নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 6 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • আকাশ সিদ্দিকী
  • নুর নবী দুলাল
  • সৈকত সমুদ্র
  • পৃথ্বীরাজ চৌহান
  • ভিন্ন_মত
  • দ্বিতীয়নাম

নতুন যাত্রী

  • জোসেফ হ্যারিসন
  • সাতাল
  • যাযাবর বুর্জোয়া
  • মিঠুন সিকদার শুভম
  • এম এম এইচ ভূঁইয়া
  • খাঁচা বন্দি পাখি
  • প্রসেনজিৎ কোনার
  • পৃথিবীর নাগরিক
  • এস এম এইচ রহমান
  • শুভম সরকার

আপনি এখানে

বন্যার্ত দূর্গত মানুষের হাহাকার, মিলিয়ন মিলিয়ন ডলারের সাবমেরিন ও সমরাস্ত্র দিয়ে আমরা কি করিব?


দুর্যোগ কবলিত বন্যার্ত মানুষের পাশে যখন রাষ্ট্রচালকরা দাঁড়ায় না, তখন রাষ্ট্রের খুব বিলাসীতা করে ক্রয় করা শত শত মিলিয়ন ডলারের সাব মেরিনগুলো যেন আমাদের মুখ ভেঙ্গায়। যেখানে বন্যায় দেশের লক্ষ লক্ষ মানুষ পানি বন্দি, দুর্বিষহ অসহায় জীবন যাপন করছে, বৈরি পরিবেশে বেঁচে থাকার জন্য প্রাণান্তকর চেষ্টা করে যাচ্ছে, সেখানে দুই'শ মিলিয়ন ডলারে সাবমেরিন, কোটি কোটি ডলারের যুদ্ধাস্ত্র আমাদের কিই বা উপকারে আসবে? দেশের মানুষের কোন কাজে আসবে? সাবমেরিন আর যুদ্ধাস্ত্র দিয়ে আমরা কি করিব? দেশের এই টাকাগুলো যদি দুর্যোগ মোকাবেলার জন্য বরাদ্দ থাকত, তাহলে আমাদের মানুষের দুঃসহ কষ্ট দেখতে হতো না।

এই দুই'শ মিলিয়ন ডলারের সাবমেরিন আমাদের ঠিক কোন উপকারে আসবে বলতে পারেবন সরকার সাহেবা? যেখানে ভৌগলিক দিক দিয়ে আমাদের আশেপাশে প্রতিবেশি কোনো শত্রু রাষ্ট্র নেই, সেখানে অজথা, অনর্থক সাবমেরিন ক্রয় করা, যুদ্ধাস্ত্র ক্রয় করা দেশের অর্থের চরম অপচয় করা নয়কি? টেকনাফের দিকে একটুখানি মায়ানমারের সীমান্ত বাদ দিলে আর পুরো বাংলাদেশকে ঘিরে রয়েছে ভারতের সীমান্ত। দক্ষিন বাংলাদেশের মানচিত্র চট্টগ্রামের বিভাগের সীমান্তের দিক দিয়ে শুরু করলে, প্রথমে পড়ে ভারতের মিজোরাম রাজ্য, তারপর ত্রিপুরা, তারপর মনিপুর রাজ্য হয়ে মেঘালয়া, তারপর সিকিম হয়ে ইউ টানে এসে বিহার, অবশেষে পশ্চিমবঙ্গে শেষ হয়েছে আমাদের বাংলাদেশের মানচিত্র। এখানে আমাদের সাথে লাগোয়া সীমান্ত গাদ্দার দেশ চীনও নেই, সন্ত্রাসী রাষ্ট্র পাকিস্তানও নেই। তো কিসের জন্য প্রয়োজন আমাদের শত কোটি টাকার সাবমেরিন আর যুদ্ধাস্ত্র? এই দিয়ে আমরা কি করিব?

নাকি ভবিষ্যতে ভারতের সাথে যুদ্ধ করার জন্য এই অস্ত্র আস্তে আস্তে সঞ্চয় করে চলেছি আমরা? সত্যিকার অর্থে তাদের সাথে যুদ্ধ বাঁধলে আমরা ১৫ দিন টিকতে পারবো? এখন অর্শ্বারোহি হয়ে তলোয়ার নিয়ে সমর করার সেই যুগ আছে? বা সামনা সামনি মান্ধাতা আলমের বন্ধুক যুদ্ধ করে বিজয়ী হবার সেই আশা আছে? তো কিসের জন্য এই সমরাস্ত্রের আয়োজন? এটা জনগনের টাকায় এক ধরণের রঙ তামাশা করা নয় কি? এটা এক ধরণের বাঙালকে হাইকোর্ট দেখানোর মতো রসিকতা নয় কি? আর ৩ সাড়ে ৩ লক্ষ সেনাবাহিনী বসিয়ে বসিয়ে পুষে রাখার কোনো প্রয়োজন আছে আমাদের নিম্ম আয়ের দেশে? প্রতি বছর সেনা খাতে সবচেয়ে বেশি হাজার হাজার কোটি টাকা বাজেট বাড়ানোর কোন দরকার আছে? এই টাকা দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা, চিকিৎসা ব্যবস্থা আর যোগাযোগ ব্যবস্থায় ব্যয় করলে ভাল হতো না? এতে তো দেশের মানুষই উপকৃত হবে। দেশের ভবিষ্যৎই উজ্জ্বল হবে। এইটুকু বোঝার কমনসেন্স কি আপনাদের রাষ্ট্রচালকদের নেই?

---আজ বাংলাদেশে লক্ষ লক্ষ মানুষ দুষিত পানির বন্যায় বন্দী। তাদের জন্য কি উদ্যেগ নিলেন সরকার সাহেবা? মানুষগুলো যেভাবে ভাসমান জীবন যাপন করছে, তা দেখে আপনার সরকারের লজ্জা হয় না? আপনাদের মনে হচ্ছে না আপনারা দায়িত্বজ্ঞানহীনতার পরিচয় দিচ্ছেন? মানুষের জন্য রাষ্ট্র, রাষ্ট্রের জন্য মানুষ নয়। যেখানে রাষ্ট্র মানুষের নুন্যতম মৌলিক চাহিদা পুরণ করতে ব্যর্থ, সেখানে রাষ্ট্রের মিলিয়ন মিলিয়ন ডলারের সাবমেরিন আর যুদ্ধাস্ত্র ক্রয় করা শুধু বিলাসীতাই নয়, এটা সরকারের অতিরিক্ত হঠকারিতার পরিচয়!

বিভাগ: 

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

অপ্রিয় কথা
অপ্রিয় কথা এর ছবি
Offline
Last seen: 1 দিন 14 ঘন্টা ago
Joined: শনিবার, ডিসেম্বর 24, 2016 - 2:15পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর