নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

ওয়েটিং রুম

এখন 7 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

  • রুদ্র মাহমুদ
  • পৃথু স্যন্যাল
  • সুষুপ্ত পাঠক
  • বেহুলার ভেলা
  • নিটোল আরন্যক
  • মো.ইমানুর রহমান
  • সুজন আরাফাত

নতুন যাত্রী

  • রমাকান্ত রায়
  • আবুল খায়ের
  • একজন সত্যিকার হিমু
  • চক্রবাক অভ্র
  • মিস্টার ইনকমপ্লেইট
  • নওসাদ
  • ফুয়াদ হাসান
  • নাসিম হোসেন
  • নেকো
  • সোহম কর

আপনি এখানে

আত্মা


আত্মা কি এবং তার অস্তিত্ব আছে কিনা তা আমি জানিনা। এ মহাবিশ্বে না থাকলেও অন্যকোন কোন মহাবিশ্বে উহার অস্তিত্ব আছে কিনা তাও জানিনা।

কোয়ান্টাম তত্তানুসারে, কোন ঘটনা ঘটার সম্ভবনাই শূন্য নয়।স্ট্রিং তত্ত্বানুসারে, অগনন সংখ্যক মহাবিশ্ব অগনন সংখ্যক প্রাকৃতিক আইনে শাসিত। কোন একটি মহাবিশ্বে কোন বিশেষ প্রাকৃতিক আইনে আত্মার অস্তিত্ব থাকার সম্ভবনাকে নাকচ করা যায়না। তাই আত্মার অস্তিত্বের প্রশ্নে আমি অজ্ঞেয়বাদী। তার মানে এই নয় যে, ধর্মে বর্নিত আত্মার স্বরূপে আমি বিশ্বাস করতে চাচ্ছি। আমি খুশি হতাম যদি সত্যি সত্যি আত্মার অস্তিত্ব থাকতো। এ পর্যন্ত আবিষ্কৃত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে আমরা আত্মার অস্তিত্ব খুঁজে পাইনি। তবে আত্মার অনস্তিত্বে ঘোষণা দেওয়াটাও সাইন্টিফিক নয়।

যা সুসংজ্ঞায়িত নয়, যা বস্তুর কার্য-কারন সম্পর্কে আনয়নযোগ্য নয় তার অস্তিত্ব এবং অনস্তিত্ব বিষয়ক যেকোন ঘোষণাই অবৈজ্ঞানিক।

অতএব, আত্মার অস্তিত্ব স্বীকার এবং অস্বীকারের ঘোষণা উভয়ই অবৈজ্ঞানিক। এর বিজ্ঞান মনস্ক জবাব হলো আত্মার অস্তিত্ব আছে কিনা তা জানিনা।

আত্মাকে আমরা হার্ডওয়্যারবিহীন সফ্টওয়্যার হিসেবে কল্পনা করতে পারি। চতুর্মাত্রার স্কেলে হার্ডওয়্যারবিহীন সফ্টওয়্যার কল্পনাও অবৈজ্ঞানিক। কিন্তু আত্মা যদি 4d+ মাত্রার সঙ্গে সম্পর্কিত কোন সত্ত্বা হয় তবে তার অস্তিত্ব কল্পন অবৈজ্ঞানিক নয়। কারন সেক্ষেত্রে আমাদের সর্বাধুনিক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ব্যবহারেও আত্মাকে খুঁজে পাওয়া যাবেনা।

এ পর্যন্ত আত্মা নামীয় সত্তাটি শুধুই কল্পনা। কিন্তু যার অস্তিত্ব নেই সে বিষয়ক কল্পনা কেন মানব মস্তিষ্কে উদয় হবে? মানব মস্তিষ্কওতো কার্য-কারন সম্পর্কের বাইরে নয়!

সহজ যুক্তিতে যা বুঝা যায় যার অস্তিত্ব নেই সে বিষয়ক কল্পনাও মানব মস্তিষ্কে আসবেনা।

জগতে অস্তিত্ববান এমন সত্তারই ছাপ মানব মস্তিষ্কে সৃষ্ট হওয়াটাই যৌক্তিক। যা বাইরে নেই তা মানব মস্তিষ্কেও ধরা দিবেনা। আপনি বলতে পারেন বাইরের বিষয় গুলো মানব মস্তিষ্কে বিকৃতভাবে ধরা দিতে পারে। কিন্তু মানব মস্তিষ্কে ধৃত কোনটি প্রকৃত বাস্তবতা, আর কোনটি শুধুই অপ্রকৃত তা নির্ধারনের মানদন্ড কি?
উত্তর হলো মানুষের পক্ষে তা নির্ধারন করা সম্ভব নয়!

আমি শুধুই দেহ, আমি আত্মা নই। এর অর্থ হলো একটি জড় সংগঠক ঘোষণা দিচ্ছে, সে শুধুই দেহ কিন্তু ঘোষক নিজে জানেনা সে কে।

শূন্য থেকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে জড়ের সৃষ্টি হয়েছে এবং জড়ের জটিলতম সংগঠন জড়ই বলছে আমি শূন্য থেকে সৃষ্টি হয়েছি। জড় নিজেই তার অস্তিত্ব ও উৎপত্তি ব্যাখ্যা করছে।

আমরা জড়কে জানতে জানতে মূলত "কিছুইনা"কে কিংবা শূন্য(০)কে পাই! জড় কি? জড় হলো বিভিন্ন কম্পাঙ্ক ও তরঙ্গ দৈর্ঘ্যে, ভিন্ন ভিন্ন কৌনিক অবস্থান-বিস্তার ও মাত্রায় অবস্থিত ইলেক্ট্রাম্যাগনেটিক ওয়েভের প্যাটার্ন যা আমাদের মস্তিষ্কে বস্তু রূপে প্রতিভাসিত হয়। অন্যভাবে বলতে হয় জড় হলো শূন্যের উপর ক্রিয়াশীল কতগুলো যৌক্তিক গানিতিক রাশিমালার বাস্তব প্রতিফল। মানব মস্তিষ্ক ব্যতীত জড় অনির্নেয় কিংবা অসংজ্ঞায়িত। একইভাবে, আত্মাও শূন্য ও অসংজ্ঞায়িত!

আমার কান্ড জ্ঞান শুধু জড়ের মাধ্যমে জগতের ব্যাখ্যাকে গ্রহন করতে চায় কিন্তু সন্তোষজনক যুক্তিতে তা গৃহীত হয়না তা আমি বুঝতে পারি।

আর তাই জড় ব্যতীত ভিন্ন আর একটি সত্তার অস্তিত্ব আমার কান্ডজ্ঞান স্বীকার করতে চায়! সম্ভবত সেটা আত্মা না হলেও জড় বহির্ভূত ভিন্ন একটি সত্তা হবে!

জড় শূন্য, আত্মা শূন্য। কিংবা জড় নেই! আত্মা নেই! তবে আছেটা কি?!ত কি এবং তার অস্তিত্ব আছে কিনা তা আমি জানিনা। এ মহাবিশ্বে না থাকলেও অন্যকোন কোন মহাবিশ্বে উহার অস্তিত্ব আছে কিনা তাও জানিনা।

কোয়ান্টাম তত্তানুসারে, কোন ঘটনা ঘটার সম্ভবনাই শূন্য নয়।স্ট্রিং তত্ত্বানুসারে, অগনন সংখ্যক মহাবিশ্ব অগনন সংখ্যক প্রাকৃতিক আইনে শাসিত। কোন একটি মহাবিশ্বে কোন বিশেষ প্রাকৃতিক আইনে আত্মার অস্তিত্ব থাকার সম্ভবনাকে নাকচ করা যায়না। তাই আত্মার অস্তিত্বের প্রশ্নে আমি অজ্ঞেয়বাদী। তার মানে এই নয় যে, ধর্মে বর্নিত আত্মার স্বরূপে আমি বিশ্বাস করতে চাচ্ছি। আমি খুশি হতাম যদি সত্যি সত্যি আত্মার অস্তিত্ব থাকতো। এ পর্যন্ত আবিষ্কৃত বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিতে আমরা আত্মার অস্তিত্ব খুঁজে পাইনি। তবে আত্মার অনস্তিত্বে ঘোষণা দেওয়াটাও সাইন্টিফিক নয়।

যা সুসংজ্ঞায়িত নয়, যা বস্তুর কার্য-কারন সম্পর্কে আনয়নযোগ্য নয় তার অস্তিত্ব এবং অনস্তিত্ব বিষয়ক যেকোন ঘোষণাই অবৈজ্ঞানিক।

অতএব, আত্মার অস্তিত্ব স্বীকার এবং অস্বীকারের ঘোষণা উভয়ই অবৈজ্ঞানিক। এর বিজ্ঞান মনস্ক জবাব হলো আত্মার অস্তিত্ব আছে কিনা তা জানিনা।

আত্মাকে আমরা হার্ডওয়্যারবিহীন সফ্টওয়্যার হিসেবে কল্পনা করতে পারি। চতুর্মাত্রার স্কেলে হার্ডওয়্যারবিহীন সফ্টওয়্যার কল্পনাও অবৈজ্ঞানিক। কিন্তু আত্মা যদি 4d+ মাত্রার সঙ্গে সম্পর্কিত কোন সত্ত্বা হয় তবে তার অস্তিত্ব কল্পন অবৈজ্ঞানিক নয়। কারন সেক্ষেত্রে আমাদের সর্বাধুনিক বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ব্যবহারেও আত্মাকে খুঁজে পাওয়া যাবেনা।

এ পর্যন্ত আত্মা নামীয় সত্তাটি শুধুই কল্পনা। কিন্তু যার অস্তিত্ব নেই সে বিষয়ক কল্পনা কেন মানব মস্তিষ্কে উদয় হবে? মানব মস্তিষ্কওতো কার্য-কারন সম্পর্কের বাইরে নয়!

সহজ যুক্তিতে যা বুঝা যায় যার অস্তিত্ব নেই সে বিষয়ক কল্পনাও মানব মস্তিষ্কে আসবেনা।

জগতে অস্তিত্ববান এমন সত্তারই ছাপ মানব মস্তিষ্কে সৃষ্ট হওয়াটাই যৌক্তিক। যা বাইরে নেই তা মানব মস্তিষ্কেও ধরা দিবেনা। আপনি বলতে পারেন বাইরের বিষয় গুলো মানব মস্তিষ্কে বিকৃতভাবে ধরা দিতে পারে। কিন্তু মানব মস্তিষ্কে ধৃত কোনটি প্রকৃত বাস্তবতা, আর কোনটি শুধুই অপ্রকৃত তা নির্ধারনের মানদন্ড কি?
উত্তর হলো মানুষের পক্ষে তা নির্ধারন করা সম্ভব নয়!

আমি শুধুই দেহ, আমি আত্মা নই। এর অর্থ হলো একটি জড় সংগঠক ঘোষণা দিচ্ছে, সে শুধুই দেহ কিন্তু ঘোষক নিজে জানেনা সে কে।

শূন্য থেকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে জড়ের সৃষ্টি হয়েছে এবং জড়ের জটিলতম সংগঠন জড়ই বলছে আমি শূন্য থেকে সৃষ্টি হয়েছি। জড় নিজেই তার অস্তিত্ব ও উৎপত্তি ব্যাখ্যা করছে।

আমরা জড়কে জানতে জানতে মূলত "কিছুইনা"কে কিংবা শূন্য(০)কে পাই! জড় কি? জড় হলো বিভিন্ন কম্পাঙ্ক ও তরঙ্গ দৈর্ঘ্যে, ভিন্ন ভিন্ন কৌনিক অবস্থান-বিস্তার ও মাত্রায় অবস্থিত ইলেক্ট্রাম্যাগনেটিক ওয়েভের প্যাটার্ন যা আমাদের মস্তিষ্কে বস্তু রূপে প্রতিভাসিত হয়। অন্যভাবে বলতে হয় জড় হলো শূন্যের উপর ক্রিয়াশীল কতগুলো যৌক্তিক গানিতিক রাশিমালার বাস্তব প্রতিফল। মানব মস্তিষ্ক ব্যতীত জড় অনির্নেয় কিংবা অসংজ্ঞায়িত। একইভাবে, আত্মাও শূন্য ও অসংজ্ঞায়িত!

আমার কান্ড জ্ঞান শুধু জড়ের মাধ্যমে জগতের ব্যাখ্যাকে গ্রহন করতে চায় কিন্তু সন্তোষজনক যুক্তিতে তা গৃহীত হয়না তা আমি বুঝতে পারি।

আর তাই জড় ব্যতীত ভিন্ন আর একটি সত্তার অস্তিত্ব আমার কান্ডজ্ঞান স্বীকার করতে চায়! সম্ভবত সেটা আত্মা না হলেও জড় বহির্ভূত ভিন্ন একটি সত্তা হবে!

জড় শূন্য, আত্মা শূন্য। কিংবা জড় নেই! আত্মা নেই! তবে আছেটা কি?!

মন্তব্যসমূহ

নতুন কমেন্ট যুক্ত করুন

Plain text

  • সকল HTML ট্যাগ নিষিদ্ধ।
  • ওয়েবসাইট-লিংক আর ই-মেইল ঠিকানা স্বয়ংক্রিয়ভাবেই লিংকে রূপান্তরিত হবে।
  • লাইন এবং প্যারা বিরতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে দেওয়া হয়।
CAPTCHA
ইস্টিশনের পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখার জন্য আপনাকে ক্যাপচা ভেরিফিকেশনের ধাপ পেরিয়ে যেতে হবে।

Facebook comments

বোর্ডিং কার্ড

আবু মমিন
আবু মমিন এর ছবি
Offline
Last seen: 1 দিন 18 ঘন্টা ago
Joined: রবিবার, মে 1, 2016 - 9:00অপরাহ্ন

লেখকের সাম্প্রতিক পোস্টসমূহ

ফেসবুকে ইস্টিশন

SSL Certificate
কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর