নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 3 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নুর নবী দুলাল
  • লিটমাইসোলজিক
  • কিন্তু

নতুন যাত্রী

  • আমজনতা আমজনতা
  • কুমকুম কুল
  • কথা নীল
  • নীল পত্র
  • দুর্জয় দাশ গুপ্ত
  • ফিরোজ মাহমুদ
  • মানিরুজ্জামান
  • সুবর্না ব্যানার্জী
  • রুম্মান তার্শফিক
  • মুফতি বিশ্বাস মন্ডল

আপনি এখানে

প্রতিকূল প্রকৃতি পাহাড়ে মানুষকে দাঁড় করিয়েছে এক কাতারে, এ বন্ধন অটুট থাকুক।


গত ১৩ জুন মঙ্গলবার পার্বত্য এলাকায় ভয়াবহ পাহাড়ধসে দেড় শতাধিক মানুষের মৃত্যু হল, নিখোঁজ এর সংখ্যাও কম নয়। এখনো সেখানে চলছে মানবিক বিপর্য, যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন, স্কুল-কলেজ বন্ধ, পৌছায়নি মৌলিক প্রয়োজনীয় জিনিস পত্র, এমনকি দিগুন দাম দিয়েও পাওয়া যাচ্ছে না খাদ্য সামগ্রী। এই তুমুল বৃষ্টিতে খোলা আকাশের নিচে মানবেতর জিবন-যাপন করছে সেখানকার মানুষ। বিশেষ করে, রাঙ্গামাটির অবস্থা আরো বেশি ভয়াবহ। শুধু রাঙ্গামাটিতেই শতাধিক নিহত, যোগাযোগ সম্পুর্ণ বিচ্ছন্ন, এক ভয়াবহ পরিস্থিতি বিরাজ করছে সেখানে।

পার্বত্য অঞ্চলে ভয়াবহ এই মানবিক বিপর্যের মধ্যেই কেন জানি রাঙ্গামাটির লংগদুতে ঘটে যাওয়া ঘটনা মাথার মধ্যে ঘুরপাক খাচ্ছে । অনেকেই বলতে পারে আমাদের কাজ শুধু সমালোচনা করা।আপনার মধ্যে প্রশ্ন জাগতে পারে পার্বত্য অঞ্চলের এ রকম পরিস্থিতিতে আপনার মাথার মধ্যে এখনো লংগদু। স্বাভাবিক ভাবেই প্রশ্ন আসতে পারে রাঙ্গামাটি মানুষের উপর বারে বারে এ রকম বিপর্যয় নেমে আসে কেন ?

মাত্র দুই সপ্তাহ আগে রাঙামাটির লংগদু উপজেলায় যুবলীগের এক কর্মী হত্যার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংবাদ পত্রে ছাপা হয়েছিল বিবাদে জড়িয়েছিল পাহাড়ি জনগোষ্ঠী ও রাঙ্গামাটিতে বসবাসরত বাঙালিরা। বিবাদ বলে অনকেই চালিয়ে দিতে চাইলেও বিষয়টি তো বিবাদ ছিল না কেননা, এক পক্ষে বিবাদ হয় না। কারণ একতরফা আক্রমণের শিকার লংগদুর জনগোষ্ঠীরা কোনো প্রতিরোধ তো গড়ে তোলেই নি; বরং বাড়িঘর ফেলে পালিয়ে আশ্রয় নিয়েছিল দূরের কোনো পাহাড়ের ঝোপঝাড়ে। আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল তাদের তিন শতাধিক বাড়িঘর, লুটপাট করা হয়েছিল তাদের দোকান পাট।এমনকি আগুনে পুড়িয়ে দেওয়া হয়েছিল ষাটের কোটার এক বৃদ্ধাকেও। আর এই ঘরবাড়ি ফেলে যাওয়া অনকেই ভয়ে এখন অবদি বসতভিটায় ফিরে আসতে পারেনি ।

ঘটনাটি মনে পড়ার পেছনে কারণ একটাই বিভেদ-কোন্দলে জর্জরিত পাহাড়ে বসবাসরত মানুষ আজ যখন প্রকৃতির নির্মম আঘাতের মুখোমুখি হলেন তখন তাদের মধ্যে কে পাহাড়ি, কে সেটেলার বাঙালি তারা সব ভুলে গিয়ে মানবিক যায়গা থেকে হোক আর উপলব্ধির যায়গা থেকেই হোক একে অপরের পাশে এসে দাঁড়িয়েছেন, পাহাড় ধসে চাপা পরা মানুষকে উদ্ধারে একে অন্যের হাতে হাত ধরে উদ্ধার তৎপরতা চালিয়েছেন, মাটির নিচে চাপা পড়া বাঙালিকে যেমন উদ্ধার করছেন পাহাড়ি প্রতিবেশী, তেমনি পাহাড়ির জনগোষ্ঠীর লাশ উদ্ধার করতে শোকে বিহ্বল স্বজনকে সাহায্য করছেন বাঙালিরা। মানুষ হিসেবে মানুষের পাশে দাঁড়ানো এমনটাই তো প্রত্যাশিত। মানুষের উপলব্ধির যায়গা তো এমনি হওয়ার কথা পাহাড়ি কিংবা বাঙালি, জাতি-ধর্ম কিংবা বর্ণের বিভাজন নয়, সব ধরণের বিপর্যয়ে মানুষের পাশে দাঁড়ানো মানুষেরই পরিচয়।

প্রতিকূল প্রকৃতি এভাবেই মানুষকে দাঁড় করিয়ে দেয় এক কাতারে, ধর্ম-বর্ণ, জাত-পাত ভুলে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে একে অন্যের হাতে হাত রাখায়।কিন্তু স্বাভাবিক সময়ে এই সহমর্মিতার কথা আমরা ভুলে যাই।মনে রাখতে পারি না, মোটরসাইকেল হাতিয়ে নেওয়ার জন্য যে ক'জন দুর্বৃত্ত বাঙালি যুবককে হত্যা করেছিল, তাদের পরিচয় পাহাড়ি কিংবা বাঙালি নয়, মুসলিম কিংবা হিন্দু বা বৌদ্ধ নয়, তারা শুধুই দুর্বৃত্ত। তাদের শাস্তি হোক কঠোর শাস্তি যাতে এরকম জঘন্য অপরাধ আর কেউ করতে সাহস না করে এমনটা আমরা সবাই চাই। কিন্তু তার এই অপরাধের দায় কেন চাপিয়ে দেব সব পাহাড়ির কাঁধে?

ভুপেন হাজারিকা তাঁর গানে বলেছিলেন, 'মানুষ মানুষকে পণ্য করে, মানুষ মানুষ কে জীবিকা করে পুরনো ইতিহাস ফিরে এলে লজ্জা কি তুমি পাবে না?' আজ যে প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে আমরা পাহাড়ি জনগোষ্ঠীদের হাতে হাত রেখে একে অন্যের সহযোগিতা করলাম, দুর্দিনে একে অন্যের কাঁধে কাঁধ মেশালাম একথা ভুলে গিয়ে কিভাবে আমরা পূণরায় পাহাড়ীদের উপর হামলা করব, নির্যাতন চালাব তাদের ঘরে আগুন দিব? একথা ভুলে কেন আমরা কিছু চক্রান্তকারীর উসকানিতে তাদের উদ্দেশ্য সিদ্ধির হাতিয়ারে পরিণত হয়ে পাহাড়িদের উপর অত্যাচার করব ?

পাহাড়ি-বাঙালি,ধর্ম-বর্ণ, জাত-পাত ভুলিয়ে দিয়ে প্রতিকূল প্রকৃতি যেভাবে আমাদেরকে দাঁড় করিয়ে দিল এক কাতারে, কোন সংকোচন ছাড়ায় হাতে হাত রেখে একে অন্যের পাশে দাঁড় করালো আমাদের মাঝে এ বন্ধন অটুট থাকুক, আমরা যেন ভুলে না যায় তাহলেই ফিরে আসবে প্রকৃতির অপরুপ সৌন্দর্যের লীলাভূমি পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের মাঝে শান্তি। সেই সাথে প্রাকৃতিক বিপর্যয় কমিয়ে আনতে পাহাড় খেকো দুর্বৃত্তদের একসাথে রুখতে পারব।
আল আমিন হোসেন মৃধা (লেখক ও রাজনৈতিক কর্মী)

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

আল আমিন হোসেন মৃধা
আল আমিন হোসেন মৃধা এর ছবি
Offline
Last seen: 1 দিন 14 ঘন্টা ago
Joined: রবিবার, এপ্রিল 2, 2017 - 11:30অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর