নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 7 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • নুর নবী দুলাল
  • হাসান নাজমুল
  • শ্রীঅভিজিৎ দাস
  • মুফতি বিশ্বাস মন্ডল
  • নিরব
  • সুব্রত শুভ
  • কুমকুম কুল

নতুন যাত্রী

  • নিনজা
  • মোঃ মোফাজ্জল হোসেন
  • আমজনতা আমজনতা
  • কুমকুম কুল
  • কথা নীল
  • নীল পত্র
  • দুর্জয় দাশ গুপ্ত
  • ফিরোজ মাহমুদ
  • মানিরুজ্জামান
  • সুবর্না ব্যানার্জী

আপনি এখানে

প্রিন্স মাহমুদের ধর্মানুভূতির উন্মত্ত গিটার!


প্রিন্স মাহমুদের সুরে, কথায় ও কম্পোজিশনে বাংলা ব্যান্ডে যেসব গান সৃষ্টি হয়েছে তা সময়ের পরিক্রমায় আজ ক্ল্যাসিকে রূপ নিয়েছে। মাইলস, এলআরবি, ফিলিংস/নগর বাউল, আর্ক ব্যান্ডের শাফিন-হামিন, আইয়ুব বাচ্চু, জেমস ও হাসানদের কন্ঠে নব্বই দশক থেকে যেসব কালজয়ী গান প্রিন্স তাঁর সুর কথায় ও কম্পোজিশনে উপহার দিয়েছেন তা বাংলা ব্যান্ড-সংগীতকে এক অন্য মাত্রায় নিয়ে গেছে। যেমন কথা তেমন সুর তেমন কম্পোজিশন। বাংলা ব্যান্ডের ভিতকে শক্ত করেছেন যে ক'জন সংগীত স্রষ্টা তার অগ্রভাগে প্রিন্স মাহমুদ আছেন, ভবিষ্যতেও থাকবেন।

ভারতের সংগীত শিল্পী সনু নিগমের আজান নিয়ে টুইটকে কেন্দ্র করে গোটা ভারতে তোলপাড় চলছে। দেখলাম আমাদের দেশেও সেটা কমবেশ আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে। সেই রেশ ধরে প্রিন্স মাহমুদও ফেসবুকে তাঁর প্রতিক্রিয়া বেশ কড়া ভাবে জানিয়েছেন। তাঁর স্ট্যাটাসে দেখলাম যে, পাকিস্তানি জনা তিনেক শিল্পী ও আমাদের জেমস বছর চৌদ্দ আগেই নাকি শিল্পী সনু নিগমের ক্যারিয়ারের বারোটা বাজিয়ে দিয়েছেন। কিভাবে? সে ব্যাখ্যা অবশ্য তিনি দেন নি! প্রিন্স মাহমুদ সনু নিগমকে 'শেষ রাতের মাতাল' আখ্যা দিয়ে পবিত্র আজানের সুর নিয়ে মন্তব্যর জন্য তাঁকে (সনু নিগম) জন-সমক্ষে আলোচনায় নিয়ে আসার এটা একটা কৌশল, সাম্প্রদায়িক, স্টান্টবাজ ইত্যাদি আখ্যা দিলেন। আচ্ছা, এক্ষণে আপাত সবই মেনে নিলাম বটে!

দেশের ধারাবাহিক চলমান নানান সাম্প্রদায়িক-ধর্মীয় ঘটনায় প্রিন্স মাহমুদের প্রতিক্রিয়া কেমন? তাঁর ফেসবুক টাইমলাইন ঘেটে দেখি একটু। একদম সাম্প্রতিক হেফাজতের পহেলা বৈশাখ হারাম-অনৈসলামিক, ভাস্কর্য অপসারণ, কওমি মাদ্রাসার মাস্টার্স স্বীকৃতিসহ নানান ইস্যুতে তাঁর ফেসবুক প্রোফাইল একের পর এক স্ক্রল করে গেলাম। না কিছুই পেলাম না। বাংলাদেশ রাষ্ট্রের এই পর্যায়ের একজন গুণী সংগীত স্রষ্টা বাংলাদেশের বছর চারেক ধরে চলমান রাজনৈতিকসৃষ্ট ধর্মীয়-সাম্প্রদায়িক ইস্যুতে কি না মুখে একদম কুলুপ আটা?! সোজা কথায় স্পিকটি নট! অথচ পাশের দেশ ভারতের শিল্পী সনু নিগম কী বলেছেন না বলেছেন (নির্দিষ্ট করে ইসলাম ও আজান!) তা নিয়ে তিনি রাগে-ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন! কিসের রাগ তাঁর? মুসলমান-মুসলমানিত্বের রাগ তো নাকি? আহ! প্রিন্স মাহমুদ, কি অনুভূতি তাঁর, আহা, কি মাতম!

এইখানেই শুধু থেমে থাকেন নি তিনি। স্ট্যাটাসের শেষে বেলায় বেশ চমকে দিয়েছেন সবাইকে। কী সেটা...? তাঁর ভাষ্যে এইরকম, গির্জার ঘণ্টাধ্বনি, মন্দির/হিন্দুবাড়ির ঘন্টা/উলুধ্বনি ও আজানের সুরকে তিনি 'আমাদের' বলে সর্বনামী করে সম্বোধন করে এইসব সুরকে শ্রেষ্ঠ সুর বলেছেন! বেশ কৌশল বটে! আচ্ছা, ধরে নিচ্ছি তাঁর শেষের অভিব্যক্তি কথার কথা না। তাঁর শিল্পীসত্ত্বার এক ধরণের সমন্বয় ধাঁচের কথা এটা। আচ্ছা। বেশ বেশ।

তো ব্যাপার হচ্ছে যে, তেঁতুল শফি-হেফাজতসহ ও দেশের অত্যুগ্র আপাময় মুসলমান তৌহিদি জনতা এইসব ধুনফুন কুফুরি কথাবার্তা মেনে নেবে কী জনাব প্রিন্স মাহমুদ? আর এইসব মিনমিন করা কথায় কি চিড়ে ভিজবে? পারবেন এই তৌহিদি জনতাকে মোকাবেলা করে এই সব ভাঙনের সময়ে ভঙ্গুর বাংলা গানকে আবার চাঙা করতে, উজ্জীবিত করতে? যেখানে মহাসমারোহে বইপুস্তক-শিক্ষা, সিনেমা-নাটক, শিল্পকলা-ভাস্কর্যসহ সব জায়গায় এই শফির নেতৃত্বে জিহাদি-তৌহিদিরা হুকুম দিয়ে রাতারাতি সব পরিবর্তন করিয়ে নিচ্ছে, সেই জায়গায় আপনি/আপনারা বাংলা ব্যান্ড, বাংলা গান তথা সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যকে রক্ষা করতে পারবেন? বাংলা ব্যান্ড তাও আবার বিদেশি বাদ্য-বাজনা নির্ভর। আর শব্দ প্রাচুর্যতা বিচারে যা ভারি।

যেখানে এই ধর্মশ্রেণির পাণ্ডা-মুল্লারা সহজ-সরল, সংসার বৈরাগি বাউলেদের গানকে, টুংটাং একতারার আওয়াজকে ধর্মের দোহাই দিয়ে ফতোয়া দিয়ে একঘরে করে রেখেই শুধু ক্ষান্ত দেয় না। পাড়া পড়শি নিয়ে অসহায় বাউলদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে। শুধু এই না, সংসার ত্যাগী নির্লোভ নিরীহ এই বাউলদের সাধনার চুল-দাঁড়ি-মোছ কেটে এরা পাশবিক উল্লাসে মেতে উঠে! এলাকা দেশ ছাড়া করে। সে জায়গায় প্রিন্স মাহমুদরা স্বাক্ষি গোপাল! নিরব দর্শক। দেশের ভেতর স্বজাতি, সংগীতের মূল ধারক-বাহকদের আপদে-বিপদে টু শব্দটি নাই অন্যদিকে ভারতের সনু নিগম কি বলেছে না বলেছে তা নিয়ে প্রিন্স মাহমুদদের অন্তরমন অহর্নিশি ধিকিধিকি জ্বলেপুড়ে খাক হয়ে যাচ্ছে! নিজের ঘরে মশাল নাই অন্যের ঘরে আগুন লাগাতে ব্যস্ত!

এইরকম ভয়াবহ আকালের কালে বাংলা ব্যান্ড তথা বাংলা গানকে কি টিকিয়ে রাখতে পারবেন বলে মনে করেন? আর নিজেই কি টিকে থাকতে পারবেন? ধর্মীয়-সাম্প্রদায়িক ধ্রিম ধ্রিম ড্রামের আওয়াজ কি আপনার কানে এখনো বাজে না? আপনি/আপনারা চারদিকে অশুভ ধর্মান্ধ প্রতিক্রিয়াশীল শক্তির প্রলয়নাচন কি দেখতে পান না? নাকি সব জেনে বুঝে মূক ও বধির হয়ে আছেন? নিজের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখার জন্য সময়মত প্রতিবাদ যদি করতে না-ই পারেন, তবে শেষবেলায় বাদ্য-বিহীন হামদ-নাত গাইতে হয় কি না কে জানে?! সময়ের পরিহাস বলে কথা!

আর সেদিন বুঝি বেশি দূরেও নয়!

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

মনির হোসাইন
মনির হোসাইন এর ছবি
Offline
Last seen: 15 ঘন্টা 24 min ago
Joined: শনিবার, এপ্রিল 20, 2013 - 10:17অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর