নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 5 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • মোগ্গালানা মাইকেল
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী
  • ড. লজিক্যাল বাঙালি
  • সুবর্ণ জলের মাছ
  • দীব্বেন্দু দীপ

নতুন যাত্রী

  • বিদ্রোহী মুসাফির
  • টি রহমান বর্ণিল
  • আজহরুল ইসলাম
  • রইসউদ্দিন গায়েন
  • উৎসব
  • সাদমান ফেরদৌস
  • বিপ্লব দাস
  • আফিজের রহমান
  • হুসাইন মাহমুদ
  • অচিন-পাখী

আপনি এখানে

রাকেশ রায়ের একটি ছবির "পোস্টমর্টেম" রিপোর্ট



.
.
প্রথম ছবিটা আমার কম্পিউটার থেকে আমি তুলেছিলাম স্ক্রিনশট গত কিছুদিন আগে, আর দ্বিতীয় ছবিটা কোন মোবাইল ডিভাইস থেকে তোলা স্ক্রিনশট। দুটোতেই খেয়াল করুন চুলের নীচ থেকে ছবি শুরু হয়েছে শুধু লেখার পার্থক্য। এখানে প্রথম ছবিটা সবার কাছে পরিষ্কার শুধু দ্বিতীয় ছবি নিয়েই যত সমস্যা।
.
একজন হিন্দুত্ববাদী তার মন্দিরের মূর্তি বা গৃহদেবতার বিগ্রহ রক্ষার কথা বলতে পারে, সুপ্রীমকোর্টের ভাস্কর্য নিয়ে ধর্মীয় কারণে তার মাথাব্যাথা কখনোই করবেনা। কারণ সেটা মূর্তিই না, মূর্তি আর ভাস্কর্যের পার্থক্যগুলো আমাদের দেশের মৌলবাদী ধর্মান্ধগুলো ছাড়া আর সবাই জানে। গ্রীক দেবী হিন্দুদের কিছু না, মৌলবাদী ধর্মান্ধগুলো ছাড়া এই নিয়ে কোন হিন্দুর মাথাব্যাথা নেই। আর একজন কৃষকলীগের নেতা নাসিরনগর হামলায় ১৫টা মন্দির ধ্বংসের পরও শেখ হসিনাকে নিয়ে কিছু বলেনি, সেখানে গ্রীকদেবীর সাথে তার ধর্মীয় কারণ কি? যদি সে এমন কিছু বলতো তবে হয়তো হেফাজতের নেতাদের কথা বলতো, শেখ হাসিনাকে নিয়ে বলাটা অতিমাত্রায় হাস্যকর। আর এই ধরনের হুমকী কেউ স্ট্যাটাস/ কমেন্টে বলতে পারে, প্রোফাইল পিকচারে কোন ছাগলে বলবে?
.
রাকেশ রায় তার প্রোফাইল পিকচার চেঞ্জ করেছিলেন ১ জুন। এডিট করা ছবিতে দেওয়া হলো 25 may, ৬ দিন আগে তারিখ দেওয়া হলো, এর কারণ টা সহজ, যেন বোঝা যায় তিনি আগে এটা লিখেছেন পরে প্রোফাইল পিকচার আবার চেঞ্জ করেছেন।
বুদ্ধিদীপ্ত কাজ। এবার দেখুন সময়টা "at 12:34" কিন্তু am নাকি pm সেটা গেলো কোথায়?
ফন্টের দিকে খেয়াল করুন দুটো দুইরকমের ফন্ট, ফন্ট স্ট্যাইল দেখুন "italic". অর্থাৎ একপাশে কাত করা। ফেসবুকে ইটালীক ফন্ট স্ট্যাইল ব্যাবহার করা হয়না।
.
প্রতিটি ছবির শেষে public/ friends/ only me এই তিন রকমের অপশান আসে। পোফাইল পিকচারগুলো শুধুই পাবলিক করা থাকে। পাব্লিক অপশানের একটা ওয়ার্ল্ড আইকন আছে। প্রথম ছবিতে ওয়ার্ল্ড আইকন থাকলেও দ্বিতীয় ছবিতে সেই ওয়ার্ল্ড আইকন কোথায়? বেচারা এডিটর লেখাটা লিখেই শেষ, আইকন দিতে ভূলে গেছে, ফন্ট বদলে দিয়েছে, am নাকি pm দিতে ভূলে গেছে, ফন্ট স্ট্যাইল Italic দিয়ে বসে আছে। এতকিছু দেখার পরও রাকেশ রায় কে জেলে পাঠানো হলো, আবার চার দিনের রিমান্ডও দেয়া হলো, অথচ একই অপরাধে আব্দুল আজিজকেও রিমান্ড দেয়নি।
.
একটা সামান্য ছবি জাজ করতে যারা পারেনা তারা রিমান্ডে নিয়ে কি বের করবে বলতে পারেন? রিমান্ডে নিয়ে একজন কৃষকলীগের নেতাকে আপাদম্পস্তক পেটানো হবে প্রধানমন্ত্রীকে হত্যার হুমকী দেয়ার কারণে। যে কর্মরত পুলিশ রাকেশ রায়কে গ্রেফতার করেছে তার ফেসবুকে আপলোড করা সেলফিতে যে ঘৃণা ঝরেছে তা আমরা দেখেছি। রিমান্ড একজন সংখ্যালঘুদের পক্ষে কথা বলা ব্যাক্তিকে আপাদমস্তক টর্চার করে থামিয়ে দিতে চাইবে।
.
এদেশে যেই মৌলবাদের প্রতিবাদ করবে তার তাকেই ধর্মীয় অনুভূতির কটুক্তির অভিযোগে ফাঁসানো হবে, নয়তো প্রধানমন্ত্রীকে হুমকীর অভিযোগ, এই সহজ দুইটি বাণ এ যে কাউকেই সহজে কাবু করতে পারে, দেশছাড়া করতে পারে, দুই চারটা নাসিরনগর আর রামু অনায়াসে ধ্বংস করে দিতে পারে।
মৌলবাদের প্রতিবাদ করবেন না,
রাকেশ রায় একটি জীবন্ত উদাহরণ।।
.
.
.
.
.
হৃদয় মজুমদার,
মহারাজাপুর, ঢাকা।।

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

হৃদয় মজুমদার
হৃদয় মজুমদার এর ছবি
Offline
Last seen: 4 দিন 20 ঘন্টা ago
Joined: বুধবার, নভেম্বর 23, 2016 - 5:13অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর