নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 2 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নুর নবী দুলাল
  • সাইয়িদ রফিকুল হক

নতুন যাত্রী

  • আদি মানব
  • নগরবালক
  • মানিকুজ্জামান
  • একরামুল হক
  • আব্দুর রহমান ইমন
  • ইমরান হোসেন মনা
  • আবু উষা
  • জনৈক জুম্ম
  • ফরিদ আলম
  • নিহত নক্ষত্র

আপনি এখানে

বাংলাদেশের কবিরা কবি হয়ে উঠুক


হুমায়ুন আজাদ স্যারের একটা প্রবচন আছে, কবিতা এখন দু-রকমঃ দালালী ও গালাগালি। দেশের বর্তমান অবস্থা দেখে তার কথা পুরোপুরি সত্য বলে মনে হচ্ছে। শুধু কবিতা নয়, শিল্প সাহিত্যের প্রতিটি স্তরেই আমাদের অবনমন ঘটছে! একজন কবি ফেসবুকে ক্ষোভ প্রকাশ করে গতবছর রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পদক (স্বাধীনতা পদক) লাভ করেন। একসময় এই কবিকে সমাজতান্ত্রিক কবি কিংবা প্রতিবাদী কবি বলে মনে করা হতো। কিন্তু এই সময়ে তাকে দালাল কবি বলেই বিবেচনা করা হয়। আরেকজন কবি (সন্দেহজনক কবি) ২০১৫ সালে তাঁর ‘গালাগালি’ সমগ্রের জন্য কবি জীবনানন্দ দাশ সাহিত্য পুরস্কারে ভূষিত হন। যে বইটির জন্য এই কবি পুরস্কার লাভ করেন, সেই বইয়ের নামটি যথেষ্ট সুন্দর। কিন্তু বইয়ের ভিতরে যা আছে, তাকে কবিতা তো বলা যায়ই না, অন্য কি বিশেষণে তাকে বিশ্লেষণ করা যায়, সেই শব্দও আমি খুঁজে পাই না। এই হচ্ছে আমাদের দেশের বর্তমান কবিদের সাহিত্য সাধনার ধরন!

দেশের ক্রান্তিকালে সর্বদা প্রতিবাদে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন কবি – সাহিত্যিক – সাংস্কৃতিক কর্মীরা। মুক্তিযুদ্ধে স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের অবদান কেউই অস্বীকার করতে পারবে না। স্বৈরাচার এরশাদ বিরোধী আন্দোলনে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট কিংবা জাতীয় কবিতা পরিষদের ভূমিকা চিরস্মরণীয়। অথচ আজ যখন দেশ অগণতান্ত্রিক পথে হাঁটছে, দেশ যখন ক্রমাগতভাবে মৌলবাদী গোষ্ঠীর সাথে আঁতাত করছে, তখন এদেশের কবি – সাহিত্যিকরা দালালীতে মগ্ন! দালালী করে দুই একটি পুরস্কার নিজের প্রাপ্তির ঝুড়িতে জমা করতে আজ কবিরা ব্যস্ত! যে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট অসম্প্রদায়িক চেতনার কথা বলে, স্বৈরতান্ত্রিকতার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য আত্মপ্রকাশ করেছিলো, তারাও আজ রাষ্ট্রের সাম্প্রদায়িক কিংবা স্বৈরাচারী আচরণের বিরুদ্ধে সোচ্চার ভূমিকা নিতে ব্যর্থ। কারণ এই সংগঠনের নেতারা এখন অনেক বেশি আপোষকামী এবং দালালীতে ব্যস্ত সময় পার করছে। সরকারের সুনজরে থাকতে তাঁরা বদ্ধপরিকর।

তবে ঢালাওভাবে সব কবি সাহিত্যিকদের দোষ দেয়া বোধ করি ঠিক হচ্ছে না। কয়েকজন কবি – লেখক – সাংস্কৃতিক কর্মী - বুদ্ধিজীবি এখনও স্রোতের বিপরীতে দাঁড়িয়ে লড়াই করছেন। যদিও তাদের সংখ্যা নগন্য। আমার কষ্ট লাগছে এই ভেবে যে, একজন কবি সুন্দরবন রক্ষায় রামপাল বিদ্যুৎকেন্দ্রের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে গিয়ে মারাত্মক আহত হয়েছেন, তাঁর শরীরে এগারোটি সেলাই পড়েছে, এরপরও এদেশে কবিরা মেরুদন্ড সোজা করতে পারেনি। রাজপথে নেমে আন্দোলন দূরে থাক, কোন কবিকে বিবৃতি পাঠিয়ে এই ঘটনার নিন্দা জানাতে পর্যন্ত দেখিনি। কিসের জন্য কবি – সাহিত্যিকদের এমন নীরবতা, আমার বোধগম্য হচ্ছেনা।

যেদিন দেশের সাংবাদিকরা জনগনের পক্ষ ছেড়ে দুই দলে ভাগ হয়ে দলীয় সাংবাদিক হয়ে গেছেন, যেদিন দেশের কবি – সাহিত্যিকগণ সমাজের অবহেলিত মানুষকে ছেড়ে উচ্চবিত্তের গুণাগুণ গেয়ে লিখতে শুরু করেছেন, যেদিন দেশের সাংস্কৃতিক কর্মীরা সরকারদলীয় কর্মীর স্থান দখল করেছেন, যেদিন দেশের বুদ্ধিজীবিরা পরজীবির রূপ নিয়েছেন, যেদিন দেশের প্রতিবাদী মুখগুলো রাষ্ট্রীয় গাধায় পরিণত হয়েছেন, সেদিনই বাংলাদেশের পরাজয় হয়েছে। জানিনা এখান থেকে বাংলাদেশ আবার জয়ী হয়ে ফিরতে পারবে কিনা।

শেষ করবো কবি নবারুণ ভট্টাচার্যের কবিতার কয়েকটি লাইন দিয়ে,
...লক-আপের পাথর হিম কক্ষে
ময়না তদন্তের হ্যাজাক আলোক কাঁপিয়ে দিয়ে
হত্যাকারীর পরিচালিত বিচারালয়ে
মিথ্যা অশিক্ষার বিদ্যায়তনে
শোষণ ও ত্রাসের রাষ্ট্রযন্ত্রের মধ্যে
সামরিক-অসামরিক কর্তৃপক্ষের বুকে
কবিতার প্রতিবাদ প্রতিধ্বনিত হোক
বাংলাদেশের কবিরাও
লোরকার মতো প্রস্তুত থাকুক
হত্যার শ্বাসরোধের লাশ নিখোঁজ হওয়ার স্টেনগানের গুলিতে সেলাই হয়ে
যাবার জন্য প্রস্তত থাকুক
তবু কবিতার গ্রামাঞ্চল দিয়ে
কবিতার শহরকে ঘিরে ফেলবার একান্ত দরকার।

Comments

ড. লজিক্যাল বাঙালি এর ছবি
 

বাংলাদেশে নাকি কবি ও কাকের সংখ্যা সমান

আমার লেখা পড়ার ও ফেসবুকে আমার "বন্ধু" হওয়ার আমন্ত্রণ রইল। আগের আইডি ছাগলের পেটে।এটা নতুন লিংক :
https://web.facebook.com/JahangirHossainDhaka

===============================================================
জানার ইচ্ছে নিজেকে, সমাজ, দেশ, পৃথিবি, মহাবিশ্ব, ধর্ম আর মানুষকে! এর জন্য অনন্তর চেষ্টা!!

 

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

কফিল উদ্দিন মোহাম্মদ
কফিল উদ্দিন মোহাম্মদ এর ছবি
Offline
Last seen: 1 দিন 20 ঘন্টা ago
Joined: রবিবার, মে 8, 2016 - 11:31পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর