নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 3 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • জলের গান
  • নুর নবী দুলাল
  • আকাশ সিদ্দিকী

নতুন যাত্রী

  • সুমন মুরমু
  • জোসেফ হ্যারিসন
  • সাতাল
  • যাযাবর বুর্জোয়া
  • মিঠুন সিকদার শুভম
  • এম এম এইচ ভূঁইয়া
  • খাঁচা বন্দি পাখি
  • প্রসেনজিৎ কোনার
  • পৃথিবীর নাগরিক
  • এস এম এইচ রহমান

আপনি এখানে

বাংলাদেশের ভূমি ব্যবস্থাপনার আধুনিকায়নঃ পর্ব-০৩


পর্ব-০৩
ভূমিতে জন্ম, ভূমিতে চাষ, ভূমিতে বাস, ভূমিতে ঔষধ_মানুষের মৌলিক চাহিদার অন্তর্গত অন্ন, বস্ত্র,বাসস্থান,চিকিৎসা সব কিছুই ভূমি কেন্দ্রিক।

প্রাচীন কালে জনসংখ্যার তুলনায় ভূমির পরিমান ছিল অনেক বেশি। তখন ব্যক্তিতে-ব্যক্তিতে, পরিবারে-পরিবারে কিংবা গোত্রে-গোত্রে,রাষ্ট্রে-রাষ্ট্রে ভূমির প্রাপ্যতা কিংবা দখল দারিত্ব নিয়ে কাড়াকাড়ি কিংবা মারামারি ছিলনা।

কিন্তু জনসংখ্যার আধিক্য ও ব্যবহারযোগ্য ভূমির অপ্রতুলতার কারনে এবং মানুষের জেনেটিক্স আগ্রাসী মনোভাবের কারনে ভূমির দখল ও মালিকানাকে কেন্দ্র করে দ্বান্দ্বিক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।উৎপাদন শক্তিতে সৃষ্ট শ্রেনীর কারনে ঐতিহাসিক শ্রেনী সংগ্রামের আবির্ভাব ঘটে। মানব সমাজের ইতিহাস শ্রেনী সংগ্রামের ইতিহাস।শোষক ও শোষিত শ্রেনীর দ্বন্দ্বের ইতিহাস। ঐতিহাসিক দ্বান্দ্বিক নিয়মেই নতুন নতুন উৎপাদন ব্যবস্থার সাথে সাথে নতুন নতুন দুই বিপরীত ধরনের শ্রেনীর সৃষ্টি এবং দুই শ্রেনীর দ্বান্দ্বিকতায় নতুন উৎপাদন ব্যবস্থার সঙ্গে সঙ্গে সমাজের পরিবর্তন হতে থাকে। সমাজ দার্শনিক কার্ল মার্ক্স প্রদত্ত সমাজ পরিবর্তনের ধাপ নিম্ন রূপ:
প্রাচীন সাম্যবাদী সমাজ >>দাস-মালীক সমাজ>>সামন্ততান্ত্রিক সমাজ>>পুঁজিবাদী সমাজ>>সমাজ তান্ত্রিক সমাজ>> সাম্যবাদী সমাজ।

সমাজ বিবর্তনের প্রতিটি ধাপেই ভূমি ব্যবস্থাপনার পরিবর্তন হয়েছে।

আমারা এখন পর্যন্তও মার্ক্সের সমাজ বিবর্তনের চতুর্থ ধাপ অতিক্রম করিনি যদিও বিশ্বের প্রায় অর্ধাংশ সমাজতান্ত্রিক অর্থনৈতিক ধারায় প্রবেশ করে পুনরায় চতুর্থ ধাপেই চলমান আছে।

যতদিন ভূমির ব্যক্তিক কিংবা পারিবারিক মালিকানা বিদ্যমান থাকবে, যতদিন পর্যন্ত ভূমির সামষ্টিক কিংবা সামাজিক মালিকানা পরিপূর্নভাবে বাস্তবায়িত না হবে ততদিন পর্যন্ত ভূমি ব্যবস্থাপনার গুরুত্বটা অধিকতর গুরুত্ব সহকারে বিবেচিত হবে। তবে সামষ্টিক মালিকানার ক্ষেত্রেও ভূমি ব্যবস্থানার ধরন পরিবর্তন হলেও উহার প্রয়োজনীয়তা থাকতেই থাকবে।

বাংলাদেশের ভূমি ব্যবস্থাপনা এখনও সামন্ততান্ত্রিক ও ঔপনেবিশক ভাবধারায় পরিচালিত।

আধুনিক জনকল্যাণমূলক রাষ্ট্র পরিচালিত হবে জনগনের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি দ্বারা। এখানে রাষ্ট্রযন্ত্রে কর্মরত সবাই জনগনের সেবক হিসেবে বিবেচিত হবে_শাসক নয়, সেবক। প্রশাসন শব্দের অর্থ প্রকৃষ্ট রূপে শাসন। "প্রকৃষ্ট রূপে শাসন" কথাটি "প্রকৃষ্ট রূপে সেবা প্রদান" দ্বারা রিপ্লেস করতে হবে। শাসনের ধারনা সেবার ধারনায় রূপায়িত হবে। প্রজাতন্ত্রের কর্মচারীগন জনগনের শাসক নন, বরং জনগনের সেবক। এর বিপরীত চিন্তা সামন্তবাদী-ঔপনেবিশিক ভাবধারার চিন্তা।

অতএব, বাংলাদেশের ভূমি ব্যবস্থাপনাকে সম্পূর্ন সেবামূলক করার নিমিত্ত উহাকে অবশ্য অবশ্যই প্রশাসন থেকে পৃথক করে পৃথক জনবলে পৃথক অর্গানোগ্রামে পরিচালিত করতে হবে এবং ভূমি ব্যবস্থাপনার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আইন-বিধি-ধারা-উপধারা যুগোপযোগী করতে হবে।

আবু মোমিন
Bachelor of Agricultural Education[B.Ag.ED]
MSS[Pol. Science ]
যুগ্ম সম্পদক
টাংগাইল জেলা কমিটি[বাভূঅকস]

সদস্য সচিব
"গঠনতন্ত্র সংশোধন উপ কমিটি"
বাংলাদেশ ভূমি অফিসার্স কল্যাণ সমিতি।

বিভাগ: 

Comments

Post new comment

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

বোর্ডিং কার্ড

আবু মমিন
আবু মমিন এর ছবি
Offline
Last seen: 1 month 2 weeks ago
Joined: সোমবার, মে 2, 2016 - 3:00পূর্বাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

কু ঝিক ঝিক

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর