্লাদের বেশ কাজ দিচ্ছে - নিশীথের ঈমানের জোর যতই শিথিল হোক, প্যাকেটজাত চকলেট তথা বৌ সাহেবা এটা কাউকে বলবেনা, বললে যে হুরের সর্দারনী হওয়া মিস হবে!!

বিভাগ: 

Comments

nirmal sarkar এর ছবি
 

valo likhechen

 

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

মুফতি মাসুদ
মুফতি মাসুদ এর ছবি
Offline
Last seen: 1 week 2 দিন ago
Joined: সোমবার, আগস্ট 14, 2017 - 6:00অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর