নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 5 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নরসুন্দর মানুষ
  • রাহুল মল্ল
  • দ্বিতীয়নাম
  • সাইয়িদ রফিকুল হক
  • রাজর্ষি ব্যনার্জী

নতুন যাত্রী

  • নীল মুহাম্মদ জা...
  • ইতাম পরদেশী
  • মুহম্মদ ইকরামুল হক
  • রাজন আলী
  • প্রশান্ত ভৌমিক
  • শঙ্খচূড় ইমাম
  • ডার্ক টু লাইট
  • সৌম্যজিৎ দত্ত
  • হিমু মিয়া
  • এস এম শাওন

আপনি এখানে

কোরআনের সূচনাতেই ইহুদি ও খ্রিস্টান বিদ্বেষের শুরু !



আমাদের দেশে খুব প্রচলিত একটি প্রবাদ হচ্ছে “বিসমিল্লায় গলদ “ এবং এর দ্বারা সচারাচর আমারা বুঝাই কোন কিছুর শুরুতেই গলদ হলে সামনে আরও গলদ হওয়ার সম্ভাবনা। এই প্রবাদের অন্যতম উপযুক্ত উদাহারন হচ্ছে কোরআন।

মুহাম্মাদের কোরআন যে একটি বর্বর, অযৌক্তিক, মিথ্যাচারে ভরপুর এবং জাতিবৈশিষ্ট্যবাদভিত্তিক ( ইহুদি এবং খ্রিস্টান বিদ্বেষ) ধর্মগ্রন্থ এই বেপারে আমাদের অনেকেরই কোন সন্দেহ নেই। এইখানে বিশেষ ভাবে উল্লেখযোগ্য কোরআনের ইহুদি ও খ্রিস্টান বিদ্বেষ। মুহাম্মাদ নিজেই হাজার খানেক ইহুদি নিজ হাতে মুমিনদের সবচে প্রিয় কাফের নিয়ন্ত্রক অস্ত্র তলোয়ার দ্বারা কতল করেছেন। আর এই বিদ্বেষের শুরু কোরআনের প্রথম সুরা থেকেই।

কোরআনের প্রথম সুরা হচ্ছে সুরা ফাতিহা । এই সুরা জানে না এরকম মুসলিম পাওয়া কষ্টকর। মুসলিমদের দৈনিক ৫ ওয়াক্ত ও অন্যান্য নামাজের অপরিহার্য অংশ সুরা ফাতিহা। নামাজের প্রতিটা রাকাত শুরু করতে হয় সুরা ফাতিহা দ্বারা। এই জন্য এই সুরাকে বলা হয় কোরআন এবং নামাজ “উন্মুক্তকারী” এবং সাথে সাথে আমরা এই সুরাকে ইহুদি ও খ্রিস্টান বিদ্বেষ সূচনাকারীও বলতে পারি। সুরা ফাতিহার শেষ দুইটা আয়াত (৬ ও ৭) আমরা যদি লক্ষ্য করি সেখানে মুহামাদ এবং তার আল্লাহর ইহুদি এবং খ্রিস্টান বিদ্বেষের সুস্পষ্ট প্রমাণ প্রতীয়মান হয়। আর মাধ্যমে মুসলিমদের মধ্যে বিধর্মীদের প্রতি ঘৃণা এবং বিদ্বেষ ছড়ানো হয়।

সুরা ফাতিহার আয়াত ৬ ও ৭ এ আল্লাহকে জিজ্ঞেস করা হয় “আমাদেরকে সরল পথ দেখাও, সে সমস্থ লকের পথ, যাদেরকে তুমি নেয়ামত দান করেছ। তাদের পথ নয়, যাদের প্রতি তোমার গজব নাযিল হয়েছে এবং যারা পথভ্রষ্ট হয়েছে”। এই আয়াতগুলির বিভিন্ন রকম ব্যাখ্যা পাওয়া যায়, তারমধ্যে সবচে গ্রহণযোগ্য ব্যাখ্যয় “সরল পথ” বলতে ইসলাম, “যাদের প্রতি তোমার গজব নাযিল হয়েছে” বলতে ইহুদিদের বোঝান হয়েছে আর পথভ্রষ্ট হচ্ছে খ্রিস্টানরা। “দা কোরআনঃ অ্যান ইন্সাইক্লপেডিইয়া, ৪৩ জন মুসলিম এবং অমুসলিম শিক্ষাবিদ দ্বারা লিখিত গ্রন্থেও একইরকম ব্যাখ্যা পাওয়া যায়। এছাড়াও বিখ্যাত কোরআন ভাষ্যকার ইবনে কাথির তার ব্যাখ্যায় বলেছেন “ এখানে যে দুটি পথের কথা বলা হয়েছে দুটোই পথভ্রষ্ট এবং এ দুটি পথ হচ্ছে ইহুদি এবং খ্রিস্টানদের পথ” । উপড়ে উল্লেখিত ব্যাখ্যা বাদেও প্রকৃতপক্ষে বেশিরবাগ মুসলিম পণ্ডিতেরা বিশ্বাস করে যে, ইহুদীরা আল্লাহ্র ক্রোধ অর্জন করেছে এবং খ্রিস্টানরা বিভ্রান্ত হয়ে গেছে। এদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য পণ্ডিতেরা হচ্ছেন, আল-তাবারি, তাফসির ইবনে আব্বাস প্রমুখ।

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

এম এম আর সজীব
এম এম আর সজীব এর ছবি
Offline
Last seen: 5 months 3 weeks ago
Joined: সোমবার, ডিসেম্বর 19, 2016 - 8:34পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

কপিরাইট © ইস্টিশন ব্লগ ® ২০১৮ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর