নীড়পাতা

টিকিট কাউন্টার

দৃষ্টি আকর্ষণ

  • ট্রেনিংরুম ঘুরে আসুন।
  • ইস্টিশনের এন্ড্রয়েড এ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করুন
  • পরিষ্কার বাংলা দেখার জন্য এখান থেকে ফন্ট ইন্সটল করে নিন।
  • অনলাইনে লেখা কনভার্ট করুন
  • ইস্টিশনের নতুন ব্যানার দেখতে না পেলে/সমস্যা হলে Ctrl+F5 চাপুন।
  • প্যাসেঞ্জার ট্রেন শিডিউল
  • আপনার ব্রাউজার থেকে ইস্টিশনব্লগের সাথে সবসময় যুক্ত থাকতে নিচের লোগোতে ক্লিক করে টুলবারটি ইন্সটল করুন।
  • ওয়েটিং রুম

    এখন 6 জন যাত্রী প্লাটফরমে আছেন

    • রাফিন জয়
    • দীপ্ত সুন্দ অসুর
    • মিশু মিলন
    • সাইয়িদ রফিকুল হক
    • মোমিনুর রহমান মিন্টু
    • জাকারিয়া হুসাইন

    নতুন যাত্রী

    • ফারজানা কাজী
    • আমি ফ্রিল্যান্স...
    • সোহেল বাপ্পি
    • হাসিন মাহতাব
    • কৃষ্ণ মহাম্মদ
    • মু.আরিফুল ইসলাম
    • রাজাবাবু
    • রক্স রাব্বি
    • আলমগীর আলম
    • সৌহার্দ্য দেওয়ান

    ৫৭ ধারা বাতিল কর


    মানুষ সামাজিক জীব।
    সমাজের রীতিনীতি ও নিয়মের প্রতি তাকে অনুগত থাকতে হয়। এই অনুগত্যই সুশৃঙ্খল জীবন নিশ্চিত করে। সামাজ মানুষেরই সৃষ্ট রাজনৈতিক সংগঠন হচ্ছে রাষ্ট্র।
    রাষ্ট্রীয় জীবনে উন্নতি ও সুশৃঙ্খল নিশ্চিত করার জন্য নিয়ম-কানুন, বিধি-বিধান প্রণীত হয়। সৃষ্ট হয় আইন। আইন বলতে নিয়ম-কানুন, বিধি বিধানকে বুঝায়। সাধারন ভাবে সমাজে যে বিধি-বিধান মানুষ মেনে চলে তা হল সামাজিক আইন। আর সমাজের মানুষের আচার-আচরনকে নিয়ন্ত্রণের জন্য সরকার যে সকল বিধি বিধান চালু করে সেগুলোকে বলে রাষ্ট্রীয় আইন। আইন মানুষের বাহ্যিক আচরন নিয়ন্ত্রণ করে। প্রতিটি আইন রাষ্ট্র কর্তৃক অনুমোদিত ও স্বীকৃত।

    তিনটি কোরআন আয়াত যা প্রতিটি নারীর জানা উচিৎ



    ডেভিড উড হল একজন আমেরিকান খ্রীষ্টান প্রচারক যিনি মূলত মুসলমাদের কাছেই খ্রীষ্টধর্ম প্রচার করেন, ইউটিউবে তার কমপক্ষে ৬০০ টি ভিডিও আছে যার প্রায় সবিই ইসলাম নিয়ে, যার মোট দর্শক সংখ্যা ৪ কোটির উপর, ডেভিড উড যুক্তরাষ্ট্রের ফোর্ডহাম বিশ্ববিদ্যলয় থেকে দর্শনে ডক্টরেট ডিগ্রি নেন। ইসলাম নিয়ে তার অনেক ভিডিওর একটি হল Three Quran Verses Every Woman Should Know

    প্রেম নয় দেহ


    মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে রত্না ক্লাস টেনের টেস্ট পরীক্ষাতে খুব ভাল রেজাল্ট করেছিল বরাবরের মতই। এবারো সব বিষয়েই তার নম্বর ৮০% এর উপরে। যা দেখে টেইলার দোকানের মালিক বাবা রেজাউল খুব খুশী। তার আশা, মেয়ে অনেক ওপরে যাবে তার। ভাগ্যবতি এ মেয়েটা জন্মের পর থেকেই তার টেইলারিং ব্যবসায়ে ঈর্ষণীয় উন্নতি হয়েছে। যেখানে সে ছোট একটা দোকান নিয়ে কোন রকমে গলির ভেতরে সেলাই করতো পুরণো নিক্সন মার্কেটের সার্ট-প্যান্ট। আজ সেই তারই এসি লাগানো দোকানে ৭-জন কর্মচারী কাজ করছে দিন রাতে। আপন ভাই জয়নুলকেও সে রেখেছে নিজ দোকানে, একা সামলাতে পারেনা বলে। প্রতিদিন মেয়ে রত্নার হাসিমুখ একবারও না দেখে থাকতে পারেনা স্নেহশীল এ বাবা।

    রাত্রির সীমানা



    তোমার ওই চলার পথে জানি
    একদিনও আমায় খুঁজবে না,
    পথে পথে আমার অস্তিত্ব রবে
    জানি সেটাও তুমি বুঝবে না।

    জানি,
    একদিন তুমি খুঁজবে!
    কেন করতাম এতো জ্বালাতন?
    এর মানে তুই বুঝবে...

    তোর কাছে আমি যতটুকু ছিলাম দৃশ্যমান
    ঠিক ততোটুকুই আজ রেখে গেলাম,
    আর হ্যাঁ,আমি যতোটুকু ছিলাম অদৃশ্যমান
    ততোটুকু নিয়েই আজ বিদায় হলাম।

    তারা কবে শিখবে! একটুখানি গল্প।


    একটি রাতের স্বপ্নে তাকে দেখাগেল বিপদ মুক্ত হবার চেষ্টা করছে। যদিও তার উচ্ছাসিত চেহারা জীবন অাকঙ্খার টানে নিভু নিভু হয়ে গেল, সে একটা ফুলের দিকে ছুটছে যার নিচে কিছু পোকা মরে পড়ে আছে। বিধাতার নিদর্শণ বুঝি! মানুষ চেষ্টা করলে প্রায়শ্চিত্তের সাথে সাথে প্রতিশোধ নিতে পারে। লোকটা মেয়েটির বাবা-মার সাথে কথা বলে, এবং কোনপ্রকার ইচ্ছে ছাড়াই যে স্বপ্ন দর্শন, তার সাথে কোন অধ্যাত্মিকতা জড়িত কিনা তা জানার সুযোগ খোঁজে, কিন্তু তারা ব্যস্ত এবং সবার মত একই রকম স্বাভাবিক জীবনযাপনে অভ্যস্ত। তবে লোকটি নিজের বিশ্বাস অটুট রাখেন যে সবকিছুই পুনরায় বিচার করা হবে। হ্যা, মেয়েটিকে আবার স্বপ্নে দেখে, ‘আমাকে ফেলে যাবেন না, (না হলে) মেরে ফেলেন, মেরে নিয়ে যান’। মুসলমান পরিবারে জন্মালেও লোকটি নিজস্ব ধর্ম অনুসরণ করেন, আর মেয়েটি সেই পূর্ববর্তী ধর্মের একটা শিশু মেয়ে।

    'প্রকৃত শিক্ষিত' লোকের অভাব নয় কমিউনিষ্ট আন্দোলনে বিপর্যয়ের কারণ অন্যখানে


    শ্রদ্ধেয় বদরুদ্দীন উমর তার সম্পাদিত সংস্কৃতি পত্রিকার অক্টোবর–নভেম্বর মহান অক্টোবর বিপ্লবের শত বার্ষিকী বিশেষ সংখ্যায়, ‘সমাজতান্ত্রিক সংগ্রামের পথ’ শিরোনামে কমিউনিস্ট আন্দোলনের মূল্যায়নধর্মী একটি প্রবন্ধ লিখেছেন। ওই প্রবন্ধে তিনি তার রাজনৈতিক অবস্থান থেকে কমিউনিস্ট আন্দোলনকে দেখেছেন। তার এই লেখাটি ছোট হলেও এটিই তার বর্তমান অবস্থানকে নির্দেশ করছে। তিনি কমিউনিস্ট আন্দোলনের সফলতা–ব্যর্থতাকে কিভাবে দেখছেন, তা এই লেখায় স্বল্প পরিসরে হলেও সামগ্রিকভাবেই এসেছে। কিন্তু ওই লেখায় তিনি কমিউনিস্ট আন্দোলনকে মূল্যায়ন করেছেন এক যান্ত্রিক ব্যক্তিকেন্দ্রিক মূল্যায়নের দ্বারা। নিঃসন্দেহে বদরুদ্দীন উমর এদেশের স

    ভারত তো ৩৭৭ ধারা নিয়ে ভাবছে, বাংলাদেশ কি পারবে?


    ভারত গনতান্ত্রিক চর্চায় বাংলাদেশ থেকে অনেক অগ্রগামী এটা নিয়ে বির্তকের কোনো অবকাশ আছে বলে আমি মনে করি না। তাই তাদের পক্ষে যতটা সহজ ৩৭৭ধারাকে বাতিল করা, আমাদের জন্য ঠিক ততটাই কঠিন। ৮ জানুয়ারীতে বিবিসি বাংলা তাদের প্রকাশিত খবরে লিখলো, ভারতে বর্তমানে কট্টোর হিন্দুবাদী দল ক্ষমতায় থাকায় এই ৩৭৭ সংক্রান্ত মামলার রিভিউ নিয়ে সংশয়ের অবকাশ আছে। কিন্তু আমাদের দেশে যে দলকে সবচেয়ে বেশি উদারপন্থী মনে কার হতো সেই দলের শাষনে আমলেই দুইজন সমকামী অধীকার কর্মীকে নৃশংস ভাবে হত্যা করা হয়েছে। এবং হত্যাকারীদের পক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাফাই গাওয়ার মতো ঘটনাও ঘটেছে।

    মডারেট মুসলমানদের পীরের নাম হচ্ছে পিনাকী ধান্দাবাজ!!


    আপনি কি জানেন পৃথিবীর সবচেয়ে বড় মূর্খ কে?

    হ্যাঁ, যে নিজেকে মহাজ্ঞানী মনে করে সে হলো পৃথিবীর সবচেয়ে বড় মূর্খ। আপনি দেশি-বিদেশি অসংখ্য লেখকের বই পড়তে পারেন। তারমানে আপনি জ্ঞানী হয়ে গেলেন তা কিন্তু নয়। আপনি যে বইগুলো পড়েছেন, সেগুলো লেখকের মনের মত করে না পড়ে, নিজের মত করে পড়েছেন। এমনকি নিজের মত একটা অর্থ দাঁড় করিয়ে দিয়েছেন। সেই বইগুলো পড়ার কারণে আপনার সময় নষ্ট হয়েছে। আপনি বইগুলো থেকে কিছুই শিখতে পারেননি।

    পৃষ্ঠাসমূহ

    কু ঝিক ঝিক

    ফেসবুকে ইস্টিশন

    SSL Certificate
    কপিরাইট © ইস্টিশন.কম ® ২০১৬ (অনলাইন এক্টিভিস্ট ফোরাম) | ইস্টিশন নির্মাণে:কারিগর