নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 8 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • জান্নাতুল নাইম শাওন
  • শাহরিয়ার জাহিদ...
  • পৃথু স্যন্যাল
  • নীল কষ্ট
  • আরিফ ইউডি
  • নুরুন নেসা
  • এম ইউ রাকিব
  • দ্বিতীয়নাম

নতুন যাত্রী

  • আবুল কালাম
  • ইমরান আহমেদ সৈকত
  • উন্মাদ কবি
  • রাহাত মাকসুদ
  • শাহরিয়ার জাহিদ...
  • অপূর্ব দাশ
  • এল্লেন সাইফুল
  • বাপ্পি হালদার
  • রমাকান্ত রায়
  • আবুল খায়ের

আপনি এখানে

নারীর পর্দা,সংযম ও ধর্মীয় কিংবদন্তিদের অবস্থান


প্রত্যেক ধর্মেই কমবেশি আছে নারীদের পর্দার কথা।এটা হল ধর্মগুরুদের নিজেদের হীন স্বার্থ চরিতার্থ করার গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ।

নিজেদের অপরিসীম যৌনতার লাগাম পুরুষদের নিজেদের হাতে নেই, সেই লাগাম তারা তুলে দিয়েছেন নারীদের হাতে। নিজেদের নিয়ন্ত্রণ করতে পারেন না,তাই নারীদের পর্দা করতে বাধ্য করেন।আবার তারাই বড় বড় বক্তৃতা দেন সংযমের পক্ষে।এই আপনাদের সংযম, একজন নারীকে বিকিনি তে দেখলেই তা উবে যায়।আপনাদের চেয়ে তাহলে তো বলতে হয় ঐ ইউরোপ আমেরিকার নাস্তিক,অজ্ঞেয়বাদী,আস্তিক (ধর্মে বিশ্বাসী নয়) পুরুষ গুলো বেশি সংযমী।

আপনারা সংযম বলতে কি বুঝেন জানি না।

খুব সহজ কথায় সকল প্রকার লোভ সংবরণকেই সংযম বলে।
শুধু নারী কেন অর্থ,ক্ষমতা,স্বার্থ সংশ্লিষ্ট যে কোন কিছুর লোভ সংবরণকেই সংযম বলে।
চারিদিকে অবৈধ পথে অনেক টাকা কামানোর উপায় আছে, উন্নত জীবনের হাতছানি আছে কিন্তু মানুষ সেগুলোর লোভ সংবরণ করে কারণ মানুষ সংযমী, নাকি সেগুলো থেকেও পুরুষদের নিবৃত্ত করার জন্য সেই অবৈধ উপায় গুলোকে পর্দাবৃত করতে হবে,এমন উপায় আছে নাকি ধার্মিকদের হাতে???

আর ধর্মগুরুদের সংযম তো প্রশ্নেরও অতীত। তারা নিজেদের বিয়ের ক্ষেত্রে কোন নিয়ম নীতি, বয়স, সংখ্যা কোন কিছুরি তোয়াক্কা করেননি।তাদের বিয়ের সংখ্যাটা একাধিক বললে তাদের অমর কৃতিত্ব কে অপমান করা হবে, কখনো কখনো সেই সংখ্যা ১০ থেকে হাজার অবধি বিস্তৃত। তাদের বিয়ের লিস্টে অসমবয়সী, নাবালিকা থেকে শুরু করে দূর সম্পর্কের পালিত পুত্রের বউও আছে।আর হিন্দুদের কৃষ্ণ তো পশুতেও তার বিবাহ বিস্তৃত করছেন।শুনেছি আর এক দিব্যদৃষ্টি সম্পূর্ণ ধর্মগুরু নাকি আবার বিজিত রাজাদের কাছ থেকে উপঢৌকন স্বরূপ যৌনদাসী ও পেতেন।এর সাথে আবার যুক্ত আছে পত্নী উপপত্নীর জটিল সমীকরণ।যাই হউক তাদের এই অসীম সংযম নিয়ে কোন কথা বলার কোন অধিকার আমার নেই এবং তাদের মত সংযমী হওয়ার বাসনাও আমার নেই।

যে পুরুষ নিজের বাড়ির মেয়েদের সামান্য বিবস্ত্র দেখলেই চোখ নামিয়ে ফেলে তারাই আবার বাহিরের মেয়ে দেখলে হামলে পড়ে।তাই বলছি যদি নিজেদের সংযমকে কাজে লাগান তো শুধু ঘরে কেন বাহিরেও কাজে লাগান।তাতে ঘর যেমন নিরাপদ থাকবে বাহির ও তেমনি নিরাপদ থাকবে।এটা হলে আপনার ঐ মাত্রাতিরিক্ত যৌনতার দায় মেয়েদের ঘাড়ে পড়ত না এবং তাদের ও বস্তাবৃত করার জন্য আপনাদের এত দৌড় ঝাপ করতে হত না।

পৌরষ শব্দটির সাথে অনেক কিছু জড়িত শুধু শৌর্য, বীর্য নয় তাতে সংযম নামের ও একটি বৈশিষ্ট্য আছে।

তাই পৌরষত্ব মানে শুধু লিঙ্গের আস্ফালনকেই বুঝয় না, লিঙ্গের আস্ফালন নিয়ন্ত্রণ কে ও বুঝুয়(এখানে আস্ফালন নিয়ন্ত্রণ বলতে মেয়েদের উপর হামলে না পড়ার মনোবৃত্তিক নিয়ন্ত্রণকেই বুঝানো হয়েছে।)।

আশা করি পুরুষরা নিজেদের তথাকথিত অসীম যৌনতার উপর নিয়ন্ত্রণ শব্দটি আরোপ করে পৌরষ সমৃদ্ধ সুপুরুষ হওয়ার পথে এগিয়ে যাবেন এবং আপনার বোন,স্ত্রী,মেয়ে সর্বোপরি মানব প্রজাতির আর একটি গুরুত্বপূর্ণ সত্তাকে ও মুক্তি দিবেন তাদের বস্তাবন্দী জীবন থেকে------এই কামনায় আপনারা সবাই ভাল থাকবেন।

মন্তব্যসমূহ

নির্বাণ রায় এর ছবি
 

মানুষের রোল মডেল কে হবে সে বিষয় নিয়ে আমি লিখতে বসিনি।মানবিকতা পূর্ণ মানুষ হন আশা করি আপনার ও পর্দা লাগবে না---আর মানবিকতা পূর্ণ মানুষ হলে রোল মডেল টা আপনি ও হতে পারেন।
আর আপনি না হয় ভাল সাইড টা নিয়ে ভাবেন।সবাই এক জিনিস ভেবে কাজ নেই।আমি খারাপ সাইট টাই উল্লেখ করি ,সেটা যেনে যদি কেউ ভাল হয় তো ভাল।
আর যুক্তি সত্য কিনা সেটা বড় কথা ।আপনি তাতে হাসলেন কি কাঁদলেন সেটা মূর্খ্য নয়।
আর আপনার কাছ থেকে এ বিষয়ে গভীর পান্ডিত্যপূর্ণ আর ভাল লেখা কমনা করছি,যা হবে যুক্তিপূর্ণ ও অহাস্যকর।
আপনার মন্তব্যের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

 

নতুন কমেন্ট যুক্ত করুন

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

Facebook comments

বোর্ডিং কার্ড

নির্বাণ রায়
নির্বাণ রায় এর ছবি
Offline
Last seen: 1 দিন 9 ঘন্টা ago
Joined: সোমবার, ডিসেম্বর 26, 2016 - 10:58অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর